Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯, ০৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জাবির শৃঙ্খলা বিধির বিতর্কিত ধারা বাতিল চায় সাংবাদিকরা

জাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৯, ৬:২৩ পিএম

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শৃঙ্খলা অধ্যাদেশে বিতর্কিত ২টি ধারা বাতিলের দাবিতে ভিসি বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে ক্যাম্পাসে কর্মরত সাংবাদিকরা। বৃহস্পতিবার বিকালে ভিসির অনুপস্থিতে তার একান্ত সচিবের কাছে স্বারকলিপি দেন জাবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি প্লাবন তারিক ও সম্পাদক মাহমুদুল হাসান। এসময় আলো উপস্থিত ছিলেন নয়াদিগন্তের জাবেদ ওমর, যুগান্তরের রাহুল এম ইউসুফ, প্রথম আলোর মাইদুল মিঠুন, কালের কন্ঠের শুভ আনোয়ার, ইত্তেফাকের আবির আব্দুল্লাহ, ডেইলী অবজারবারের তারেক আজিজ শ্রাবন প্রমুখ।
স্মারকলিপিতে সাংবাদিকরা উল্লেখ করেন, জাবি ছাত্র-শৃঙ্খলা অধ্যাদেশে সংযোজিত ৫(ঞ) ও ৫(থ) ধারা ক্যাম্পাসের সাধারণ শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের কন্ঠ রোধ করা হয়েছে। এর ফলে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা বাধার সম্মুখিন হবে। একই সাথে ৫(থ) ধারা অনুযায়ী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম দ্বারা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে যে শিক্ষার্থীকে ফাঁসানো ও বিচারের সম্মুখিন করার সুযোগ রয়েছে।
এ বিষয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি প্লাবন তারিক বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একটি মহল নিজেদের দূর্বলতা ও দুর্নীতি ঢাকার জন্য সাধারণ শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের মুখ চেপে ধরতে হীন চক্রান্ত করেছে। তাই বিতর্কিত এই ধারা দুটি বাতিল না করলে অবশ্যই আমরা বৃহৎ কর্মসূচিতে যেতে বাধ্য হবো।’ সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মাহমুদ বলেন, শিক্ষকদের নৈতিকতা কতোটা নিচে নামলে ও স্বৈরাচারী মনোভাব পোষণ করলে ছাত্রদের সাথে আলোচনা ছাড়াই ছাত্র শৃঙ্খলাবিধি লুকোচুরি করে পাশ করতে পারে। তারপরও অধ্যাদেশটি বিশেষ সিন্ডিকেটে পাশ হয়েছে। ফলে এখানেও বিতর্কিত রয়েছে। তাই এই অধ্যাদেশ বাতিল করে পুনরায় ছাত্র বান্ধন ও যুগোপযোগী অধ্যাদেশ প্রণয়নের জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জাবি


আরও
আরও পড়ুন