Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

কাউন্সিলের বিস্তারিত তুলে ধরলেন নির্বাচন পরিচালনা কমিটি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০১৯, ৬:২৮ পিএম

ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের জন্য ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জুলাই। ওই দিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত কাউন্সিলে বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে। কাউন্সিলে প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে ওইদিন ছাত্রদলের ভোটাররা কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচন করবেন। রোববার (২৩ জুন) বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন।

কাউন্সিলের বিস্তারিত তথ্য তুল ধরে তিনি বলেন, কাউন্সিল উপলক্ষে ২৪ জুন ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হবে। ২৫ জুন ভোটার তালিকার বিষয়ে আপত্তি গ্রহণ। চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ ২৬ জুন। ২৭ ও ২৮ জুন প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বিতরণ, ২৯ ও ৩০ জুন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত প্রার্থীদের কাছ থেকে মনোনয়ন গ্রহণ। প্রার্থিতা যাচাই-বাছাই হবে ১, ২ ও ৩ জুলাই, প্রার্থীদের খসড়া তালিকা প্রকাশ ৪ জুলাই, প্রার্থীদের সম্পর্কে আপত্তি গ্রহণ ৫ জুলাই, প্রার্থীদের সম্পর্কে আপত্তি নিষ্পত্তি ৬ জুলাই, ৭ জুলাই প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রার্থীরা ১৩ জুলাই রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচারণা চালাতে পারবেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এবং ছাত্রদল কমিটি গঠনের সার্চ কমিটির প্রধান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ভোটগ্রহণের স্থান এখনও আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিবাহিতরা ছাত্র নয়, তারা প্রার্থী হতে পারবেন না। সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের সাবেক নেতাদের মধ্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, এ বি এম মোশাররফ হোসেন, আজিজুল বারী হেলাল, শফিউল বারী বাবু, আমিরুল ইসলাম খান আলীম, আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, রাজিব আহসান, আকরামুল হাসান প্রমূখ।

গত ৩ জুন ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিল আয়োজনের নির্দেশ দেয়া হয়। এজন্য সাবেক নেতাদের দিয়ে তিনটি কমিটি গঠন করে বিএনপি। কমিটি তিনটি হচ্ছে, নির্বাচন পরিচালনা কমিটি, বাছাই কমিটি ও আপিল কমিটি।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটিতে আছেন দলের যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, প্র্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এবিএম মোশাররফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সহ-প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম ও নির্বাহী সদস্য রাজীব আহসান।

বাছাই কমিটিতে আছেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সম্পাদক হাবিবুর রশীদ হাবিব, নির্বাহী কমিটির সদস্য আকরামুল হাসান।

আপিল কমিটিতে রয়েছেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন ও চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমানউল্লাহ আমান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ছাত্রদল


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ