Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

উড়ন্ত নিউজিল্যান্ডের সামনে আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তান

জাহেদ খোকন | প্রকাশের সময় : ২৫ জুন, ২০১৯, ৯:৪৯ পিএম | আপডেট : ১০:১৫ পিএম, ২৫ জুন, ২০১৯

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে বুধবার উড়ন্ত নিউজিল্যান্ডের সমানে পড়ছে আনপ্রেডিক্টেবল পাকিস্তান। এজবাস্টনে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় শুরু হবে ইংল্যান্ড-ওয়েলস বিশ্বকাপের ৩৩তম ম্যাচটি।

ছয় ম্যাচের পাঁচটিতে জয় ও ভারতের বিপক্ষে বৃষ্টির কল্যাণে ড্র পেয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল প্রায় নিশ্চিত করেছে নিউজিল্যান্ড। তবে আরেকটি জয় পেলে নিশ্চিন্ত হবে তারা। পয়েন্ট টেবিলে এখন পর্যন্ত কিউইদের অবস্থান সবার উপরে।

অন্যদিকে পাকিস্তান ছয় ম্যাচের মধ্যে দু’টি জয় পেলেও হেরেছে তিনটিতে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়া ম্যাচের এক পয়েন্ট সহ তাদের ঝুলিতে এখন ৫ পয়েন্ট। তালিকার সপ্তমস্থানে রয়েছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপের শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখতে হলে বাকি তিন ম্যাচেই জিততে হবে সরফরাজ বাহিনীকে।

এবারের বিশ্বকাপে হট ফেভারিট নিউজিল্যান্ড। শিরোপার অন্যতম দাবীদার তারা। এখন পর্যন্ত অপরাজিত রয়েছে কেন উইলিয়ামসন বাহিনী। জয়ের ধারাবাহিকতায় থাকলেও ধারণা করা হচ্ছে পাকিস্তানকে হালকাভাবে নিচ্ছেনা তারা। কারণ ক্রিকেট অনিশ্চিয়তার খেলা। এক ম্যাচের ফেভারিটরা আরেক ম্যাচে এসে হোঁচট খায়। তাই বলা কঠিন পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড ম্যাচে কে জিতবে? বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার সময় যতই ঘনিয়ে আসছে দলগুলো ততই ব্যস্ত হয়ে পড়ছে কার আগে কে সেমিফাইনালে পথ পাড়ি দেবে। তাই আজ এজবাস্টনের দর্শকরা হাড্ডাহাড্ডি এক লড়াইয়ের আশা করতেই পারেন।

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সব বিভাগেই সমান দক্ষতা দেখিয়েছে নিউজিল্যান্ড। খেলা ছয় ম্যাচে ভুলত্রুটি তারাও করেছে, তবে যৎসামান্য। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন নিজেই রয়েছেন দারুন ফর্মে। ঠিক তেমনি আছেন তাদের আরেক বিশ্বস্ত সৈনিক রস টেইলর। কলিন দি‘গ্রন্দহম একদিকে প্রয়োজনের সময় রান করছেন, অন্যদিকে বেশ আঁটসাঁট বোলিং করে পেসারদের কাজ সহজ করে দিচ্ছেন। বোলিংয়ে কিউইদের প্রধান অস্ত্রই হলেন পেসার লোকি ফর্গুসন। বিশ্বকাপের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের বুকেও ভয় ধরিয়ে দিয়েছে তার বোলিং। সুইংয়ের ওপর অসাধারণ নিয়ন্ত্রণের জন্য নজর কেড়েছেন ট্রেন্ট বোল্টও। অন্য দুই পেসার ম্যাট হেনরি আর জিমি নিশামও নিয়মিত উইকেট পাচ্ছেন। বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর আগে শোনা গেছিল এবার ম্যাচের ভাগ্য গড়বেন স্পিনাররা। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের সাফল্য প্রমাণ করে দিয়েছে যে ভাল পেস বোলিংয়ের আজো কোনো বিকল্প নেই।

পাকিস্তান সব সময়ই আনপ্রেডিক্টেবল। অতীতে দেখা গেছে ধারাবাহিক ব্যর্থতার পর এমন সব ম্যাচে তারা ঘুরে দাঁড়িয়েছে যা বিশ্ব ক্রিকেটপ্রেমীরা আজীবন মনে রেখেছেন। এই যেমন এবারের বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে পাকিস্তান তাদের মিশন শুরু করে। পরের ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী ও বিশ্বকাপের হট ফেভারিটের তকমা পাওয়া স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ১৪ রানে হারিয়ে সবাইকে চমকে দেয় পাকিস্তান। সর্বশেষ ম্যাচে তারা দারুণ খেলে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৪৯ রানে হারিয়ে সেমিতে খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে। বোলিংয়ে পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আমির রয়েছেন দারুণ ফর্মে। ইতোমধ্যে ১৫ উইকেট শিকার করে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীদের তালিকায় সেরা তিনে আছে তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে ব্যাটিংয়ে দারুণ করেছেন হারিস সোহেল, বাবর আজম এবং দুই ওপেনার ইমাম-উল হক ও ফখর জামান। হারিস ৮৯, বাবর ৬৯ এবং ইমাম ও ফখর দু’জনেই ৪৪ রানের ইনিংস উপহার দিয়ে দলকে ৩০৮ রানের বড় স্কোর এনে দেন। এখন তাদের দরকার ধারাবাহিকতার। ব্যাট হাতে তারা বুধবার কিউদের বিপক্ষে জ্বলে উঠলে বলা যায়না ম্যাচের ভাগ্যে কি ঘটবে। যদিও টুর্নামেন্টে ইতোমধ্যে তিন ম্যাচ হেরে নিজেদের অনিশ্চয়তার মধ্যে ঠেলে দিয়েছেন তারা। তবে এটা সবাই মানেন বিশ্¦কাপে কোনও দলের পক্ষে যদি এই অবস্থা থেকেও ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব হয়, সেটা সরফরাজ আহমেদের পাকিস্তান।

এই ম্যাচে চোখ থাকবে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও পাকিস্তানী বোলার মোহাম্মদ আমিরের উপর।

উইলিয়ামসন এমন এক অধিনায়ক যেন জাদুবলে যাবতীয় চাপ তিনি শুষে নিতে পারেন। জাত ব্যাটসম্যান হওয়ার পাশাপাশি তার আছে এমন এক শান্ত আত্মবিশ্বাস যা বড় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে এগিয়ে রাখে। সর্বশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এটা আবারো প্রমাণ হলো।

আর পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আমিরের কথা কী বলা যায়? দশ বছর আগে ১৭ বছর বয়সের আমির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেই সমর্থকদের মনে যে আশা জাগিয়েছিলেন, এখনো তা পূরণ করে চলেছেন। এই বিশ্বকাপে তিনি নতুন করে জ্বলে উঠেছেন। তাই উইলিয়ামসনের সঙ্গে তার লড়াই দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন দর্শকরা।

ম্যাচের আগে আবহাওয়ার খবরে বলা হয়েছে বুধবার বৃষ্টি না হওয়ারই সম্ভাবনা বেশী। বলা মোটামুটি নির্বিঘ্নেই কাটবে দিনটি। আকাশে অল্প মেঘ আর হালকা বাতাস বইতে পারে। এমন চমৎকার আবহাওয়া বোল্ট আর আমিরের সুইং বোলিংকে কতটা সাহায্য করে সেটা দেখার আছেন বিশ্বের কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমী।

স্কোয়াড:

নিউজিল্যান্ড: কেন উইলিয়মসন (অধিনায়ক), টিম সাউদি (সহ-অধিনায়ক), টম ব্লান্ডেল (উইকেটরক্ষক), টম লেথম, ট্্েরন্ট বোল্ট, কলিন ডি গ্রান্ডহোম, লোকি ফার্গুসন, মার্টিন গাপ্টিল, ম্যাট হেনরি, কলিন মানরো, জিমি নিশাম, হেনরি নিকলস, মিচেল স্যান্টনার, ইশ সোধি ও রস টেইলর।

পাকিস্তান: সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক, উইকেটরক্ষক), শোয়েব মালিক (সহ-অধিনায়ক), ফখর জমান, ইমাম-উল-হক, আসিফ আলি, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, শাদাব খান, ইমাদ ওয়সিম, হাসান আলি, মোহাম্মদ আমির, শাহিন আফ্রিদি, ওয়াহাব রিয়াজ, মোহাম্মদ হাসনাইন ও হারিস সোহেল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ