Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ০৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী

ফের কর্মচঞ্চল পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র

৩০ ডিসেম্বরের মধ্যেই উৎপাদনে প্রথম ইউনিট

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২৮ জুন, ২০১৯, ১২:০৯ এএম

ফের কর্মচঞ্চল হয়ে উঠেছে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। প্রকল্প এলাকায় শান্ত পরিবেশ বিরাজ করছে। শ্রমিকরা নির্বিঘেœ কাজে রয়েছে। পাওয়ার প্লান্টের ক্ষতিগ্রস্ত যন্ত্রপাতি ও অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ শুরু করেছে চীনা শ্রমিকরা। বাংলাদেশি শ্রমিকদের ১৫ দিনের ছুটি দেয়া হয়েছে। তবে তাদের ছয় হাজার শ্রমিককে সকল বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করা হয়েছে। পায়রা বিদ্যুৎ প্লান্ট এলাকা পুরোদমে সচল হয়ে উঠছে। তবে আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যেই এ প্রকল্পের প্রথম ইউনিট উৎপাদনে যাবে। ইতোমধ্যে ৮০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে বিসিপিসিএল’র প্রকল্প পরিচালক শাহ আব্দুল মাওলা।

গতকাল বুধবার দুপুরে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অভ্যন্তরে মিডিয়া সেন্টারে বিসিপিসিএল’র প্রকল্প পরিচালক শাহ আব্দুল মাওলা গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। তিনি গত ১৮ জুন বিকেলে পাওয়ার বøকের বয়লারে কর্মরত অবস্থায় সেফটি বেল্ট খুলে নিচে পড়ে সাবিন্দ্র দাস নামের এক বাংলাদেশি শ্রমিক নিহতের ঘটনায় সৃষ্ট গুজবকে কেন্দ্র করে অনভিপ্রেত ঘটনার প্রেক্ষিতে বর্তমান সময় পর্যন্ত পাওয়ার প্লান্টের কর্মকান্ড নিয়ে মতবিনিময় করেন।

তিনি জানান, বাংলাদেশি ও চীনা শ্রমিকদের মধ্যে নিজস্ব কালচার নিয়ে কিছু সমস্যা রয়েছে। চীনারা দক্ষ আর বাংলাদেশিরা অদক্ষ। বাংলাদেশিদের দক্ষতার উন্নয়নে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। আহত চীনা শ্রমিকদের ঢাকায় উন্নত চিকিৎসা দেয়ার পরে তারা এখন সুস্থ রয়েছেন। প্লান্ট অভ্যন্তরে অফিসের কম্পিউটার, তথ্য ভান্ডার, হাইড্রোলিক মেশিনের কন্ট্রোল সিস্টেমের যে ক্ষতি হয়েছে তা ঠিক করতে ১০/১৫ দিন সময় লাগবে। এরপরেই পুরোদমে কাজ শুরুর কথাও নিশ্চিত করেন পরিচালক শাহ আব্দুল মাওলা।

এ সময় বিসিপিসিএলের নির্বাহী প্রকৌশলী (পুর) রেজওয়ান ইকবাল খান, নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) জোবায়ের আহম্মেদ, নির্বাহী প্রকৌশলী (তড়িৎ) মো. তারিক নুর, নির্বাহী প্রকৌশলী (যান্ত্রিক) ওয়াং শিয়াং শি, ম্যানেজার (ফ্যাসিলিটি) মো. শহীদ উল্যাহ ভ‚ঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ