Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

মালিঙ্গা তোপে চূর ইংল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৯, ১২:৩১ এএম

২৩২ রানের পুঁজি নিয়েও রোমাঞ্চকর ম্যাচে বিশ্বকাপ ফেভারিট ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে শ্রীলঙ্কা। লাসিথ মালিঙ্গার বোলিং তোপে বৃথা গেছে বেন স্টোকসের হার না মানা ৮২ রানের ইনিংস। ২০ রানের জয়ে সেমিফাইনালের দৌড়ে ভালোভাবেই টিকে রইল সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

লিডসের হেডিংলিতে গতকাল বিশ্বকাপের ২৭তম ম্যাচে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে ২৩২ রান করে শ্রীলঙ্কা। জবাবে ১৮ বল বাকি থাকতে ২১২ রানে গুটিয়ে যায় ইংলিশরা। ৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনেই রইল ইংল্যান্ড। সমান ম্যাচে ২ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশকে ছয়ে ঠেলে পাঁচে উঠে এসেছে শ্রীলঙ্কা।

লো স্কোরিং ম্যাচে নিজের প্রথম স্পেলেই ২৬ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে তুলে নিয়ে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন মালিঙ্গা। জো রুটের (৫৭) ব্যাটে স্বাগতিকরা যখন নিজেদের সামলে নেয়ার পথে ঠিক তখনই দ্বিতীয় স্পেলে বোলিংয়ে এসে রুট ও জস বাটলারকে তুলে নিয়ে মিডিল অর্ডার ধ্বসিয়ে দেন এই ডানহাতি পেসার। তৃতীয় উইকেটে রুট-স্টোকস জুটি যোগ করে ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৪ রান। তার আগে অধিনায়ক মরগানকে ফিরিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ৪৭ রানের জুটি ভাঙেন ইশুরু উদানা।

বাটলার ফেরার পর লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে শুরু হয় স্টোকসের লড়াই। নিজের টানা ওভারে মইন আলি, ক্রিস ওকস ও আদিল রশিদকে তুলে নিয়ে দলকে জয়ের কাছে নিয়ে যান দনাঞ্জয়া ডি সিলভা। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে জোফরা আর্চার যখন থেকের তখনও ইংলিশদের চাই ৪৭ রান। স্ট্রাইক রেখে সেই পথেই এগুচ্ছিলেন স্টোকস। কিন্তু নুয়ান প্রদিপের ওভারের শেষ বল ক্রিস উডের ব্যাট ছুঁয়ে পিছনে গেলে যাত্রা শেষ হয় ইংল্যান্ডের। ৪৩ রানে ৪ উইকেট নেন ম্যাচের নায়ক মালিঙ্গা, ৩২ রানে ৩টি নেন দনাঞ্জয়ান, ২টি উদানার। ম্যাকগ্রা, মুরালিধরন ও ওয়াসিম আকরামের পর চতুর্থ বোলার হিসেবে বিশ্বকাপে ৫০ উইকেটের মাইলফলকে পা রাখেন মালিঙ্গা।

বাকি তিন ম্যাচে ইংল্যান্ডের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ। তিন ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ তালিকার শীর্ষ চারে থাকা বাকি তিন দল যথাক্রমে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ভারত। শ্রীলঙ্কার বাকি তিন প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারত।

অথচ দিনের শুরুতে মনে হচ্ছিল আরো একটি একপেশে ম্যাচ উপহার দিতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। টস জয়ী লঙ্কান ইনিংস শুরুতেই ধাক্কা খায় দলীয় ৩ রানে দুই ওপেনারকে হারিয়ে। এরপর অভিষিকা ফার্নান্ডো (৪৯), কুসল মেন্ডিসরা (৪৬) ধ্বস সামলানোর চেষ্টা করেন বটে কিন্তু রান আসেনি প্রত্যাশা মত। স্টোকসের মত লঙ্কান ইনিংস ছিল একক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস শো। মিডিল ও লোয়ার অর্ডারদের নিয়ে লড়াকু পুঁজি এনে দেন সাবেক অধিনায়ক। ১১৫ বলে ৫ চার ও ১ ছক্কায় ৮৫ রানে অপরাজিত থাকেন ম্যাথিউস। তিনটি করে উইকেট নেন আর্চার ও উড। ধারাবাহিক ভালো বোলিং করে যাওয়া আর্চার উঠে আসেন অস্ট্রেলিয়ার মিচেল স্টার্কের সঙ্গে যৌথভাবে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ (১৫) উইকেট শিকারী বোলারদের তালিকার শীর্ষে।

শ্রীলঙ্কা : ৫০ ওভারে ২৩২/৯ (ফার্নান্দো ৪৯, কুসল মেন্ডিস ৪৬, ম্যাথিউস ৮৫*, ডি সিলভা ২৯; ওকস ১/২২, আর্চার ৩/৫২, উড ৩/৪০, রশিদ ২/৪৫)। ইংল্যান্ড : ৪৭ ওভারে ২১২ (রুট ৫৭, মরগান ২১, স্টোকস ৮২*; মালিঙ্গা ৪/৪৩, নুয়ান ১/৩৮, দনাঞ্জয়া ৩/৩২, উদানা ২/৪১)। ফল : শ্রীলঙ্কা ২০ রানে জয়ী। ম্যাচ সেরা : লাসিথ মালিঙ্গা।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন