Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সউদীতে ‘সৌজন্য’ আইন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০১৯, ৩:০৭ পিএম

সউদী সমাজে পরিবর্তনের হাওয়া আনতে ধর্মীয় পুলিশদের প্রতিপত্তি আগেই রদ করে দিয়েছিলেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। কিন্তু তার পরিবর্তে ‘সৌজন্য’ আইন পাশ করে নজরদারি জারি রাখতে চান তিনি। সমালোচকদের দাবি, এ আসলে মুদ্রার অপর পিঠ। সমাজে ধর্মীয় প্রতিনিধিদের ক্ষমতা কমিয়ে রাষ্ট্রের ক্ষমতা বলবৎ করার প্রচেষ্টা মাত্র। পাশাপাশি রক্ষণশীল ও আধুনিক দুই সমাজেই নিজের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ানোর কৌশল।

এই ‘সৌজন্য’ আইনের রূপরেখা কেমন হবে, কবে থেকে, কী ভাবে তা বলবৎ হবে তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। সরকারি সূত্রের মতে, এপ্রিলে সউদী আরবের মন্ত্রিসভায় আইনটি পাশ হয়। ২৫ মে তা চালু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ২৭ মে জানানো হয়, সেটি চালু হচ্ছে না। কবে হবে, তার নির্দেশিকাও জারি হয়নি। ওই আইনে জনসমক্ষে আচরণবিধি বেঁধে দেওয়া হবে। তাতে মেয়েদের খোলামেলা পোশাক থেকে পুরুষদের শর্টস পরা নিষিদ্ধ। এমনকি কোনও ছবি যদি সমাজের পক্ষে ‘ক্ষতিকর’ বলে মনে হয়, নিষিদ্ধ হবে তা-ও। নিয়ম ভাঙলে ৫ হাজার রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা। এই আইনকে ব্যঙ্গ করে কিছু মিম ঘুরছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। একটিতে দেখা গিয়েছে, সউদীর ঐতিহ্যবাহী আলখাল্লার মতো পোশাক পরে ট্রেডমিলে হাঁটছেন এক ব্যক্তি। ফলে সউদীর রক্ষণশীল সমাজে আদৌ কতটা খোলা হাওয়া ঢোকে সেটাই এখন দেখার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সউদী আরব

৬ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন