Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি, একজনের কারাদণ্ড

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২১ জুন, ২০১৯, ৫:০২ পিএম

নগরীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় আরেকজনের হয়ে পরীক্ষা দিতে বসে ধরা পড়েছেন এক যুবক। পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে গ্রেফতারের পর তাকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাজাপ্রাপ্ত মো. ফরিদ উদ্দিন (২৯) কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলার ফরিদুল ইসলামের ছেলে।

শুক্রবার নগরীর মিউনিসিপ্যাল মডেল হাইস্কুলে নিয়োগ পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১০ মিনিট আগে ধরা পড়েন তিনি। পরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কায়সার খসরু তাকে এক বছরের সাজা দিয়ে কারাগারে পাঠিয়েছেন। ফরিদ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার মমতাজুল ইসলামের ছেলে মো. তারিফুল ইসলামের হয়ে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। পরীক্ষা চলাকালীন বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে ম্যাজিস্ট্রেট জানতে পারেন, তারিফুল পরীক্ষার হলের বাইরে অবস্থান করছেন, তার পরিবর্তে পরীক্ষা দিচ্ছেন আরেকজন।
পরে ম্যাজিস্ট্রেট পরীক্ষার হলে গিয়ে ফরিদের প্রবেশপত্র যাচাই করে ছবি টেম্পারিংয়ের প্রমাণ পান। একপর্যায়ে ফরিদ প্রক্সি দেওয়ার কথা স্বীকার করলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরে সাংবাদিকদের জানান, ফরিদ খুবই ধূর্ত এবং সে প্রশ্নফাঁসকারী সিন্ডিকেটের সঙ্গে যুক্ত। সে প্রথমে তার বাড়ি বাঁশখালী বলে জানিয়েছে। কিন্তু তার কাছে থাকা পরিচয়পত্রের মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি- তার বাড়ি কুতুবদিয়ায়। সে নিজেকে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বলে দাবি করেছে। কিন্তু এ সংক্রান্ত কোনো প্রমাণ তার কাছে নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ