Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪১ হিজরী

প্রশ্ন : আমি জানতে চাই, ফরয গোসলের সময় গোসলের পূর্বে ওযুর সময় জামা খুলে ওযু করে গোসল করা যাবে কিনা? বাথরুমে একাকি পরিধেয় কাপড় খুলে গোসল করা ইসলামী শরিয়ত সম্মত হবে কিনা? জানালে উপকৃত হবো।

আমিনুল ইসলাম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৯, ১২:১১ এএম

উত্তর : যে কোনো সময়ই জামা খুলে অজু করা যায়। ফরজ গোসলের আগেও খালি গায়ে অজু করা যায়। এতে কোনো সমস্যা নেই। বাথরুমে একাকী অবস্থায়ও পরিধেয় সব কাপড় খুলে গোসল করা ঠিক না। কেননা এটি নিজের ব্যক্তিত্বের জন্য হানিকর। আল্লাহর ফেরেশতাগণ ও অদৃশ্য জ্বিন জাতি থেকেও লজ্জা করা উচিত। তাছাড়া আল্লাহ তায়ালাও আমাদের লজ্জাশীলতা পছন্দ করেন। একান্ত প্রয়োজনে সব কাপড় খোলা যায়। তবে, পারতপক্ষে এমন না করাই কর্তব্য। যে কোনো উপযোগী পরিবেশেও পূর্ণ বিবস্ত্র না হওয়া, কমপক্ষে একটি চাদর, তোয়ালে বা গামছা দিয়ে আড়াল করে নেওয়া জরুরী। 

সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতাওয়া বিশ্বকোষ।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
inqilabqna@gmail.com



 

Show all comments
  • Lema Akter ২৭ জুন, ২০১৯, ৯:৫০ এএম says : 0
    এই প্রশ্নটার উত্তর দীর্ঘদিন ধরে আমিও খুঁজতেছিলাম। পেয়ে গেলাম.....
    Total Reply(0) Reply
  • Kamal Pasha ২৭ জুন, ২০১৯, ৯:৫২ এএম says : 0
    thanks a lot to The Daily Inqilab
    Total Reply(0) Reply
  • MD Mizan ২৭ জুন, ২০১৯, ৯:৪৪ এএম says : 0
    ইসলামের প্রতিটি বিধানই মানব জাতির জন্য কল্যাণকর
    Total Reply(0) Reply
  • Naim Uddin ২৭ জুন, ২০১৯, ৯:৪৬ এএম says : 0
    প্রশ্নটির যথাযথ উত্তর দেয়ায় আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী হুজুরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি
    Total Reply(0) Reply
  • BulBul ২৭ জুন, ২০১৯, ৯:৪৭ এএম says : 0
    আমাদের প্রত্যেকের উচিত জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ইসলামের বিধান মেনে চলা
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রশ্ন :

৩ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন

প্রশ্ন : সরকার প্রথমে ১০/১২ দিনের জন্য সবকিছু বন্ধ করে দিল। পরে আবার বাড়িয়েছে। শোনা যাচ্ছে, আরও বাড়তে পারে। যে কারণে সবকিছু বন্ধ করে দেওয়া হলো, আমরা কি তা মানছি? কেউ কেউ বলছেন, যদি করোনা বাংলাদেশে মহামারী রূপ ধারণ করতো, তাহলে এতদিনে তা স্পষ্ট হয়ে যেত। এসব বলে বলে তারা কেউ কেউ বলতে চাচ্ছে, হুজুররা শুধু শুধু মসজিদে যাওয়া থেকে মুসল্লীদের বারণ করছে, সরকার অকারণেই সবকিছু বন্ধ করে দিয়েছে। আসলে কি হচ্ছে? কি হতে পারে? আর আমাদের কি করণীয় বলবেন?

উত্তর : বাংলাদেশ এখনো শঙ্কামুক্ত নয়, আল্লাহ না করুন আগামী ২০/২৫ দিন পরেও কোভিড১৯ মহামারী রূপ নিতে পারে। ইতালিতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হবার ৪৫

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ