Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯, ০৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

বাড়ির কোন জায়গায় সবচেয়ে বেশি জীবাণু

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০১৯, ৬:৩৮ পিএম

বাড়িঘর পরিচ্ছন্ন ও স্বাস্থ্যসম্মত রাখতে গিয়ে অনেকেই বেশি নজর দেন সেই জায়গাগুলোর দিকে - যেগুলো দেখতে 'ময়লা' দেখায়। পরিষ্কার করার সময় সেগুলোর ওপরই আগে হাত দেন তারা।

কিন্তু আসলে ব্যাপারটা তা নয়। পরিষ্কার করতে হবে বাড়ির সেই অংশগুলো - যেখান থেকে ক্ষতিকর মাইক্রোব বা অনুজীব ছড়ায় - তা যদি এমনিতে দেখতে 'পরিষ্কার' দেখায় তা হলেও ।

এক জরিপে দেখা গেছে: হাত ধোয়া, কাপড়চোপড় এবং বাড়ির বিভিন্ন অংশ ঠিক সময়ে পরিষ্কার করা - এগুলোই বাড়িতে স্বাস্থ্যকর পরিবেশ রক্ষার জন্য আসল দরকারি জিনিস।
কিন্তু প্রতি চারজনের একজনই এগুলো গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন না।


বাড়িতে স্বাস্থ্যকর পরিবেশন রাখতে কি করা উচিত?
প্রথমে আপনার এই তালিকাটি দেখতে হবে যাতে কোন্‌ কাজগুলোর সময় তা থেকে স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হতে পারে - তা বলা হয়েছে।

১. খাবার রান্না এবং তা হাত দিয়ে নাড়াচাড়া করা।
২. হাত দিয়ে খাবার খাওয়া।
৩. টয়লেট ব্যবহারের পর।
৪. আপনার আশপাশে কেউ যখন হাঁচি-কাশি দিচ্ছে বা নাক ঝাড়ছে।
৫. ময়লা কাপড়ে হাত দেয়া এবং তা ধোয়া।
৬. পোষাপ্রাণীর যত্ন নেয়া।
৭. ময়লা আবর্জনা হাত দিয়ে ধরা এবং তা ফেলার জন্য নিয়ে যাওয়া।
৮. পরিবারের কারো কোন রোগসংক্রমণ হলে তার যত্ন নেয়া।

বিশেষ করে এর মধ্যে ১, ৩, ৪, ৬ এবং ৮ নম্বরের ক্ষেত্রে পরিষ্কার করে হাত ধোয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
রান্না ঘরের মধ্যে যেখানে আপনি কাঁচা মাংস কাটছেন, মোছামুছির জন্য যে কাপড় বা স্ক্রাবার ব্যবহার করছেন, তার পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অনেক সময় ঘরের মেঝে বা আসবাবপত্র ময়লা দেখায়, কিন্তু এগুলোতে যে মাইক্রোব বা অণুজীব থাকে তা তেমন কোন স্বাস্থ্য-ঝুঁকির কারণ নয়।

কী ভাবে ব্যাকটেরিয়া দূর করবেন?
জিনিসপত্র কাটাকুটির বোর্ড বা থালা-বাটি ধোয়ার জন্য ব্যবহার করুন সাবান-মেশানো হাত-সওয়া গরম পানি।
তবে ব্যাকটেরিয়া স্থায়ীভাবে মারতে হলে আপনাকে ব্যবহার করতে হবে ৭০ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের বেশি গরম পানি, এবং তা বেশ খানিকটা সময় ধরে ব্যবহার করতে হবে।

পরিষ্কার করার জন্য কি ধরণের সাবান-জাতীয় পদার্থ ব্যবহার করবেন?
এগুলো হয় তিন ধরণের। একটা হলো ডিটারজেন্ট, যা সাবান-জাতীয়। এটা পরিষ্কার করে, তেলজাতীয় ময়লা দূর করে কিন্তু ব্যাকটেরিয়া নিধন করতে পারে না।
আরেকটা হচ্ছে ডিসইনফেকট্যান্ট - যা ব্যাকটেরিয়া মারতে পারে কিন্তু তৈলাক্ত জায়গা্য় এটা ভালো কাজ করে না।
অন্যটি হলো স্যানিটাইজার - এগুলো একই সাথে পরিষ্কার করে এবং জীবাণু নাশ করে।

'পরিষ্কার' আর 'স্বাস্থ্যসম্মত' - দুটো যে আলাদা জিনিস তা অনেকেই বোঝেন না

ব্রিটেনের রয়াল সোসাইটি ফর পাবলিক হেলথ বা আরএসপিএইচ বলছে, ময়লা, জীবাণু, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, এবং স্বাস্থ্য - এই শব্দগুলোর অর্থের যে পার্থক্য আছে তা অনেক লোকই ঠিকমত বোঝেন না।
দুই হাজার লোকের ওপর চালানো এক জরিপের রিপোর্টে বলা হয়, ২৩ শতাংশ লোক মনে করেন যে বাচ্চাদের ক্ষতিকর জীবাণুর সংস্পর্শে আসা দরকার, কারণ তা হলে তাদের রোগ-প্রতিরোধী ক্ষমতা জোরালো হবে।

কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা একটা ক্ষতিকর ধারণা - কারণ এতে শিশুদের দেহে বিপজ্জনক সব সংক্রমণ ঘটে যেতে পারে। তাদের কথা ঘর, টয়লেট, রান্নাঘর - এগুলো শুধু পরিষ্কার নয়, বরং স্বাস্থ্যসম্মত রাখাটাই সংক্রমণ ঠেকানোর কার্যকর উপায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন