Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ২৪ জুলাই ২০১৯, ০৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ভারতে মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ১০:৫৬ এএম

ভারতের ঝাড়খণ্ডে এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যা করার দায়ে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একদল ব্যক্তির হাতে নির্যাতিত হওয়ার কয়েকদিন পর মারা যান ২৪ বছর বয়সী তাবরেজ আনসারী নামের ওই যুবক।

তাবরেজ মোটরসাইকেল চুরি করেছে এমন অভিযোগ তুলে তার ওপর নির্যাতন চালানো হয়। মুসলিম এই যুবককে নির্যাতনের একটি ভিডিও অনলাইনে প্রকাশ পেলে তা ব্যাপক আলোচনার জন্ম দেয়।

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, তাবরেজকে হিন্দু দেবতাদের নাম নিতে বাধ্য করা হচ্ছে এবং তিনি জীবন ভিক্ষা চাচ্ছেন। তাবরেজের পরিবার অভিযোগ করে বলেছে, আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ার পরও পুলিশ তাকে যথাযথ চিকিৎসা দেয়নি।

তাবরেজের স্ত্রী শাহিস্তা পারভিন বিবিসিকে জানিয়েছেন, তার স্বামীকে সারারাত একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখা হয় এবং পরদিন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পুলিশ তাকে চুরির অভিযোগে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের চারদিন পর তাকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পারভিন বলেন, হিন্দু দেবতাদের প্রশংসা করতে অস্বীকৃতি জানানোর পরই তার ওপর নির্যাতন করা শুরু হয়।

এদিকে ঝাড়খণ্ডের পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছে। প্রসঙ্গত, গত কয়েক বছরে ঝাড়খণ্ডে বেশ কয়েকটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।



 

Show all comments
  • Amir ২৫ জুন, ২০১৯, ১২:০১ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের চেয়ে ভারত তথাকথিত শিক্ষিতের হার বেশি বলে শোনা যায়, পেটে ক্ষুধা নিয়ে শ্রেনীকক্ষে মনযোগ দেওয়া যায় না অতএব প্রকৃত শিক্ষা অধরাই থেকে যায়- যার প্র কৃষ্ট উদাহরন ভারত!
    Total Reply(0) Reply
  • Milon Rozario ২৫ জুন, ২০১৯, ১:৪০ পিএম says : 0
    সততা, ন্যায্যতা বলতে একটা ব্যাপার আছে। ঐ দেশে সে সংখ্যালঘু বলেই তাকে বিনা দোষে নির্যাতন/ হত্যা যদি করে তবে আর কিসের সভ্য দেশ। দ্রূত বিচার করা হোক
    Total Reply(0) Reply
  • kuli ২৫ জুন, ২০১৯, ৮:৩৬ পিএম says : 0
    মুসলিম দেশ গুলাতে হিন্দুরা এরকম নির্যাতিত হইনা কেন।সব মুসলিম দেশ মিলে হিন্দু গুলারে পিটান সুরু করলে তখন কি হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ