Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ভারত জয়ের স্বপ্ন নিয়ে ফ্রান্সে সাকিব

টাইগার শিবিরে ছুটির আমেজ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

প্রাথমিক পর্বের শেষ তিনটি ম্যাচ বাংলাদেশের জন্য একরকম ছিল নক আউট ম্যাচ। তার প্রথমটি জেতা হয়েছে। গতপরশু সাউদাম্পটনে আফগানিস্তানকে ৬২ রানে হারিয়ে বাংলাদেশ উঠে এসেছে পয়েন্ট তালিকার পাঁচে। ম্যাচে ব্যাটে-বলে উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব আল হাসান। তার রেকর্ডে রাঙা এক জয়ে রঙিন হয়েছে বাংলাদেশের সেমির স্বপ্নও। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার তাকিয়ে পরের ম্যাচের দিকে। আগামী ২ জুলাই, বার্মিংহামে। যেখানে অপেক্ষায় টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট ভারত।

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের পরের ম্যাচের আগে প্রায় সপ্তাহখানেকের বিরতি। টানা ম্যাচ খেলা ও ভ্রমণের ধকল কাটিয়ে ওঠার সুযোগ দিতে তাই ক্রিকেটারদের আগামী ২৯ জুন পর্যন্ত ছুটি দেওয়া হয়েছে। এই ছুটিতে পরিবারসমেত ফ্রান্সে গেছেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ফ্রান্স হয়ে সুইজারল্যান্ডে যাওয়ার কথা রয়েছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের। তবে যাবার আগে শুনিয়ে গেলেন আশার কথাও।
৭ ম্যাচে পয়েন্ট ৭ নিয়ে তালিকার পাঁচে বাংলাদেশ। পরের দুই ম্যাচের একটি জিতলেও অন্যান্য ম্যাচের সমীকরণ মিলিয়ে সেমি-ফাইনালে খেলা সম্ভব। তবে দুটি ম্যাচ জিতলে সম্ভাবনা খানিকটা উজ্জ্বল হবে। সাকিব তাকিয়ে সেই সম্ভাবনার দিকে। তবে বাংলাদেশ এগোতে চায় প্রতিটি ম্যাচ ধরে। ব্যাটে-বলে টুর্নামেন্টের সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দলগুলির একটি ভারত। তবে নিজেদের সেরাটা দিলে জয় খুবই সম্ভব, বিশ্বাস সাকিবের, ‘ভারতের বিপক্ষে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি ম্যাচ আসছে। তারা শীর্ষ দলগুলির একটি, তাদের লক্ষ্য শিরোপা জয়। আমাদের কাজটি সহজ হবে না। তবে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব আমরা। অভিজ্ঞতা সাহায্য করে বটে, তবে অভিজ্ঞতাই শেষ কথা নয়। ভারতকে হারাতে হলে নিজেদের সেরাটা খেলতে হবে আমাদের। তাদের এমন সব ক্রিকেটার আছেন, যারা একাই ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে পারেন। যেটা বললাম, নিজেদের সেরাটা দিতে হবে আমাদের এবং আমাদের সামর্থ্য আছে জয়ের।’

ছুটি কাজে লাগাতে যার যার মতো পরিকল্পনা করছেন দলের বাকি সদস্যরাও। টাইগার দলনেতা মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবাল, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ মিঠুন আর আবু জায়েদ রাহী এখনই দলের বাকিদের সঙ্গে বার্মিংহামে যাচ্ছেন না। বাংলাদেশের পরের ম্যাচ সেখানেই। এই ছুটির মাঝে বাংলাদেশ দলের কোনো অফিসিয়াল অনুশীলন সেশন নেই। তার আগে ক্রিকেটাররা নিজেদের মতো করে ঐচ্ছিক অনুশীলন সারবেন। এরপর আগামী ৩০ জুন শুরু হবে ভারত ম্যাচের জন্য আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি।

বাংলাদেশের হাতে থাকা দুটি ম্যাচই এখন নক-আউটে রূপ নিয়েছে। বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সেরা ফল করার কোনো বিকল্প নেই। আগামী ২ জুলাই বার্মিংহামের এজবাস্টনে বিরাট কোহলিদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রæপ পর্বের শেষ ম্যাচ ৫ জুলাই



 

Show all comments
  • Mojibur Rohoman ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৪৯ এএম says : 0
    ইনশাআল্লাহ BANGLADESH জিতবে
    Total Reply(0) Reply
  • আন্দালিব ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫১ এএম says : 0
    ভারত আফগানিস্তানকে হালকাভাবে নিয়েছিল বলেই ম্যাচটা কঠিন করে জিতেছিল কিন্তু বাংলাদেশ জীবন মরন ম্যাচ মনে করেই আফগানদের দুমড়ে মুচড়ে জিতেছে। কাজেই বাংলাদেশকে সতর্ক হতে হবে। তবে এটাও সত্য ব্যাটিং বোলিং ও ফিল্ডিংয়ে ভুল না করে দিনটা যদি বাংলাদেশের হয় তবে ভারতকে হারানো কঠিন কিছু না।
    Total Reply(0) Reply
  • msIqbal ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    ভারতকে কি আমরা প্রথমবার হারাতে চাইছি!!
    Total Reply(0) Reply
  • এফ ফয়সল ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    গুড লাক সাকিব এবং বাকি সবাই।
    Total Reply(0) Reply
  • Sukanta ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    অবশ্যই সম্ভব। চাই প্রিয় বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলুক!
    Total Reply(0) Reply
  • MUHAMMOD FUAD ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫২ এএম says : 0
    এবার তাহলে বলতে পারি শুধু খেলার দিকে মনোযোগ দিয়ে সবার মন জয় করেছে সাকিব আল হাসান।
    Total Reply(0) Reply
  • Satya Haque ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫৩ এএম says : 0
    বাংলাদেশের পক্ষে সব দলকে হারানো সম্ভব। এই আত্মবিশ্বাস থাকতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫৩ এএম says : 0
    সাকিব মোটেও বলেননি যে ইংল্যান্ডের তিন ম্যাচের তিনটায় জিততে হবে | কারণ ব্যাপারটা তা মোটেও নয় | ইংল্যান্ডের দুটো জিতলেই পয়েন্ট হবে ১২ আর বাংলাদেশ দুটো জিতলে হবে ১১ পয়েন্ট | শাকিব ভুলভাল কথা বলেন না | ভালো করে গতকালের ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলন শুনে দেখুন
    Total Reply(0) Reply
  • Fahim Forhad ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫৪ এএম says : 0
    @ইন্ডিয়া আফগানদের বিরুদ্ধে জিতেছে হারতে হারতে শেষ ওভারে তাও 11 রানে...আর আমরা একই দলটির বিপক্ষে জিতেছি একতরপা ভাবে দাপুটের সঙ্গে বিশাল ব্যবধানে 62 রানে...সুতারাং ইন্ডিয়া থেকে আমরাই শ্রেয়তর দল....ওরে সাকিব এইভাবে নয় এই রকমই বল ভারতকে আমরা হালকা ভাবে নিচ্ছি না,,অবশ্যই জেতা সম্ভব দুই দলেরিই তবে বাংলাদেশ বনাম (ভারত,আইসিসি,আম্পিয়ার,ভাষ্যকার,সম্প্রচারকারী) এদের মধ্যে বাংলাদেশই ফেবারিট.........
    Total Reply(0) Reply
  • Ahmed Musa ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫৪ এএম says : 0
    Everything is quiet right. But have you know that Shakib Al Hasan help BD to lose many games against India in the past years. Sometimes failing to score any, sometimes scoring too slow when other players were too comfortable. I think He is going so well, but need to get Tamim Iqbal Banggggg against India and ICC.
    Total Reply(0) Reply
  • শাদনান মাহমুদ নির্ঝর ২৬ জুন, ২০১৯, ১:৫৪ এএম says : 0
    ভারত যে অন্য গ্রহের ক্রিকেট খেলে তা তো না, অভিজ্ঞতায় বরং আমরা এগিয়ে। ওদের কোহলি থাকলে আমাদের সাকিব আছে, ওদের বুমরাহ থাকলে আমাদের মুস্তাফিজ আছে, ওদের কার্তিক থাকলে আমাদের মুশফিক আছে। একদম সমানে সমান। বাংলাদেশ যদি বিশ্বাস করে "আমরা পারবই" তাহলে আমরা আসলেই পারব। বেস্ট অফ লাক টিম টাইগার...
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন