Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

ভারতের অন্তরাত্মাকে পিষে মারা হয়েছিল- সংসদে প্রধানমন্ত্রী মোদি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০১৯, ৩:৫০ পিএম

কংগ্রেসের উপর বীতশ্রদ্ধ হয়েই ২০১৪ সালে মানুষ বিজেপিকে নির্বাচন করেছিল, সংসদে দাঁড়িয়ে এমনটাই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রেসিডেন্টের বক্তৃতা পর লোকসভায় প্রশ্নোত্তর পর্বে মোদি বলেন, ২০১৪ সালে যখন আমরা প্রথম ক্ষমতায় এলাম, তখন গোটা দেশকে বলতে শোনা গিয়েছিল যে, যাক এদের হাত থেকে তো বাঁচলাম' অর্থাৎ আমরা দেশের ক্ষমতায় এসে যেন কংগ্রেসের হাত থেকে বাঁচালাম। মোদি সংসদে বক্তব্য রাখতে উঠে সরাসরি কংগ্রেসকে নিশানা করে বলেন যে এই দল অত্যন্ত উদ্ধত হয়ে গেছে । তারা এত উপরে উঠে গিয়েছে যে, তাদের মাটিতে পা পড়ে না। তারা এত উপরে উঠেছে যে, শিকড় থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে, রাহুল গান্ধির দলকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করে বলেন প্রধানমন্ত্রী । গত ৫ বছরে মোদি সরকারের কাজই তাঁদের ফের ক্ষমতায় এনেছে। তাঁদের ট্রাক রেকর্ডের জোরেই এত মানুষ তাঁদের সমর্থন জুগিয়েছেন, ফের ক্ষমতায় এনেছেন, দাবি করেন মোদি । প্রথমবারের থেকে আরও বেশি সমর্থন নিয়ে দ্বিতীয়বার বিজেপিক্ষমতায় এসেছে, ২০১৪-র থেকেও বড় ব্যবধানে জিতেছে তারা । ২০১৯-এ বিজেপি একাই ৩০০-র বেশি আসন পেয়েছে, যেখানে ২০১৪-তে তারা পেয়েছিল ২৮২ টি আসন ।
তবে গত ৫ বছরে ক্ষমতায় থেকে কাজ করা খুব একটা সহজ ছিল না বলে স্বীকার করে নরেন্দ্র মোদি বলেন, রীতিমতো অগ্নিপরীক্ষা দেওয়ার পরেই এই বিপুল জনাদেশ তাঁদের পক্ষে এসেছে ।
বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক কাজের কথা উল্লেখ করে মোদি বলেন, সাধারণ মানুষ মনে করেছেন কেন সরকার তাঁদের ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, গ্যাস পৌঁছে দেওয়ার জন্যে এত চেষ্টা চালাচ্ছে, কিন্তু সরকার সেই বিষয়গুলি নিয়ে দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করে গেছে, প্রকল্পগুলির সুবিধা মানুষের কাছে পোঁছে দেওয়ার জন্যে প্রচেষ্টা চালিয়েছে, এই যাত্রাটা অনেক দীর্ঘ ছিল বলেও দাবি করেন মোদি।
একটা নির্বাচনকে শুধু কে জিতল আর কে হারল এভাবে দেখা আমার নীতি বহির্ভূত, সংসদে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন মোদি। বর্তমান সরকার চালাতে বিরোধীদের কাছ থেকে পূর্ণ সহযোগিতার আবেদনও করেন তিনি।
সংসদে মোদির বক্তব্যে উঠে আসে জরুরি অবস্থার প্রসঙ্গও। প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, ২৫ জুন রাতে ভারতের অন্তরাত্মাকে পিষে মেরে ফেলা হয়েছিল প্রসঙ্গত ১৯৭৫ সালের ২৫ জুন দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধি। ওই জরুরি অবস্থা চলেছিল ২১ মাস, ১৯৭৫-এর ২১ মার্চ থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত ।
লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ সালে সাম্প্রতিকতম খবর, লাইভ আপডেটস এবং নির্বাচনের সময়সূচি পান অনলাইন থেকে। ২০১৯-এর ভারতের সাধারণ লোকসভা নির্বাচনের প্রতিটি আপডেট পাওয়ার জন্য আমাদের ফেইসবুক ও টুইটারের দিকেও নজর রেখেছেন। লোকসভা নির্বাচন ২০১৯-এর প্রতিটা (৫৪৩)আসনের আপডেট জেনেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভারত


আরও
আরও পড়ুন