Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

তিমি মাছের বমির মূল্য ২ কোটি টাকা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০১৯, ৪:২৩ পিএম

বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে বড় প্রাণী বলতে সবার আগেই মাথায় আসে যে নাম, তা হলো তিমি। গভীর সমুদ্রে বাস করা মাছটি শিকার করে তার তেল বিক্রি কয়েক শতাব্দীর এক পরিচিত ব্যবসা। তবে, এবার শোনা যাচ্ছে ভিন্ন কথা, তিমি মাছের বমি বিক্রি করা হয় ভারতের মুম্বাইতে, আর সেই বমি বিক্রি করতে গিয়ে গ্রেফতারও হলেন ৫৩ বছর বয়সী রাহুল দুপার।

দীর্ঘদিন ধরেই তিমি মাছের প্রায় ১ দশমিক ৩ কেজি বমি জমিয়েছিলেন আটক ব্যক্তি। তবে, এই বমি যে সে বমি নয়! এক বিশেষ প্রজাতির তিমি মাছের বমি যার পোশাকি নাম অ্যাম্বারগ্রিস, তা বিক্রি করতে এসেই যত ঝামেলা। ভারতীয় মুদ্রায় ওই বমি বা অ্যাম্বারগ্রিসের দাম ১ দশমিক ৭ কোটি টাকা! যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২ কোটি ৬ লাখের কিছু বেশি। মঙ্গলবার মুম্বাইয়ে এই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অ্যাম্বারগ্রিস হলো একজাতীয় মোমের মতো পদার্থ যা ‘স্পার্ম হোয়েল’ নামে পরিচিত তিমির অন্ত্র থেকে নির্গত হয়। সাধারণত ক্রান্তীয় সমুদ্রে এই বিরল পদার্থটি ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়। সুগন্ধি উৎপাদনে সাধারণত ব্যবহৃত হয়ে থাকে এই ‘তিমির বমি’ অ্যাম্বারগ্রিস।

মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, পুলিশ ও বন বিভাগের এক যৌথ দল শনিবার বিদ্যাবিহার শহরতলি এলাকার কামা লেনে আগেভাগেই ফাঁদ পেতে রেখেছিল। এই বিষয়ে যাবতীয় তথ্য আগেভাগেই ছিল পুলিশের কাছে। সেই মতোই রাহুল দুপারকে গ্রেফতার করেন তারা।

পুলিশ বলেছেন, ‘আমরা ওই ব্যক্তির কাছ থেকে ১ দশমিক ৭ কোটি টাকা মূল্যের ১ দশমিক ৩ কেজি অ্যাম্বারগ্রিস বাজেয়াপ্ত করেছি। এটি একটি নিষিদ্ধ বস্তু। আমরা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের প্রাসঙ্গিক বিভাগের অধীনে একটি মামলা দায়ের করেছি এবং রাহুল দুপারকে গ্রেফতারও করেছি।’

স্পার্ম হোয়েল বা শুক্রাণু তিমি বন্যপ্রাণী আইনের অধীনে সংরক্ষিত একটি বিপন্ন প্রজাতি। অ্যাম্বারগ্রিস অ্যালকোহল, ক্লোরোফর্ম, ইথার এবং নির্দিষ্ট ভোলাটাইল এবং কিছু নির্দিষ্ট তেলেই দ্রবণীয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ