Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯, ০৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সন্ত্রাস দমনে আন্তরিক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কমর জাভেদ বাজওয়া বলেছেন, সন্ত্রাস দমনে সব ব্যবস্থা নিচ্ছে পাক সরকার। তবে এ কাজে প্রতিবেশী দেশগুলির সাহায্যও প্রয়োজন। কূটনীতিকদের মতে, বাজওয়া বলতে চান, পাকিস্তান সন্ত্রাস-দমনে আন্তরিক। কিন্তু কাশ্মীরের মতো সমস্যা না মিটলে যে দক্ষিণ এশিয়া স্থিতিশীল হবে না, তা-ও বুঝিয়েছেন তিনি। আবার সন্ত্রাস-দমনের দায় কিছুটা হলেও পরোক্ষভাবে যে ভারতেরও আছে তাও বোঝাতে চেয়েছেন।

এফএটিএফ-এর শর্ত মেনে পদক্ষেপ করতে না পারলে আন্তর্জাতিক আর্থিক সাহায্য থেকে বঞ্চিত হতে পারে ঋণ সঙ্কটে জর্জরিত পাকিস্তান। রোববার লন্ডনে এক বিশেষজ্ঞ সংস্থার মঞ্চে বাজওয়া বলেন, ‘শান্তির যারা শত্রু, তাদের নির্মূল করতে আমরা সব সম্পদ ব্যবহার করছি। তবে দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক বিবাদ না মিটলে শান্তি ও স্থিতি ফেরানো কঠিন।’ বাজওয়ার কথায়, ‘সব দেশ, বিশেষত প্রতিবেশীদের উচিত সন্ত্রাস দমনে হাত মিলিয়ে কাজ করা। কারণ, সন্ত্রাসবাদ সকলেরই শত্রু। আমরা অতীতে অনেক যন্ত্রণা ভোগ করেছি। আর ভোগ করতে চাই না। পাকিস্তান শান্তি ও স্থিতির পথে এগোচ্ছে।’ তার মতে, পাকিস্তান আঞ্চলিক যোগাযোগের কেন্দ্র। নিরাপত্তার উন্নতি হওয়ায় দেশে বিদেশি লগ্নির সম্ভাবনা বেড়েছে।

সেপ্টেম্বরের মধ্যে জঙ্গিদের আর্থিক সাহায্য বন্ধে পদক্ষেপ না হলে পাকিস্তানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে এফএটিএফ। তুরস্ক, চিন ও মালয়েশিয়ার সাহায্যে এ যাত্রা কালো তালিকাভুক্ত হওয়া এড়িয়েছে পাকিস্তান। ক‚টনীতিকেরা জানাচ্ছেন, এর পরে যে পরিস্থিতি আরও কঠিন হতে পারে, তা জানে ইসলামাবাদ। তাই বাজওয়ার মাধ্যমে সদর্থক বার্তা দেওয়া হল। সূত্র: এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন