Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

শাকিবের চার ছবি প্রযোজনার ঘোষণা, আলোর মুখ দেখবে কি?

বিনোদন রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০১৯, ১:৩৩ পিএম | আপডেট : ২:৩০ পিএম, ২৪ জুন, ২০১৯

গত ঈদুল ফিতরে মালেক আফসারীর পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছে ‘পাসওয়ার্ড’। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন শাকিব খান ও শবনম বুবলী। ইতোমধ্যেই ছবিটির সফলতা সবার চোখে পড়েছে। কারণ এখনও দেশের অসংখ্য প্রেক্ষাগৃহে দর্শক সিনেমাটি উপভোগ করছেন। এই সফলতার জোয়ারে ভাসছেন খোদ সিনেমাটির অভিনেতা-প্রযোজক শাকিব খানও। সিনেমাটি ব্যবসা সফল হওয়ায় এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন শাকিব। গতকাল রবিবার এফডিসির জহির রায়হায় কালার ল্যাবে এই সংবাদ সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনটিতে শাকিব খান নিজের প্রযোজনায় আরো চারটি নতুন ছবির করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।
ছবিগুলো পরিচালনা করবেন স্বনামধন্য চিত্রনির্মাতা কাজী হায়াৎ, মালেক আফসারী, বদিউল আলম খোকন এবং হিমেল আশরাফ। এই নির্মাতাদের মধ্যে সবাই উপস্থিত ছিলেন এ সংবাদ সম্মেলনটিতে। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন প্রযোজক নেতা খোরশেদ আলম খোসরুও।
জানা গিয়েছে আগামী ঈদের আগেই শাকিবের প্রযোজনা সংস্থা এসকে ফিল্মস থেকে একটি ছবির শুটিং শুরু হবে। বাকিগুলো ছবির শুটিং হবে পর্যায়ক্রমে। বিষয়টি নিয়ে পরিচালক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এবং শাকিবের সর্বাধিক ছবির নির্মাতা বদিউল আলম খোকন জানিয়েছেন, ‘ইতোমধ্যেই আপনারা জানেন হিরো এখন ব্যস্ত আছেন জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির শুটিংয়ে। ছবিটি প্রযোজনা করছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিনের যুবলীগ সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট। তার এই ছবির শুটিং সম্পন্ন হলেই হয়তো নিজের প্রযোজিত ছবির শুটিং আরম্ভ করবেন শাকিব।’
এদিকে জানা গিয়েছে শাকিব খান ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের প্রযোজনায় আরো বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করবেন বলে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। তাহলে নিজের ছবির শুটিং তিনি কবে নাগাদ শুরু করবেন সেই প্রশ্ন থেকেই যায়।
এই প্রশ্নের উত্তর জানতে ইনকিলাবের সঙ্গে কথা হয় শাকিব খান প্রযোজিত আরেক ছবির পরিচালক জনাব কাজী হায়াতের সঙ্গে। তিনি বলেছেন, ‘আগামী ঈদের আগেই শাকিবের প্রযোজনা এবং আমার পরিচালনায় ‘বীর’ ছবির শুটিং শুরু করবো। এতে শাকিবের বিপরীতে অভিনয় করবেন শবনম বুবলী। এছাড়া থাকবেন মিশা সওদাগর এবং সাদেক বাচ্চুও। দেশের সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে এগিয়ে যাবে ছবিটির গল্প। আমার অতীতের ছবিগুলোর মতো এই ছবিতেও একটি ম্যাসেজ থাকবে। বর্তমানে যুব সমাজ ধ্বংস করছে মাদক। এই মাদক নিয়েই নির্মাণ করতে যাচ্ছি ‘বীর’।’
এর আগেও কাজী হায়াৎ গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন তার এই ‘বীর’ সিনেমা সম্পর্কে। তিনি জানিয়েছিলেন, সিনেমাটিতে মৌসুমী এবং তার ছেলে নায়ক কাজী মারুফ অভিনয় করবেন। তবে কাজী হায়াতের সেই বক্তব্যের প্রমাণ পাননি দর্শক। এরও কারণ রয়েছে বটে। অসুস্থতার জন্য কাজী হায়াৎ বেশ কিছুদিন যুক্তরাষ্ট্রে ছিলেন। হয়তো এ কারণেই নির্মাতা তার আগের পরিকল্পনাটি বাস্তবায়ন করতে পারেননি। তবে আমেরিকা থেকে ফিরে নির্মাতা ‘বীর’-এর শিল্পী থেকে শুরু করে অনেক কিছুই পরিবর্তন করে ফেললেন। এখানে প্রশ্ন থেকেই যাই সত্যিই কি ‘বীর’ প্রেক্ষাগৃহের পর্দায় নিতে পারবেন কাজী হায়াৎ? নাকি ঘোষণাতেই সীমাবদ্ধ থাকবে সিনেমাটি। কারণ তিনি যার নৌকার মাঝি হতে যাচ্ছেন। সেই শাকিব খানও এর আগে বেশ কয়েকবার নতুন ছবির ঘোষণা দিয়েও কাজ করেনি। ঘোষণাতেই শেষ করেছেন নতুন নতুন ছবি।
এর আগে শাকিব খান সমালোচিত নির্মাতা শামীম আহমেদ রনির পরিচালনায় একটি সিনেমার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু বাস্তবতা বলছে ভিন্ন কথা। শুধু তাই নয়, হিমেল আশরাফের পরিচালনাও ‘প্রিয়তমা’ নামে একটি সিনেমা প্রয়োজনা করার কথা বলেছিলেন ঢাকাই ছবির এই শীর্ষ নায়ক। তবে সেই সিনেমার শুটিং শুরু করতে পারেননি এই অভিনেতা। জানা গিয়েছে হিমেল আশরাফকে দিয়ে নতুন করে ওই সিনেমাটির ঘোষণাই দিয়েছেন শাকিব। এদিকে বদিউল আলম খোকন শাকিবের প্রযোজনায় নির্মাণ করবেন ‘ফাইটার’ এবং মালেক আফসারী নির্মাণ করবেন ‘পাসওয়ার্ড-২’।
তবে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই বলছেন এটা সুপারস্টারের একটি প্রচারণার কৌশল মাত্র। আলোচনায় থাকার জন্যই নানা সময় নানা ধরণের আওয়াজ তোলেন শাকিব। এটা তার একটি পলেটিক্সও বলতে পারেন। এই ধরনের নোংরা প্রচারণা করেই দীর্ঘদিন ধরে অন্য কোনো নায়ককে দাঁড়াতে দেন না তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শাকিব


আরও
আরও পড়ুন