Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নাসিরনগরের ফান্দাউকে ২২ বছর ধরে আঞ্চলিক সড়ক ও প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয় মাঠে গরুর হাট

যান চলাচল ও জনসাধারণে চরম দুর্ভোগ চোখে পড়ে না প্রশাসন ও ইজারা কমিটির

নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৯, ৫:১৪ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার ফান্দাউকে ২০ বছরেরও অধিক সময় ধরে সরকারি আঞ্চলিক সড়ক ও প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয় মাঠের ওপর গড়ে উঠেছে ফান্দাউক গরুর বাজার। সপ্তাহের প্রতি বৃহস্পতিবার জমে এই গরুর হাটটি। জানা যায় ১৯৯৭ সালের দিকে ফান্দাউক গ্রামবাসীর উদ্যোগে গরুর বাজারটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি মোঃ খলিলুর রহমান এবং সেক্রেটারি ছিলেন মোঃ মুজিবুল হক। 

১০-১৫ বছর পর বাজারটি গ্রামবাসীর হাতছাড়া হয়ে গেলে এর দায়িত্ব উপজেলা প্রশাসন নাসিরনগরের হাতে ন্যাস্ত হয়। বর্তমান যেই স্থানে গরুর হাট বসছে সেই জায়গাটিকে প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয় ও বিদ্যালয়ের মাঠের জন্য নির্ধারন করা হয় এবং বিদ্যালয়ের একটি ভবনও নির্মাণ করা হয়।

২২জুন শনিবার দুপুরে এসব বিষয়ে জানতে চাইলে
মুঠোফোনে ফান্দাউকের বিশিষ্ট সমাজসেবক, বাংলাদেশ ইয়োথ ফোরামের সভাপতি ও সুপ্রিম কোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী এম আমিনুল ইসলাম মুনির বলেন- বর্তমান জায়গাটি প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয়ের নামে। প্রথম দিকে বাজারের ইজারার টাকা সম্পূর্ণ বালিকা বিদ্যালয়ের তহবিলেই জমা হতো। পরবর্তীতে সরকারের অধিনে চলে যায়, এবং গরু বাজারের নামে ফান্দাউক সওদাগর পাড়ার পূর্ব পাশে জায়গা কেনা ও মাটি ভরা হলেও এখন পর্যন্ত বাজারটি বালিকা বিদ্যালয়ের মাঠেই জমানো হচ্ছে এমনকি বাজার ইজারাদার কমিটি বিদ্যালয় কমিটি বা কারো কোন অনুমতি না নিয়ে অবৈধভাবে পূর্ব দিকের কর্ণারে অস্থায়ী একটি অফিস ঘরের শ্যাড নির্মান করেছে। কিন্তু ইজারা কমিটি আয়ের কোনো অংশ প্রস্তাবিত এ বালিকা বিদ্যালয়ের তহবিলে দিচ্ছেনা।

সেই থেকে আজ পর্যন্ত বন্যা কিংবা সাময়িক অসুবিধার কারণে গরুর বাজারের নির্ধারিত স্থান থাকা সত্যেও যান বাহনের ব্যস্ত সরাইল নাসিরনগর- ফান্দাউক- রতনপুরের এই আঞ্চলিক সড়কের ওপরেই বসছে গরুর হাটটি। যার কারণে জনসাধারণের পথ চলা ও যান চলাচলে মারাত্মক দুর্ভোগ ও যানজট পোহাতে হচ্ছে দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে। যেখানে কয়েক সেকেন্ড সময়ে অতিক্রম করা যায় সেখানে প্রতিটি যান বাহনের প্রায় ১৫-২০ মিনিট সময় দিতে হচ্ছে গরুর বাজারের এই স্থানটিকে অতিক্রম করতে। এমন কি প্রতি বৃহস্পতিবার গরুর হাট বসার দিন ফান্দাউক বাজারে প্রবেশের পূর্ব দিকের মূল রাস্তাটিতেও তিল ধারণের জায়গা থাকেনা। ২০ জুন সরেজমিনে গিয়ে একটি ফেইসবুক লাইভের মাধ্যমে সরাসরি দেখানো হয় রাস্তায় ও প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয় মাঠে গড়ে উঠা গরুর বাজারের সার্বিক পরিস্থিতি। ফেইসবুকে লাইভ সম্প্রচারের সময় সাক্ষাৎকারে কয়েকজন ক্রেতা বিক্রেতা ও এলাকাবাসী বলেন গরুর বাজারের জন্য বরাদ্দকৃত নির্ধারণ স্থান ফান্দাউক সওদাগর পাড়ার পূর্ব পাশে (সাইট পাকা ও মাটি ভরাটকৃত) বর্তমান নির্ধারিত স্হান থাকা সত্বেও প্রস্তাবিত বালিকা বিদ্যালয় মাঠে বাজার নিয়মিত জমানো হচ্ছে। এখনো পর্যন্ত বাজারটিকে রাস্তা ও বিদ্যালয়ের মাঠ থেকে সরাতে গরু বাজার ইজারাদার কমিটি ও প্রশাসনের কোন উদ্যোগ নেই। যার ফলে দেখা যায় বাজারের দিন মূল সড়ক বন্ধ হয়ে যানবাহন চলাচল ও সাধারণ মানুষের যাতায়াতে মারাত্নক সমস্যা হচ্ছে।

এবিষয় আরও জানতে চাইলে ২২জুন শনিবার ফান্দাউক ইউপির বর্তমান চেয়ারম্যান একেএম কামরুজ্জামান মামুন মুঠোফোনে জানান- বর্তমানে আমি ইউপির দায়িত্ব গ্রহণ করার পর পরই সড়ক ও বিদ্যালয় মাঠ ব্যবহার করে গরুর বাজার জমানো ও সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে গ্রামবাসী কিংবা ইজারাদার কমিটি কেউ আমাকে কিছুই স্পষ্ট জানাতে পারিনি। নির্ধারিত স্থানে গরু বাজারটি কেন জমানো হচ্ছেনা? জানতে চাইলে চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বলেন- দীর্ঘ দিন ধরে একই কমিটি গরু বাজার ইজারার দায়িত্বে থাকা কিংবা প্রশাসনের অনিহার কারণেই এমনটা হচ্ছে বলে আমি মনে করি। এসব পরিস্থিতিতে সড়ক কর্তৃপক্ষ, উপজেলা প্রশাসন ও বাজার কর্তৃপক্ষ যেন দ্রুত এর একটি ব্যবস্থা গ্রহণ করে এবং নিরাপদে যান চলাচল ও জনগণের দুই যুগেরও বেশি সময়ের দুর্ভোগের সমাপ্তি দেয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ