Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ফের বাণিজ্য আলোচনা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

দুই প্রেসিডেন্টের ঘণ্টা দেড়েকের বৈঠকের পর যুক্তরাষ্ট্র ও চীন নিজেদের বাণিজ্যবিরোধ মেটাতে ফের আলোচনা শুরু করতে রাজি হয়েছে। আলোচনার পথ খোলা রাখতে ওয়াশিংটন চীন থেকে আমদানি করা পণ্যে নতুন করে আর কোনো শুল্কও বসাবে না, জানিয়েছে চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শনিবার জি-২০ সম্মেলনের সাইডলাইনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বৈঠকেই দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য আলোচনা ফের শুরুর সিদ্ধান্ত হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। প্রায় বছরখানেক ধরে চলা এ বিবাদে বেইজিং ও ওয়াশিংটন একে অপরের শতকোটি ডলারের রপ্তানি পণ্যে অতিরিক্ত শুল্ক আরোপ করেছিল। “আমরা আবার আগের পথে ফিরে এসেছি, দেখা যাক কী হয়,” শি-র সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ৮০ মিনিটের বৈঠককে ‘অসাধারণ’ হিসেবেও অভিহিত করেন তিনি। পরে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক দীর্ঘ বিবৃতিতে বৈঠক সম্পর্কে জানায়। বৈঠকে চীন থেকে আমদানি করা পণ্যে যুক্তরাষ্ট্র আর নতুন শুল্ক বসাবে না- এমন সিদ্ধান্তের পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যস্থতাকারীরা এখন থেকে সুনির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসবেন বলেও জানানো হয়। যুক্তরাষ্ট্র যেন চীনা কোম্পানিগুলোকে ন্যায্যভাবে মূল্যায়ন করে- সেজন্য শি ট্রাম্পকে অনুরোধ করেছেন বলেও বিবৃতিতে বলা হয়েছে। সার্বভৌমত্ব ও মর্যাদার প্রশ্নে চীন নিজের স্বার্থ সুরক্ষিত রাখবে, বলেছেন চীনা প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্প এর আগে শি-র সঙ্গে তার বৈঠক ফলপ্রসূ না হলে চীনের আরও পণ্যে শুল্ক আরোপের হুমকি দিয়েছিলেন। তবে বৈঠকের আগে তার কণ্ঠে ছিল আশাবাদের সুর। “আমার ধারণা, আমরা খুব কাছাকাছি এসেছিলাম, তারপর কিছু একটা হলো- আমরা একটু পিছিয়ে গেলাম; এখন আমরা আবার কাছাকাছি,” বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। বেইজিংয়ের সঙ্গে ন্যায্য যে কোনো বাণিজ্য চুক্তিই ‘ঐতিহাসিক’ হবে বলেও মন্তব্য করেছিলেন তিনি। “আমার বিশ্বাস এ বৈঠকটি খুবই ফলপ্রসু হবে; এবং আমরা এমন কিছু করবো যা সত্যিকার অর্থেই চিরভাস্বর হবে,” বলেছিলেন ট্রাম্প। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন