Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

৬ মাসের কমিটি চায় ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধরা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৯, ৭:২৮ পিএম

৬ মাসের জন্য স্বল্পমেয়াদী অথবা নিয়মিত ছাত্রদের দিয়ে কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছে সম্প্রতি বিলুপ্ত কমিটির একাংশের নেতারা। শনিবার (২২ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান বিক্ষুব্ধ ছাত্র নেতারা। মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ায় গত ৩ জুন ছাত্রদলের কমিটি বিলুপ্ত করে বিএনপি। একইসাথে ৪৫ দিনের মধ্যে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের কথা বলা হয়। নতুন কমিটিতে নেতা হওয়ার যোগ্যতা হিসেবে ২০০০ সাল থেকে পরবর্তী যেকোনো বছরে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ এবং দেশের যে কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র হতে হবে বলে জানানো হয়।

এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ১১ জুন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের গেটে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিক্ষোভ করে ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির একাংশ। কমিটির নেতারা ছাত্রদলের নতুন কমিটিতে প্রার্থী হতে ২০০০ সাল পর্যন্ত এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার যে বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয়েছে, তা তুলে দেওয়ার দাবি করেন। কিন্তু বিএনপির নীতিনির্ধারকেরা ছাত্রদের দিয়েই কমিটি করতে চান। এরপর থেকে ছাত্রদলের একাংশ আন্দোলন করে আসছে। ওই একাংশরই এক নেতা ও ছাত্রদলের সহ-সভাপতি এজমল হোসেন পাইলট গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমাদের দাবি ছয় মাসের জন্য একটি স্বল্পকালীন কমিটি গঠন করা হোক। অথবা নিয়মিত ছাত্রদের দিয়ে কমিটির গঠন করা হোক।

তিনি বলেন, ২০০০ সালের এসএসসির বাধ্যবাধকতা তুলে দিতে হবে। কারণ ২০০০ সালে এসএসসি পাস করা একজন ছাত্রের আনুমানিক বয়স ৩৫ বছর। তাঁর মাত্র দুই-তিন বছর আগে ৯৬-৯৭-৯৮ সালে এসএসসি পাস করা সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি ও যুগ্ম সম্পাদকেরা রয়েছেন। ৩৫ ও ৩৬ বছর বয়সে ছাত্রদল করা গেলে ৩৭ ও ৩৮ বছর বয়সে কেন করা যাবে না?

এজমাল হোসেন বলেন, এই বয়স নির্ধারণের সঙ্গে গভীর ষড়যন্ত্র রয়েছে। সবাইকে বাদ দিয়ে সিন্ডিকেটের ব্যক্তিকেন্দ্রিক বয়স নির্ধারণ ছাত্রদলের লাখ লাখ নেতাকর্মী মোটেও মেনে নিতে পারছে না।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি ইকতিয়ার রহমান কবির বলেন, দেশের কোনো ছাত্র সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটি নিয়মিত ছাত্রদের দিয়ে গঠিত হয় না। এর মধ্যে ছাত্রদলের নেতৃত্বের বয়স অপরাপর ছাত্র সংগঠনের তুলনায় তুলনামূলকভাবে একটু বেশি। তিনি বলেন, দুই বছর মেয়াদি কমিটি পাঁচ বছর চললেও দল কর্ণপাত করত না।

কবির বলেন, নতুন কমিটি গঠনে যে যোগ্যতা নির্ধারণ করেছে এতে করে দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রদল করে যারা নেতৃত্ব পাওয়ার আশায় ছিলেন, এখন আকস্মিক সিদ্ধান্তে তাদের পদ পাওয়ার সেই সুযোগ বন্ধ হয়ে গেল। ছাত্রদলের আগের কমিটির সব সহ-সভাপতি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সহ-সাধারণ সম্পাদক, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদস্যরা বাদ পড়বেন। শুধু তাই নয়, ঢাকার বিভিন্ন ইউনিটের ২৪ জন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে ২১ জনও বাদ পড়বেন।

তিনি বলেন, দুই বছরের কমিটির মেয়াদ প্রায় পাঁচ বছর অতিবাহিত হওয়ায় আমরা ছয় মাসের জন্য একটি ধারাবাহিক কমিটির আবেদন তারেক রহমানের কাছে করেছিলাম। এতে দল তার কর্মীদের বর্তমান ও ভবিষ্যতে সঠিকভাবে মূল্যায়ন করার পাশাপাশি এখন দেশব্যাপী বেশ কিছু অসমাপ্ত সাংগঠনিক কাজ সম্পন্ন করার সুযোগ পাচ্ছে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের সভাপতি জহির উদ্দিন তুহিন বলেন, আমাদের দাবি পূরণের জন্য ধারাবাহিকভাবে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করে যাচ্ছি। রোববার আমাদের কর্মসূচি স্থগিত থাকবে। এর মধ্যে দাবি পূরণ না হলে সোমবার থেকে আবার আমাদের অবস্থান কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের সভাপতিত্বে সহ-সভাপতি বায়জিদ আরেফিন, যুগ্ম সম্পাদক ওমর ফারুক মুন্নাসহ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে ছাত্রদলের নেতাদের সংবাদ সম্মেলনের আগে ১১টার দিকে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তৈমুর আলম খন্দকারের নেতৃত্বে আইনজীবীদের একটি মিছিলে যোগ দিতে নয়া পল্টনের কার্যালয় থেকে নেমে তোপের মুখে পড়েন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। রিজভী ওই মিছিল করে কার্যালয়ে ঢোকার পথে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা স্লোগান দিয়ে কার্যালয়ের মূল প্রবেশ পথে দাঁড়িয়ে পড়ে। পরে বিক্ষুব্ধদের কয়েকজন নেতা অন্যদের শান্ত করে রিজভীকে কার্যালয়ে ঢুকিয়ে দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছাত্রদল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ