Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

ব্যাটিং অস্ট্রেলিয়া মানের, বোলিং?

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৯, ১২:০৬ এএম


বিশ্বকাপে পাঁচ ম্যাচে মাঠে নেমে তিনটিতেই তিনশোর্ধ্ব রান করেছে বাংলাদেশ। দলের ব্যাটিং সামর্থ্যরে উন্নতির গ্রাফটা যে ক্রমেই উপরের দিকে উঠছে, তার প্রমাণ মেলে এই পরিসংখ্যানে। ঠিক তার বীপরিতচিত্র বোলিংয়ে। ব্যাটিয়ে যেখানে পাঁচ ম্যাচের তিনটিতে তিনশোর্ধো রান তুলেছে, চরটি ম্যাচে আবার প্রতিপক্ষও তিণশোর্ধ রান তুলতে পেরেছে বাংলাদেশের নখদন্তহীন নির্বিষ বোলিংয়ে!

একদিকে ব্যাটসম্যানদের প্রসংশার জোয়ারে জখন ভাসছে ব্যাটসম্যানরা, বোলিংটা আরো উন্নতি করার পরামর্শও আসছে বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে। এই যেমন ‘মিস্টার ক্রিকেট’ খ্যাত সাবেক অস্ট্রেলিয়ান মাইকেল হাসি যারপরনাই মুগ্ধ বাটিং নৈপুণ্যে, আবার লড়াকু মানসিকতা উদ্বেলিত করেছে ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ খ্যাত সোয়েব আখতারকেও। কিন্তু বাংলাদেশের বোলিং বিভাগে আরও অগ্রগতি দেখতে চান ক্যারিবিয়ার কিংবদন্তি ইয়ান বিশপ।

সেমিফাইনালে ওঠার আশা জিইয়ে রাখতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয়টা গুরুত্বপূর্ণ ছিল বাংলাদেশের জন্য। ব্যাটিংয়ের একটা সময় ম্যাচে মোটামুটি ভালোভাবেই টিকে ছিল মাশরাফির দল। আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় দুই নম্বরে আছেন সাকিব আল হাসান। ৫ ইনিংসে তার ব্যাট থেকে এসেছে ৪২৫ রান। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিকেটের যে কোনো সংস্করণের একক সিরিজ বা টুর্নামেন্টে কমপক্ষে চারশো রান করার কীর্তি গড়েছেন তিনি। রান সংগ্রাহকদের তালিকায় সাতে মুশফিকুর রহিম। ৫ ইনিংসে তার ব্যাট থেকে এসেছে ২৪৪ রান।

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের এমন ধারাবাহিকভাবে রান পাওয়া এবং হার না মানা মানসিকতা নজর কেড়েছে হাসির। জনপ্রিয় ক্রীড়া বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর ম্যাচ পরবর্তী বিশ্লেষণে তিনি ভূয়সী প্রশংসা করেন সাকিব-মুশফিকদের। এমনকি অজিদের সঙ্গে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপেরও তুলনা টানেন হাসি। তবে টাইগারদের বোলিং আক্রমণ নিয়ে কাজ করার অনেক কিছুই আছে বলে মনে করেন তিনি। তার বিশ্বাস, ব্যাটিংয়ের মতো বোলিং বিভাগে উন্নতি করতে পারলে, শিগগিরই বড় দলের পর্যায়ে নাম লেখাতে পারবে বাংলাদেশ, ‘দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার খুশি থাকারই কথা। তবে তাদের পুরোটা সময় লড়াই করতে হয়েছে। বাংলাদেশ যেভাবে এত বড় লক্ষ্যের পেছনে ছুটছিল, সেজন্য তাদের প্রতি আমার অভিবাদন রইল। এটা একটা বিশাল লক্ষ্য ছিল। তবে তারা নিজেদের অবস্থানটা বোঝাতে পেরেছে। তারা কখনওই হাল ছেড়ে দেয়নি। তারা কঠিন লড়াই করেছে। আর আমার কাছে নিশ্চিতভাবেই মনে হয়েছে, কিছু কিছু সময়ে অস্ট্রেলিয়ানরা চিন্তায়ও পড়ে গিয়েছিল। আপনি যদি দুটি দলকে পাশাপাশি রাখেন, তাহলে দেখবেন, বাংলাদেশের ব্যাটিং এতটাই উন্নতি করেছে যে, সেটা প্রায় অস্ট্রেলিয়ার সমমানের হয়ে গেছে। তবে দুদলের মূল পার্থক্যের জায়গাটা হলো বোলিংয়ে। বাংলাদেশ যদি বোলিংয়ে আরও বেশি মনোযোগ দিতে পারে, আগামী কয়েক বছরের এই জায়গাটায় আরও উন্নতি করতে পারে, কয়েকজন বিস্ময়কর স্পিনার ও গতিময় পেসার খুঁজে বের করতে পারে, আমি বিশ্বাস করি যে, তারা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের সেরাদের কাতারে উঠতে পারবে।’

চার শ ছুঁইছুঁই রান তাড়া করা চাট্টিখানি কথা নয়। সবচেয়ে শক্তিশালী দলেরও ৩৮১ রান তাড়া করতে গিয়ে ঘাম ছুটে যায়। সেখানে বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ান বোলিংয়ের বিপক্ষে এই রান তাড়া করতে নেমে হেরেছে মাত্র ৪৮ রানে। মাশরাফি বিন মুর্তজার দলের লড়াকু মানসিকতার তাই প্রশংসা করেছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতার। ম্যাচ শেষে রাউয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসখ্যাত এই গতি তারকার টুইট, ‘বাংলাদেশ আবারও অবিশ্বাস্য লড়াকু মানসিকতা দেখাল। তারা শেষ কয়েক ওভারে অতিরিক্ত রান দিয়ে ফেলেছে, নইলে ম্যাচটা তাদের হাতেই থাকত। বড় রান তারা কীভাবে তাড়া করে, সে ব্যাপারে সত্যিই ভালো শিক্ষা পাওয়া গেল।’

বিশ্বকাপের গ্রæপপর্বে আরও ৩ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এর মধ্যে বড় দল বলতে শুধু ভারত ও পাকিস্তান। বিশ্বের সবচেয়ে দ্রæতগতির সাবেক এ পেসার কি এই টুইট দিয়ে তাঁর দেশের জাতীয় দলকে সাবধান থাকতে বললেন? বড় রান করেও বাংলাদেশের বিপক্ষে স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই- এমন ইঙ্গিতই কি দিলেন শোয়েব?

ইয়ান বিশপও মেতেছেন টাইগার বন্দনায়। তবে বাংলাদেশের বোলিংয়ে উন্নতির জন্য পরামর্শও দিয়েছেন ক্যারিবীয় কিংবদন্তী। সা¤প্রতিককালে বাংলাদেশ যে লড়াকু ক্রিকেট খেলছে তা উপভোগ করছেন জানিয়ে বিশপ বলেন, ‘বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের লড়াকু ক্রিকেট আমি বেশ উপভোগ করছি। মুস্তাফিজুর রহমান ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে সাহায্য করার মত কিছু পেসার যদি তারা তৈরি করতে পারে তাহলে তারা আরও অসাধারণ দলে পরিণত হবে।’ ভারতের পেস আক্রমণভাগ নিয়েও একসময় ছিল দুশ্চিন্তা। তবে বর্তমানে উপমহাদেশের দেশ ভারতের পেস আক্রমণভাগকে বিশ্বের অন্যতম সেরা হিসেবে গণ্য করেন অনেকে। বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের উন্নতির জন্য ভারতকে অনুসরণের পরামর্শ দেন বিশপ, ‘পেস আক্রমণ প্রতিষ্ঠা করার জন্য ভারত যা করেছে, তার আদর্শ কী হতে পারে?’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন