Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ সফর ১৪৪১ হিজরী

খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারে মানবসম্পদ উন্নয়নের ওপর সেমিনার

নাছিম উল আলম | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ৭:১২ পিএম

খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার আয়োজিত ‘মানব সম্পদ উন্নয়নে কারিগরি শিক্ষা ও শিল্প প্রতিষ্ঠান সমূহের ভূমিকা’ শীর্ষক এক ‘জব সেমিনার’ অনুষ্ঠিত হয়েছে মঙ্গলবার। সেমিনারে সামাজিক দায়বদ্ধতায় অনগ্রসর খুলনা অঞ্চলের বিভিন্ন স্তরের শিক্ষিত বেকার ও সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের বিনামুল্যে কারিগরি এবং বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দিয়ে মানব সম্পদে রূপান্তরিত করা খুলনা শিপইয়ার্ডের লক্ষ্য বলে জানান হয়।
সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা শিপইয়ার্ড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কমডোর আনিছুর রহমান মোল্লা, (এল), এনইউপি, পিএসসিÑবিএন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন- খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়-কুয়েট’এর ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সুব্রত তলাপাত্র । খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের প্রতিষ্ঠান প্রধান ক্যাপ্টেন এম শহীদুল্লাহ আল ফারুক, (ই), পিএসসিÑবিএন’এর সভাপতিত্বে এ সেমিনারে শিপইয়ার্ড টিটিসি’র উপ-পরিচালক মোঃ কামরুজ্জামান-এর সঞ্চালনায় জব সেমিনারে টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের পরিচালক প্রকৌশলী শেখ মাহমুদ হাসান এবং খুলনা অঞ্চলের স্থানীয় প্রশাসন, সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রায় ১৫০ জন মালিক/ প্রতিনিধি অংশগ্রহণ করেন।
২০১০-এর ১৩ ডিসেম্বর বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে ছয় মাস মেয়াদি বেসিক ট্রেড কোর্স পরিচালনার জন্য খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার ৮টি ট্রেডের অনুমোদন লাভ করে। ২০১১ সাল থেকে শিপইয়ার্ডের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় স্বল্প বেতনে ৮টি ট্রেডের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু করার পর ৩টি ব্যাচের অভাবনীয় সাফল্য লাভ করে। ফলে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের অধীন বিশ্ব ব্যাংকের আর্থিক সহযোগীতার ‘স্কীল এন্ড ট্রেনিং এনহ্যান্সমেন্ট প্রজেক্ট’ এর কার্যক্রমে ২০১২-এর ১জুলাই থেকে খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার অন্তর্ভূক্ত হয়। খুলনা শিপইয়ার্ড সামাজিক দায়বদ্ধতায় অনগ্রসর খুলনা অঞ্চলের বিভিন্ন স্তরের শিক্ষিত বেকার ও সুবিধা বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের বিনামুল্যে কারিগরি এবং বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ দিয়ে মানব সম্পদে রূপান্তরিত করছে। দক্ষতার মাধ্যমে চাকুরীর সুযোগ বৃদ্ধি এবং আতœ কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করাই প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্য বলেও সিমনারে জানান হয়।
বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর পরিচালনাধীন খুলনা শিপইয়ার্ড দেশের প্রখ্যাত সরকারি শিপইয়ার্ড হওয়ায়, এর বিভিন্ন শপ/ শাখায় অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ও মেশিনারীতে যথেষ্ঠ সমৃদ্ধ। এ টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টারের প্রাক্টিক্যাল ও থিওরিটিক্যাল সংশ্লিষ্ট শপগুলোতে দক্ষ ও অভিজ্ঞ শিক্ষক দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।
যেহেতু টেকনিক্যাল কোর্সসমূহ খুলনা শিপইয়ার্ড ও বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হচ্ছে, সেহেতু গুনগতমান বজায় রেখেই প্রশিক্ষণার্থীদের উন্নতমানের ব্যবহারিক ও তাত্ত্বিক প্রশিক্ষণ প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে। ফলে দক্ষিণÑপশ্চিমাঞ্চলে বসবাসরত বিভিন্ন নি¤œÑমধ্যবিত্ত শ্রেণির লোকজন কারিগরি প্রশিক্ষণ লাভের সুযোগ পেয়েছে। এ ট্রেনিং সেন্টার থেকে ১৬টি ব্যাচের পাশকৃত ছাত্রের মধ্যে মোট ১ হাজার ৪১৯ জন খুলনা শিপইয়ার্ড সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে চাকুরী পেয়ে অত্যন্ত সুনামের সাথে কাজ করে যাচ্ছে বলে সেমিনারে জানান হয়। খুলনা শিপইয়ার্ড টেকনিক্যাল টেনিং সেন্টার দেশে জাহাজ নির্মান শিল্পে দক্ষ মানব সম্পদের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বিদেশে প্রেরণের উপযোগী টেকনেশিয়ান তৈরীতে ফলপ্রসূ অবদান রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যাক্ত করেন সেমিনারে অংশগ্রহনকারীগন।
মঙ্গলবারের এ সিমনারে খুলনা চেম্বার-এর পরিচালক মোঃ মোশাররফ হোসেন, রকি ডইয়ার্ড-এর এমডি খুরশীদ আলম কাগজী, ইষ্টার্ন জুট মিল-এর মহা ব্যাবস্থাপক ড. জুলফিকার, আমাম সী ফুড-এর এমডি এস হুমায়ূন কবির, খুলনা শিপইয়ার্ডের জিএম ক্যাপ্টেন এম আব্দুল আলীম, (এস), পিএসসিÑবিএন, ক্যাপ্টেন এস সিরাজ, (জি), পিএসসিÑবিএন ও ক্যাপ্টেন এম এনায়েত কবির, (ই), পিএসসিÑবিএন উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সেমিনার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ