Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

বগুড়ায় বিসিএসআইআরের পরিবেশবান্ধব ও মানসম্মত চাতাল ব্যবহার শীর্ষক সেমিনার

বগুড়া ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৯, ৫:২৩ পিএম

বগুড়ায় বিসিএসআইআর কর্তৃক উদ্ভাবিত মানসম্মত, নিরাপদ, দক্ষ ও পরিবেশবান্ধব চাতাল ব্যবহার শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের (বিরা ও বেখা) অতিরিক্ত সচিব মোঃ মিজানুর রহমান ।
বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ আয়োজিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বিসিএসআইআর এর সদস্য(বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি) বিজয় ভূষণ পাল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রায়হানা ইসলাম, প্রধান বয়লার পরিদর্শক প্রকৌশলী মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিসিএসআইআর এর পরিচালক, পিপি এন্ড পিডিসি প্রকৌশলী রূপেশ চন্দ্র রায়।
গতকাল রবিবার বগুড়ার আরডিএ’ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে বক্তাগণ বলেন, চাতাল শিল্পকে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা এবং পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় হতে বিজ্ঞান সম্মত পরিবেশবান্ধব নিরাপদ ও স্বল্প চাপের চাতাল বয়লার তৈরির উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। তারই অংশ হিসেবে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদ নিজস্ব অর্থায়নে বাংলাদেশ প্রকৌশণ বিশ^বিদ্যালয়ের একজন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক এবং প্রধান বয়লার পরিদর্শকের সাথে আলোচনা করে নিরাপদ, পরিবেশ বান্ধব ও জ¦ালানি সাশ্রয়ী বয়লার ডিজাইন করা হয়েছে। উদ্ভাবিত ডিজাইন অনুযায়ী প্রতি ঘন্টায় ৫শ’ কেজি বাস্প উৎপাদন এবং ১ হাজার লিটার পানি ধারণ ক্ষমতার ১টি বয়লার ফেব্রিকেশন করে পাইলট স্কেলে বগুড়ার শেরপুরে স্থাপন করে পরীক্ষা করা হয়। অর্জিত অভিজ্ঞতার আলোকে মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার বাগুটিয়ায় প্রতি ঘন্টায় ৩শ’ কেজি ষ্টীম উৎপাদন ও ৫শ’ লিটার পানি ধারণ ক্ষমতার আরেকটি বয়লার স্থাপন করে পরীক্ষা ও পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। উদ্ভাবিত বয়লার অধিক নিরাপদ, প্রচলিত চাতাল বয়লার এর তুলনায় স্বল্প সময়ে ধান সিদ্ধ হয় এবং ৩৮ ভাগ কার্বন নিঃসরঃণ জনিত বায়ু দূষণ রোধে সক্ষম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সেমিনার


আরও
আরও পড়ুন