Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার ১৭ জুলাই ২০১৯, ০২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা পিতা-মাতা আটক

বড়াইগ্রাম (নাটোর) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০১৯, ১২:০৯ এএম

নাটোরের বড়াইগ্রামে গতকাল বুধবার ভোরে মোহাম্মদ হাসান (১২) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। হাসান উপজেলা গোপালপুর ইউনিয়নের মৃধা কচুয়া গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে। শিশুটিকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের ধারণা। এ ঘটনায় নিহতের পিতা আব্দুল হালিম ও মা রিনা বেগমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, আব্দুল হালিম প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে অন্যত্র থাকায় দ্বিতীয় স্ত্রী রিনা বেগম একমাত্র সন্তান হাসানকে নিয়ে মৃধা কচুয়ার বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। মঙ্গলবার রাতে হাসান ও তার মা শোবার ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত তিনটার দিকে রিনা বেগমের ডাক-চিৎকার ও কান্নাকাটিতে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। এ সময় সিঁধ কেটে ঘরে ঢুকে মুখ ঢাকা ৪-৫ জন লোক জোর করে হাসানকে নিয়ে গেছে বলে প্রতিবেশীদের জানান রিনা। পরে খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে বাড়ির অদূরে হাসানের লাশ পাওয়া যায়। তার গলায় একটি ওড়না পেঁচানো এবং আঙ্গুলের চিহ্ন রয়েছে বলে জানা গেছে। সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। একই সঙ্গে হাসানের মা রিনা বেগম কে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সুস্থ হওয়ার পরে পুলিশ স্বামীসহ তাকে আটক করেছে। তবে হাসানের মায়ের তথ্য অনুযায়ী ঘরের পেছনে সিঁধ কাটা থাকলেও সে সিঁধ দিয়ে কোন মানুষ ঘরে ঢোকা সম্ভব নয় বলে পুলিশের দাবী।
এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস জানান, তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। তবে হত্যাকান্ডটি বেশ রহস্যজনক। শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ