Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সব ম্যাচ খেলতে চান স্টার্ক

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০১৯, ৯:৪৩ পিএম

আইসিসি বিশ্বকাপের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে আসা অস্ট্রেলিয়ার সেমি-ফাইনাল অনেকটাই উজ্জ্বল। এমন অবস্থায় অস্ট্রেলিয়া তাদের সেরা পেসার মিচেল স্টার্ককে বিশ্রামে রাখতেই পারে। তবে এই ফাস্ট বোলার বলেছেন, বিশ্রাম নেয়ার কোন ইচ্ছাই তার নেই।
বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বিশ্বকাপে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর আসনটি দখল করেছেন স্টার্ক। এই তালিকার শীর্ষে রয়েছেন ব্রেট লি। বর্তমান টুর্নামেন্টে এ পর্যন্ত ১৩ উইকেট নিয়ে তালিকার শীর্ষে থাকা স্টার্ক বিশ্রামের চিন্তা করছেননা বলে জানান। আইসিসিকে তিনি বলেন, ‘আমি যদি সুস্থ থাকি, তাহলে সবগুলো ম্যাচই খেলতে চাই। তবে এটি বিশ্বকাপ। তাই বিষয়টি আমার উপর নির্ভর করছে না। নিজ থেকে আমি বিশ্রামের দিকে এগুতে চাই না।’
বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত ৫ ম্যাচের মধ্যে চারটিতেই জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। শুধু মাত্র ভারতের কাছে এক ম্যাচে পরাজিত হয়েছে। গত শনিবার শ্রীলঙ্কংার বিপক্ষে অসিদের ৮৭ রানে জয় পাওয়া ম্যাচে ৫৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে তারকা দ্যুতি ছড়ানো স্টার্ক বলেন, ‘জয় পাওয়াতেই আমি কৃতজ্ঞ।’
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচেও একইভাবে দলকে ব্রেকথ্রু কিভাবে এনে দিলেন জানতে চাইলে জবাবে স্টার্ক বলেন, ‘আমি চ্যালেঞ্জ উপভোগ করি।’ টুর্নামেন্টে অন্য বোলারদেও তুলনায় মিতব্যায়ী এই পেসারের মূল লক্ষ্য থাকে দলকে ব্রেকথ্রেু এনে দেয়া।
তিনি বলেন, ‘ডেথ ওভারে বোলিং করাটা চ্যালেঞ্জর। জয়ের চেষ্টা করার চ্যালেঞ্জ, কিংবা শিরোপা অক্ষুণœ রাখার চ্যালেঞ্জ। আমি সত্যি এটিকে উপভোগ করি। এ জন্য আমি কঠোর পরিশ্রম করি। দীর্ঘকাল ধরেই আমি একটি ভুমিকা রাখার চেস্টা করে আসছি। অন্যদের তুলনায় হয়তো আমি বেশী মিতব্যয়ী। কিন্তু আমি মাঠে যাই দলকে ব্রেকথ্রু এনে দিতে।’
স্টার্ক বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেট এখনো আমার কাছে সেরা। কিন্তু সাদা বলের ম্যাচের তুলনায় এটিকে আমার অনেকটা সাদামাটা মনে হয়।’ সম্প্রতি ইনজুরির কারণে মার্কাস স্টয়নিসকে হারানোর কারণে অস্ট্রেলিয় দলের ভারসাম্য খুন্ন হয়েছে। তবে স্টার্ক বলেন, দলের হয়ে এই অল রাউন্ডার প্রয়োজনীয় সবকিছুই করছেন।
স্টার্ক বলেন, ‘স্টয়নিস একটি অুপ্রেরণা। তিনি সব সময় হাসি মুখে থাকেন। আমার মনে হয় এই কারণেই দলকে অনুপ্রাণিত করতে জাস্টিন ল্যাঙ্গার তাকে স্কোয়াডভুক্ত করেছেন। তিনি এমন একজন সতীর্থ, যিনি দলীয় সদস্যদের জন্য ভাল কিছু করতে চান। সবার জন্য তিনি সর্বাত্মক সহায়তা দিয়ে থাকেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ