Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

অপেক্ষা শেষে নতুন ছবিতে আঁচল

বিনোদন রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০১৯, ৭:৪৬ পিএম | আপডেট : ৮:২২ পিএম, ২৪ জুন, ২০১৯

দীর্ঘদিন হাতে কোনো সিনেমা না থাকায় নিন্মমানের স্টেজ শো করে জীবিকা নির্বাহ করছেন চিত্রনায়িকা আঁচল। একে পর এক এই নায়িকার সিনেমা ফ্লপ হওয়ায় প্রযোজকদের আগ্রহ হারিয়েছে তাকে নিয়ে কাজ করতে। আর সে কারণেই হয়তো দীর্ঘদিন নতুন সিনেমাতে দেখা যায়নি এই নায়িকাকে। এছাড়া অতীতে আঁচলকে নিয়ে কাজ করা পরিচালকদেরও নানা ধরণের অভিযোগ রয়েছে তাকে নিয়ে। ‘বেইলী রোড’ খ্যাত এই নায়িকার হাতে কাজ না থাকার এটাও একটি বড় কারণ হতে পারে বলে ধারণা করছেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। তবে নায়িকা কিন্তু অধির অপেক্ষায় আছেন। কবে একটা নতুন সিনেমার অফার আসে কাছে। অবশেষে আঁচলের সেই অপেক্ষার অবসান ঘটতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই নতুন সিনেমার অফারও পেয়েছেন। চুক্তিবদ্ধও হয়েছেন। এখন শুটিংয়ে যাবার পালা।
জানা যায় আঁচল নতুন একটি সিনেমাতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। খুব শীর্ঘই ওই সিনেমার শুটিংও শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন রাশিদ পলাশ। ‘মঙ্গলযাত্রা’ নামের এই সিনেমার শুটিং শুরু হবে আগামী সেপ্টেম্বরেই। দিনাজপুরের বিভিন্ন লোকশনে হবে সিনেমাটি শুটিং। মফিজ নামের একজন ব্যক্তির স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করবেন আঁচল। অর্থাৎ মফিজের স্ত্রী হিসেবেই দেখা যাবে আঁচলকে। কে এই মফিজ? কেনো তার জীবনী নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে নেমে পড়েছেন রাশিদ পলাশ? এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল খোদ নির্মাতাকে।
তিনি জানিয়েছেন, ‘উত্তরাঞ্চলের এক ধনাঢ্য ব্যক্তি ছিলেন মফিজ। সে কারণে ওই অঞ্চলের মানুষদের মফিজ বলেই ডাকা হয়। খানিকটা কৌতুহল থেকেই মফিজের জীবন কাহিনী নিয়ে ‘মঙ্গলযাত্রা’ নির্মাণ করতে যাচ্ছি। এরইমধ্যে আঁচলকে চুক্তিবদ্ধ করেছি। খুব শীঘ্রই অন্যান্য শিল্পীদেরও চুক্তিবদ্ধ করবো। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী সেপ্টেম্বরেই শুটিংয়ে যাবো।
এদিকে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট অনেকেই ধারণা করছেন এই সিনেমার কোনো ভবিষ্যৎ নেই। কারণ এর আগেও এই নির্মাতা একাধিক সিনেমার ঘোষণা দিয়ে সেগুলোর শুটিং শেষ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে রাশিদ পলাশ ‘নাইওর’ নামে একটি সিনেমার শুটিং করেছেন। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন ‘ম্যাডাম ফুলি’ খ্যাত নায়িকা সিমলা। কিন্তু সিনেমাটি আজও প্রেক্ষাগৃহের পর্দায় দেখতে পায়নি দর্শক।
অন্যদিকে আঁচলের ক্যারিয়ারের অতীত রেকর্ডও খুব বেশি ভালো নয়। তার অভিনীত একটি সিনেমাও ব্যবসা করতে পারেনি বললেই চলে। আঁচলকে নিয়ে সিনেমা বানাতে গেলে নিশ্চিত ক্ষতি মেনেই প্রযোজকে অর্থ লগ্নি করতে হবে বলেও মত প্রকাশ করেছেন অনেকে।
আঁচলের গুফ্লপ সিনেমার মধ্যে রয়েছে দেলোয়ার জাহান ঝন্টু পরিচালিত ‘এপার ওপার’। এই সিনেমাতে আঁচলের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন বাপ্পি চৌধুরী। এছাড়া মনিরুল ইসলাম সোহেল পরিচালিত ‘স্বপ্ন যে তুই’, ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত ‘আজব প্রেম’ সাফি উদ্দিন সাফির ‘প্রেম প্রেম পাগলামী, আবুল কালাম আজাদের ‘হৃদয় দোলানো প্রেম’, ইস্পাহানি আরিফ জাহানের ‘গুন্ডা দ্য টেরোরিস্ট’, হিমেল আশরাফের ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ এবং শাহেদ চৌধুরীর ‘আড়াল’ রয়েছে এই তালিকায়।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ