Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

আফগানিস্তানকে হারিয়ে টিকে থাকল শেষ চারের আশা

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০১৯, ১১:১৮ পিএম

মুশফিকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর সাকিবের পাঁচ উইকেটে আফগানিস্তানকে ৬২ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচে বাংলাদেশ। আফগানদের বিপক্ষে এই জয়ে টিকে থাকল বাংলাদেশের শেষ চারের আশা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ২৬২/৭ (৫০ ওভার) (লিটন ১৬, তামিম ৩৬, সাকিব ৫১, মুশফিক ৮৩, সৌম্য ৩, মাহমুদউল্লাহ ২৭, মোসাদ্দেক ৩৫, সাইফউদ্দিন ২*; মুজিব ৩৯/৩, দৌলত ৬৪/১, নবী ৪৪/১, নাইব ৫৬/২, রশিদ ৫২/০, রহমত ৭/০)

আফগানিস্তান: ২০০/১০ (৪৭ ওভার) (নাইব ৪৭, রহমত ২৪, শহিদি ১১, আজগর ২০, নবী ০, শেনওয়ারি ৪৯, ইকরাম ১১, নাজিবুল্লাহ ২৩, রশিদ ২, দৌলত ০, মুজিব ০; মাশরাফি ৩৭/০, মুস্তাফিজ ৩২/২, সাইফউদ্দিন ৩৩/১, সাকিব ২৯/৫, মিরাজ ৩৭/০, মোসাদ্দেক ২৫/১)

মুস্তাফিজের প্রথম শিকার রশিদ

ম্যাচে রশিদকে ফিরিয়ে ব্যক্তিগত প্রথম উইকেট শিকার করলেন মুস্তাফিজ। ফেরার আগে তিনি ২ রান করেন। শেনওয়ারি ৪০ রান ও দৌলত ০ রানে অপরাজিত আছেন।

৪৪ ওভারে সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৯১ রান।

সাকিবের পাঁচে জয়ের কাছে বাংলাদেশ

প্রথমেই ধ্বসিয়ে দিয়েছেন আফগান ব্যাটিং লাইনআপ। এবার নাজিবুল্লাহকে ফিরিয়ে নিজের পাঁচ উইকেট তুলে নিলেন এই অলরাউন্ডার। বিশ্বকাপে দ্বিতীয় ব্যাক্তি হিসেবে একই ম্যাচে পঞ্চাশ রান ও পাঁচ উইকেট তুলে নিলেন সাকিব। এর আগে ২০১১ বিশ্বকাপে ভারতের যুবরাজ সিং এই কৃতিত্ব অর্জণ করেছিলেন। শেনওয়ারি ৩৯ রানে ও রশিদ ১ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৪৩ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮৯ রান।

রান আউটে ইকরামকে ফেরালেন লিটন

দুর্দান্ত এক ফিল্ডিংয়ে ইকরামকে রান আউট করেন লিটন। ডিরেক্ট থ্রোতে ‍রানের জন্য ছোটা ইকরামকে আ ক্রিজে পেরার সময় না দিলে ১১ রান করেই ফিরে যান তিনি। শেনওয়ারি ১৪ রানে ও নাজিবুল্লাহ ৪ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৩৬ ওভারে ৬ উইকেটে ১৪১ রান।

আসগরকেও ফেরালেন সাকিব

আসগরকে ফিরিয়ে ম্যাচে চতুর্থ উইকেট শিকার করলেন সাকিব। আউট হওয়ার আগে ২০ রান করেন তিনি। শেনওয়ারি ৭ রানে ও ইকরাম ৬ রানে অপরাজিত আছেন।

৩৪ ওভারে সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১২৫ রান।

সাকিবের জোড়া আঘাতে ম্যাচ বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রণে

প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপে এক হাজার রানের পাশাপাশি ৩০ উইকেট নিলেন সাকিব। ব্যক্তিগত ৫ম ওভারের প্রথম বলে নাইবকে ফেরানোর পর তৃতীয় বলে নবীকে বোল্ড করে পিরিয়ে দেন সাকিব। এই দুই উইকেট পতনে ম্যাচের নিয়ন্ত্রন বাংলাদেশের হাতে। আসগর ১৩ রানে ও শেনওয়ানি ২ রানে অপরাজিত আছেন।

২৯ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০৬ রান।

শহিদেকে ফেরালেন মোসাদ্দেক

শহিদিকে ক্রিজে সেট হওয়ার পর আর এগুতে দেননি মোসাদ্দেক। ৩১ বলে ১১ রান করা শহিদিকে স্ট্যাম্পিং করেন মুশফিক। নােইব ৩৬ রানে ও আসগর ১ রানে অপরাজিত আছেন।

২২ ওভারে সংগ্রহ ২ উইকেটে ৮১ রান।

রহমত ফিরিয়ে জুটি ভাঙলেন সাকিব

ওপেনিং জুটিতে ভালো খেলে আতঙ্ক বাড়াচ্ছিলেন নাইব-রহমত জুটি। ৪৯ রানে সেই জুটি ভেঙে দেন সাকিব। তামিমের সহজ ক্যাচে পরিনত করে রহমতকে মাঠছাড়া করেন সাকিব। রহমত ব্যক্তিগত ২৪ রানে ফেরেন। নাইব ১৮ ও শহিদি ০ রানে অপরাজিত আছেন।

১৩ ওভারে সংগ্রহ ১ উইকেটে ৫১ রান।

মুশফিকের ব্যাটে ভালো সংগ্রহে বাংলাদেশ

মুশফিকুর রহিমের দ্বায়িত্বশীল ৮৩ রানে ভর করে আফগানিস্তানের বিপক্ষে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৬২ রোন করেছে। মুশফিক ছাড়াও সাকিবের ৫১ ও শেষে মোসাদ্দেকের ঝড়ো গতির ৩৫ রান এই সংগ্রহ দাঁড় করাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

মাহমুদউল্লাহকে ফেরালেন নাইব

৩৮ বলে ২৭ রান করে আফগান অধিনায়ক নাইবের শিকার হয়ে ফিরে গেলেন মাহমুদউল্লাহ। মুশফিক ৬৬ রানে ও মোসাদ্দেক ০ রানে অপরাজিত আছেন।

৪৩ ওভারে সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২০৭ রান।

মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে বাংলাদেশের দুইশ

মুশফিক-মাহমুদউল্লাহর দ্বায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে দুইশ রান পেরিয়েছে বাংলাদেশ। এই দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ইতিমধ্যে তাদের অর্ধশত রানের জুটি সম্পূর্ণ করেছেন। মুশফিক ৬৪ রানে ও মাহমুদউল্লাহ ২৫ রানে অপরাজিত আছেন।

৪২ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২০৩ রান।

ছক্কা হাঁকিয়ে মুশফিকের ফিফটি

দৌলতকে উড়িয়ে ছক্কা মেরে ব্যক্তিগত ৪৫তম অর্ধশত রান পূর্ণ করলেন মুশফিক। তিনি খেলছেন ৫২ রানে। মাহমুদউল্লাহ অপরাজিত আছেন ৭ রানে।

৩৭ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭২ রান।

সৌম্যর বিদায়ে চাপে বাংলাদেশ

সাকিবের পর মুজিবের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সৌম্য। মুজিবের আবেদনে সরাসরি সাড়া দেন আম্পায়ার। এরপর সৌম্য রিভিউ নিলে দেখা যায় বলের কিঞ্চিৎ অংশ স্ট্যাম্পে আঘাত করে। আম্পায়ার কলের কারনে ফিরে যেতে হয় সৌম্যকে। ফেরার আগে মাত্র ৩ রান করেছেন এই বাহাতি ব্যাটসম্যান। মুশফিক ৩৯ রানে ব্যাট করছেন। ক্রিজে নতুন যোগ দেয়া মাহমুদউল্লাহ খেলছেন ১ রানে।

৩৩ ওভারে সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৫৩ রান।

ফিফটি করে সাকিবের বিদায়

ব্যক্তিগত অর্ধশত রান পূর্ণ করে মুজিবের স্পিনে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন সাকিব। ফেরার আগে তিনি ৫১ রান করেন। মুশফিক ৩৩ রানে ও ক্রিজে নতুন ব্যাটিংয়ে আসা সৌম্য ০ রানে অপরাজিত আছেন।

৩০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৪৩ রান।

সাকিব-মুশফিকের পঞ্চাশ রানের জুটি

তামিমর বিদায়ের পর মুশফিককে নিয়ে পঞ্চাশ রানের জুটি করেছেন সাকিব। এছাড়া ক্যারিয়ারের৪৫তম ফিফটিও পূর্ণ করেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। মুশফিক অপরাজিত আছেন ৩০ রানে, সাকিব খেল ছেন ৫০ রানে। এর আগে বিশ্বকাপে ১৯তম ব্যাক্তি হিসেবে ১০০০ রান পূর্ণ করেছেন সাকিব। বাংলাদেশী প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবেও এই রেকর্ড করলেন তিনি।

২৮ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৩৯ রান।

বেঁচে গেলেন সাকিব

১৮তম ওভারে রশিদের প্রথম বলেই সাকিবকে এলবিডব্লিউয়ের সিদ্ধান্ত দেন আম্পায়ার। সঙ্গে সঙ্গে রিভিউ নেন সাকিব। রিভিউতে দেখা যায়, ইন লাইনে পিচ করা বলটি স্ট্যাম্পের উপর দিয়ে যাচ্ছে। ফলে বেঁচে গেলেন সাকিব, বাংলাদেশের রিভিউটিও টিকে থাকল। ব্যক্তিগত ২৬ রানে সাকিব এই জীবন পান।

আত্মবিশ্বাসহীন তামিমের বিদায়, চাপে বাংলাদেশ

শুরু থেকে নড়বড়ে ব্যাটিং চালিয়ে যাওয়া তামিম সরাসরি নবীর বলে বোল্ড হয়ে ফিরে গেলেন। ৩৬ রান করা তামিমকে হারিয়ে চাপে পড়েছে বাংলাদেশ। সাকিব ২৬ রানে ও মুশফিক ০ রানে অপরাজিত আছেন।

১৭ ওভার শেষে সংগ্রহ ২ উইকেটে ৮২ রান।

আবারও শীর্ষে সাকিব

বিশ্বকাপে শীর্ষ রান সংগ্রাহকের মুকুট আবারও ফিরে পেলেন সাকিব। আফগানদের বিরুদ্ধে ম্যাচে ২৩ রান পেরুনোর সময় ওয়ার্নারকে টপকে যান তিনি। বিশ্বকাপে ওয়ার্নারের রান ৪৪৭। সাকিবের রান এখন ৪৪৮। তামিম ৩০ রানে ও সাকিব ২৩ রানে অপরাজিত আছেন। ইতমদ্যে সাকিব-তামিম জুটিও পেরিয়েছে পঞ্চাশ রান।

১৪ ওভারে সংগ্রহ ১ উইকেটে ৭৪ রান।

শুরুতেই ফিরলেন লিটন

ওপেনিংয়ে পরিবর্তন এনে সৌম্যর পরিবর্তে খেলানো হয় লিটনকে। ভালো খেলে সেই আস্থার প্রতিদানও দিচ্ছিলেন বদলি এই ওপেনার। কিন্তু আফগান স্পিনার মুজিবের বলে শর্ট কাভারে শহিদির ক্যাচে পরিনত হয়ে ফিরে যান তিনি। ১৭ বলে ১৬ রান করে ফেরেন লিটন। ক্যাচে সন্দেহ থাকায় পরে তা তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে সিদ্ধান্তের জন্য পাঠানো হয়। পরে তৃতীয় আম্পায়ার আলিম দারের কলে বিদায় নিতে হয় লিটনকে। তামিম ৬ রানে ও সাকিব ১ রানে অপরাজিত আছেন।

৫ ওভারে সংগ্রহ ১ উইকেটে ২৫ রান।

ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গে লিটন

বিশ্বকাপের প্রথম ছয় ম্যাচে তামিমের সঙ্গে ওপেন করেছেন সৌম্য সরকার। কিন্তু আজ তামিমের সঙ্গে ওপেনিয়েং দেখা গেছে লিটনকে।

টসে হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

নিজেদের সপ্তম ম্যাচে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ। আফগানিস্তান অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি জানান টসে জিতলে তিনি ব্যাটিংই বেছে নিতেন।

দুইটি পরিবর্তন নিয়ে আজ মাঠে নামবে বাংলাদেশ। মোসাদ্দেক হোসেন ও সাইফউদ্দিন আজ খেলবেন। বাদ পড়েছেন রুবেল হোসেন ও সাব্বির রহমান। অন্যদিকে আফগান দলও দুটি পরিবর্তন এনেছে। হজরতউল্লাহ জাজাই ও আফতাব আলমের পরিবর্তে খেলবেন সামিউল্লাহ সানওয়ারি ও দৌলত জাদরান।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহমান (উইকেটরক্ষক), লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মাশরাফি মুর্তজা (অধিনায়ক), মেহেদি মিরাজ, মোহাম্মদ সাউফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান।

আফগানিস্তান একাদশ: সামিউল্লাহ সানওয়ানি, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহিদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবী, নাজিবুল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, ইকরাম আলী খিল (উইকেটরক্ষক), দৌলত জাদরান, মুজিব উর রহমান।

আশা বাঁচিয়ে রাখতে আফগানদের সামনে বাংলাদেশ

বিশ্বকাপের ৩১তম ম্যাচে আফগানিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ। সাউদহ্যাম্পটনে দুপুর সাড়ে তিনটায় শেষ চারের আশা বাঁচিয়ে রাখতে মাঠে নামবে টাইগাররা। ৬ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান পয়েন্ট টেবিলে ছয়। অন্যদিকে সমান ম্যাচে কোন জয় না পেয়ে ইতিমধ্যেই টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে আফগানরা।

পরিসংখ্যান:

মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ। শক্তি ও অভিজ্ঞতায়ও এগিয়ে আছে মাশরাফির দল।তবে গত ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে আফগানদের লড়াই ভাবাচ্ছে কিছুটা। বিশ্বকাপে এখন অবধি কোন ম্যাচে মুখোমুখি হয়নি দল দুটি।

ওয়ানডেতে:

ম্যাচ: ৭

বাংলাদেশ জয়ী: ৪

আফগানিস্তান জয়ী: ৩



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন