Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭, ২৯ শাবান ১৪৪২ হিজরী

লক্ষ্মীপুরে জেলের বসতবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে সুদখোর আওয়ামীলীগ নেতা

সুদের টাকা না পাওয়ায় অভিযোগে

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৯, ১:৩০ পিএম

সুদের টাকা না পাওয়ায় লক্ষ্মীপুরে রামগতিতে এক জেলের বসতবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ঘটনাটি ঘটেছে রামগতি উপজেলার চরআফজাল এলাকায়। এ ঘটনায় চরমিজ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন ও তার ছেলে রিয়াজ হোসেনসহ ৬জনকে আসামী করে এ মামলা দায়ের করা হয়েছে। হতদরিদ্র জেলে গিয়াস উদ্দিনের আত্নীয় লিটন হোসেন বাদল বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে রামগতি থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে ও ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়, বছর খানেক আগে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিনের কাছ থেকে সুদের ওপর ১০ হাজার টাকা নেয় হতদরিদ্র জেলে গিয়াস উদ্দিনের স্ত্রী শাহীনুর বেগম। ইতিমধ্যে ১০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন তারা। এরপর থেকে বাকী সুদের ১৪ হাজার টাকা দেয়ার জন্য আওয়ামীলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন চাপ সৃষ্টি করে আসছিল। গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই টাকার জন্য চাপ সৃষ্টি করে আওয়ামীলীগ নেতার ভাতিজা দিদার হোসেন। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় আওয়ামীলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিনের ইন্ধনে তার লোকজন শাহীনুর আক্তার ও তার পরিবারের ওপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা শাহীনুর বেগমের বসত ঘরে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয় বলে অভিযোগ করেন ক্ষতিগ্রস্ত শাহীনুর আক্তারের ভাই লিটন হোসেন বাদল। এসময় শাহীনুর আক্তার,তার ভাই লিটন হোসেন বাদলসহ ৫জন আহত হয়। এ ঘটনার সুষ্ট তদন্ত করে দোষীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেন তারা। অপরদিকে আওয়ামীলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিনের সাথে বারবার যোগাযোগ করে তার বক্তব্য পাওয়া না গেলেও তার ছেলে রিয়াজ হোসেন জানান, শাহীনুর আক্তারের কাছে আমার বাবা কিছু টাকা পাওনা রয়েছে। এ ঘটনার সাথে তার বাবা ও তাদের কেউ জড়িত নয়। তারাই নিজেরা দোকান থেকে কেরোসিন কিনে এনে তাদের বাড়ি আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেন বলে দাবী করেন তিনি।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এটিএম আরিচুল হক জানান, এ ঘটনায় গিয়াস উদ্দিনসহ ৬জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। জড়িতদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লক্ষ্মীপুর


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ