Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রেমের কবিতা

| প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০১৯, ১২:১০ এএম

 

কামরল আলম কিরণ
তোমাকে

তোমাকে দেখলেই আমি
কেমন যেনো হারিয়ে ফেলি খেই
অনেক কথার মালা গাঁথি মনে
বলবো ভাবি,দেখি তখন কিচ্ছু মনে নেই
তোমাকে দেখলেই আমি
কাক-চক্ষু দিঘির জলে করি যেনো স্নান
মনের ভেতর হাজার কথার ঢেউ ওঠে
বলতে গিয়ে ফিরে আসি
যখন দেখি তোমার অই চাঁদমুখটা ম্লান
তোমকে দেখলেই আমি
থাকি না আর চল্লিশ পেরোনো কোনো লোক
মনের ভেতর বাজতে থাকে
কেমন যেনো তালে তালে
একতারা দোতারার সাথে
পাগল করা পুরনো ঢোলোক
তোমাকে দেখলেই আমি
কেমন যেনো থেমে যাই
হঠাৎ বৃষ্টিতে ভিজে হই একাকার
মনের গহীনে থাকা ভালোবাসাগুলো
একেকটা হয়ে ওঠে
টুংটাং বেজে ওঠা আয়ুব বাচ্চুর গিটার।

রহমান খলিল
চিরন্তন

আমার দুঃখটা আরও
গর্ভবতী হয়,
হাজারও স্বপ্ন সমগে
কামারের হাপারের মতো
জলন্ত কয়লাময় আগুনে
অর্হনিশি সুতীব্র যন্ত্রনায়
ছটফটাই আমি বার বার!
আগ্নেয়গীরির লাভাময় হৃদয়টা
চিরন্তন আগ্নেয়গীরি!
ক্ষয়ে ক্ষয়ে নিঃশেষ হয়
স্রোতে বহমান
নুড়ি পাথরের মতো।

শেখ ফিরোজ
যে কারণে তোমাকে চাই

তোমাকে ভালোবাসি এ মিথ্যেটা বলতে বলতে-
এমন করে চলতে চলতে ঘৃণ্য হয়ে গেছি আমি !
বড় নিপাকের ছয়লাবে অন্ধকার হয়ে গেছে মনের আসমান ;
চৌচির হয়ে গেছে মনের জমিন ! বড্ড ঊষর হয়ে গেছে বোধ।
নেই রোদ, বৃষ্টি ।অতিষ্ট তেষ্টায় খেয়ে ফেলি মূত্র-
দুর্বিসহ গন্ধে নিজের প্রায়শ্চিতে হয় নিজের প্রতিশোধ।
তোমাকে ভালোবাসি এ মিথ্যেটাই খেয়েছে সূর্য, চাঁদ ও পৃথিবীর ডিম্বাশয়।
সত্যিটা হল-তোমাকে ছাড়া আমার পৃথিবী বড্ড বিস্বাদ।
আমার পৃথিবী কৌনিক হয়ে, ভৌতিক হয়ে আস্ত পিরামিড হয়ে গেছে-
আর আমি ঢুকে গেছি আমিহীন পিরামিডে জীবন্ত মমী হয়ে।
তোমাকে ছাড়া বড্ড আমিহীন এই আমি !
সত্যিটা হল-আমাকে ভালোবেসে আমি তোমাকে দেখি পৃথিবী রূপে।
তাই তুমিহীন আমি, পৃথিবীর পিরামিডে এক জীবন্ত মমী।
যেদিন তুমিও শুধুই তোমাকেই ভালোবাসবে -
আবার সূর্য উঠবে পৃথিবীতে , আঁধার কেটে যাবে,
আবার জমবে মেঘ আসমান গালিচায়।
ঊর্বর হয়ে যাবে ঊষর নদী ; ফুলে ফুলে ভরে যাবে তীর
হবে বসতি - হবে রঙিন নীড়। বারি বর্ষণে ধুয়ে যাবে চৌচির -
যদি ভালোবাসি এই মিথ্যেটা ভুলে তোমাকেই ভালোবাসো তুমি;
আর চোখ তুলে তাকাও আমার চৌচির জমিনে।
তবে এই বসুন্ধরা রঙিন হবে নবীন ফুলে।
এবং আমি ভালোবাসি শুধুই আমাকেই।

সাইদ খান
গাবফল

আমি এক মুঠো কামরাঙা রস
ঢেলে দিয়েছি তোমার উঠোনে ।
তোমার শরীরে তখন নক্ষত্রের রাত
বুকের ভেতর অগনিত স্বপ্ন মিছিল
ছুঁয়েছে নীলিমা আঁচল ।

সেই যুগল সন্ধ্যায় তোমার মহলে
কি শ্যেন ! দৃষ্টি আমার।
তোমার লোবান সাগরে,
বৈঠা বাইতে বাইতে
তারা গুলো নিবে গেছে।
গাছের বাকলের মতো -
খসে গেছে নীল শৈশব
চেনা পথ আপন মানুষ
ভুলে গেছে রক্তের গতিপথ।

তেল নুনহীন এই সংসারে
আজো মিথ্যে প্রদ্বীপ জালি।
কষ্টের থালায় দেখি জমে আছে
দুখের খোয়াব।

ঘরে বাইরে চারদিকে-
কচি প্রেম বতি প্রেম জাগে,
সবুজ ঘাসের মতো জাগে দুধাল গাই।
কদবেলের দেহের মতো
উসকু খুসকু হয় পনের শৈশব কাল।
আমি প্রাচীত্য সীমানায় দেখি
পরিত্যক্ত গাবফল।
কিন্ত তুমি আজো -
আমার উষ্ণ ঢেউয়ের তরী।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কবিতা

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
১৬ আগস্ট, ২০১৯
২ আগস্ট, ২০১৯
১২ জুলাই, ২০১৯
৫ জুলাই, ২০১৯
২৮ জুন, ২০১৯
২১ জুন, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন