Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

আলোচনায় নারাজ ইরান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনিসহ ইরানের শীর্ষ সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নতুন করে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘটনাকে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি ওয়াশিংটনের অবজ্ঞার প্রমাণ বলে অভিহিত করেছে তেহরান। জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভানচি সোমবার নিউ ইয়র্কে এ বিশ্বসংস্থার সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র ‘অর্থনৈতিক যুদ্ধ’ বন্ধ না করলে ইরান তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবে না। নিষেধাজ্ঞার প্রতিক্রিয়ায় জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি মাজিদ তাখতে রাভানচি বলেন, আন্তর্জাতিক আইন কিংবা বিশ্বজনমতের প্রতি আমেরিকার যে বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধা নেই সেকথা আজকের নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে আরেকবার প্রমাণিত হলো।

ট্রাম্প ইরানবিরোধী নিষেধাজ্ঞা ঘোষণা করার কিছুক্ষণ পর মার্কিন অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মানুচিন এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ওয়াশিংটন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির দফতরের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। সেইসঙ্গে ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র আট শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাকেও নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হয়েছে। ইরান আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসলে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে। তবে মাজিদ তাখতে রাভানচি বলেছেন, চাপ, হুমকি ও নিষেধাজ্ঞার মুখে ইরান কখনও আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসবে না। জাতিসংঘে নিযুক্ত ইরানের রাষ্ট্রদূত বলেন, যুক্তরাষ্ট্রকে আগে তেহরান বিরোধী অর্থনৈতিক যুদ্ধ ও অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদ বন্ধ করতে হবে। আইআরআই।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন