Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

মেয়াদোত্তীর্ণ সকল কমিটির সম্মেলন অক্টোবরের আগেই

আ. লীগের বর্ধিত সভায় ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০১৯, ১২:০৪ এএম | আপডেট : ১২:১১ এএম, ২০ জুন, ২০১৯

জাতীয় সম্মেলনের আগেই আওয়ামী লীগের বিভিন্ন ইউনিট ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোর মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির দ্রুত সম্মেলন করার নির্দেশনা দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

গতকাল বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় এ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ নির্দেশনার কথা জানান। দলের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী সফলভাবে পালনের লক্ষ্যে এই বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি নিয়ে চলা নেতাকর্মীরা আগামী অক্টোবরে আগেই নতুন কমিটি পাচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের সহযোগী সংগঠনগুলো যাদের মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে, তাদেরকে আমরা ইতোমধ্যে নির্দেশনা দিয়েছি। শুধু সহযোগী সংগঠন নয়, আওয়ামী লীগের জেলা মহানগর, উপজেলা, থানা শাখা সংগঠনের যে সকল কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে তাদের স্ব স্ব সম্মেলন সম্পন্ন করার জন্য আমরা কেন্দ্র থেকে নির্দেশনা দিয়েছি।
কমিটি করতে গিয়ে ব্যক্তি পছন্দের লোক না নেয়ার নির্দেশ দিয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, কমিটি করতে গিয়ে নিজের লোক খুঁজবেন না, দলের লোক খুঁজবেন। কেউ নিজের থাকবে না। সবাই আওয়ামী লীগের, সবাই শেখ হাসিনার সঙ্গে থাকবে।

তিনি বলেন, নিজের লোক কখনও চিরস্থায়ী থাকে না। দলের জন্য কাজ করুন। দল কে শক্তিশালী করুন। দুঃসময়ে দলের নেতা-কর্মীদের অবহেলা করবেন না। যারা অসহায় অসচ্ছল তাদের পাশে দাঁড়ান।
আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কঠোর নির্দেশনা আসছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, এবার আমাদের বিদ্রোহীর সংখ্যা একেবারেই কম ছিল। তবুও বিদ্রোহীদের ব্যপারে শৃঙ্খলা কমিটির মিটিংয়ে আমরা শৃঙ্খলার বেপারে আরও কঠোর হবো। আগামী কার্যনির্বাহী সভায় এ ব্যাপারে আলোচনা হবে।

বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি সরকারের জন্য আটকে আছে’ বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপির এই সব অভিযোগ অবান্তর ও হাস্যকর। খালেদা জিয়ার মুক্তি কেবল আদালতই দিতে পারে। এখানে সরকারের কোন হস্তক্ষেপ নেই। আওয়ামী লীগ সরকার কখনওই আদালতের উপর হস্তক্ষেপ করেনি, করবেও না।
অনুষ্ঠানে মহানগরের সহ-সভাপতি ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, দেশে নাশকতার সুযোগ নেই। নাশকতা প্রতিহত করতে আমাদের গোয়েন্দাবাহিনী প্রস্তুত আছে। যারা বাংলাদেশকে ভালোবাসে তারা কখনও নাশকতা করতে পারে না।

তিনি বলেন, নাশকতা অনেক জঘন্য কাজ। বাংলাদেশের মানুষ এখন অনেক সচেতন হয়েছে। নাশকতা করে কেউ পার পাবে না। তারপরও সবাই তৈরি আছে। তিনি আরো বলেন, আগামী বছর আমরা মুজিব বর্ষ পালন করব। তারপর স্বাধীনতার ৫০ বছর পালন করব। আমরা যেন মুজিব বর্ষ সফলভাবে পালন করতে পারি সেজন্য নেতাকর্মীদের সবকিছুর ঊর্ধ্বে থেকে কাজ করে যেতে হবে।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম রহমতউল্লার সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, সহ-সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আজিজুল হক রানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।#



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওবায়দুল কাদের


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ