Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

যক্ষা নিয়ন্ত্রণে মনিটরিং সভা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০১৯, ১২:১৩ এএম

কুসংস্কার যক্ষা রোগ নিয়ন্ত্রণে প্রধান অন্তরায়। যক্ষা রোগ সম্পর্কে সচেতনতা এ কুসংস্কার দূর করে যক্ষা রোগ হ্রাসে অবদান রাখবে। র্তমান সরকার স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও সামাজিক নিরাপত্তা খাতে ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। এ কার্যক্রমের আওতায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বিনামূল্যে যক্ষা রোগ নির্ণয় ও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে।

গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) সভাকক্ষে জাতীয় যক্ষা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি ও ডিএসসিসি’র যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ষাণ¥াসিক মনিটরিং সভায় ডিএসসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান এ কথা বলেন।

ডিএসসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. মোহাম্মদ শরিফ আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আরবান প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সার্ভিস ডেলিভারি প্রজেক্টের পরিচালক আবদুল হাকিম মজুমদার, জাতীয় যক্ষা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির প্রতিনিধি, বিভাগীয় যক্ষা বিশেষজ্ঞ ডা. আহমদ পারভেজ জাবীন, অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় যক্ষা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির টিবি ফোকাল পারসন ডা. সায়েদুল বাসার।

আবদুল হাকিম মজুমদার বলেন, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিতগণ যক্ষা রোগ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারেন। তিনি বলেন, আরবান প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সার্ভিস ডেলিভারি প্রজেক্টের ক্লিনিকসমূহে যক্ষা চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম সম্প্রসারণের মাধ্যমে যক্ষা সেবাকে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া সম্ভব।

ডা. মোহাম্মদ শরিফ আহমদ বলেন, জাতীয় যক্ষা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের সমন্বিত কার্যক্রম যক্ষা হ্রাস করে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে অবদান রাখবে, যা ২০৩৫ সালে এন্ড টিবি কৌশলের আওতায় শূন্য যক্ষায় উপনীত হতে সহায়তা করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ