Inqilab Logo

শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

২০৫১৮ কোটি টাকা মেগা প্রকল্পে

প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

অর্থনৈতিক রিপোর্টার : প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিশেষ তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়ধীন ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে মেগা প্রকল্পের জন্য আলাদা বাজেট ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ১০টি মেগা প্রজেক্টের মধ্যে পদ্মা সেতু ও মেট্রোরেলকে গুরুত্ব দিয়ে ৮ প্রকল্পে ২০ হাজার ৫১৮ কোটি ৫১ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
এসব প্রকল্প দ্রুততম সময়ে বাস্তবায়িতব্য প্রকল্পের তালিকায় রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেই এসব প্রকল্পের তদারক করেন। সেই লক্ষ্যে প্রতি মাসেই এসব প্রকল্প নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বৈঠক হয়।
১০টি মেগা প্রজেক্টের মধ্যে ৮টিতে ২০ হাজার ৫১৮ কোটি ৪১ লাখ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলো হলো- পদ্মা সেতু, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র, মেট্রোরেল, মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্র, পায়রা সমুদ্রবন্দর, পদ্মা সেতু রেল সংযোগ ও চট্টগ্রামের দোহাজারী হতে গুনদুম পর্যন্ত ১২৮ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ প্রকল্প। তবে এবারের বাজেটে বরাদ্দ দেওয়া হয়নি দেশের প্রথম তরলিকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (লিকুইফাইড ন্যাচারাল গ্যাস) এলএনজি টার্মিনাল নির্মাণ এবং সোনাদিয়া গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণ প্রকল্পে।
পদ্মা সেতু : ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ দেশের সর্ববৃহৎ এ সেতু নির্মাণে প্রকল্পের জন্য বাজেটে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৬ হাজার ২৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। গত বাজেটে বরাদ্দ ছিল ৩ হাজার ৫৯২ কোটি ০৫ লাখ টাকা। প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এরই মধ্যে প্রকল্পের ৩৩ শতাংশ আর্থিক অগ্রগতি হয়েছে। ২০২০ সালের মধেই প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হবে।
মেট্রোরেল : ঢাকার যানজট নিরসনে মেট্রোরেল নির্মাণ করবে সরকার। ২০ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ মেট্রোরেল প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এবারের বাজেটে ২ হাজার ২২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে, গত বাজেটে যা ছিল মাত্র ৩৮৫ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।
রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র : মৈত্রী সুপার থার্মাল পাওয়ার প্রকল্পে মোট ব্যয় ১৪ হাজার ৯৯৯ কোটি টাকা। ১৩২০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন প্রকল্পের প্রথম ইউনিট উৎপাদনে আসবে ২০১৮ সালে। এবারের বাজেটে ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে।
রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র : দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুৎ চাহিদা মেটাতে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কোনো বিকল্প নেই। বাজেটে এই প্রকল্পে ৪৬৬ কোটি ৮১ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
পদ্মা সেতু রেল সংযোগ : ঢাকা-ভাঙ্গা ও ভাঙ্গা-যশোর রেললিংক বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৩৪ হাজার ৯৮৮ কোটি টাকা। এবারের বাজেটে প্রকল্পটিতে ৬ হাজার ২৬ কোটি ৪৮ লাখ টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। পদ্মা সেতু ও রেল সেতু একই দিনে উদ্বোধন করতে চায় সরকার।
দোহাজারি গুনদুম রেল প্রকল্প : দোহাজারি থেকে রামু হয়ে কক্সবাজার এবং রামু থেকে মিয়ানমারের কাছে গুনদুম পর্যন্ত সিঙ্গেল লাইন ডুয়েলগেজ ট্র্যাক নির্মাণ প্রকল্পটি চলতি বছরে অনুমোদন দিয়েছে সরকার। প্রকল্পের মোট ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ১৮ হাজার ৩৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে এডিবি দেবে ১৪ হাজার কোটি টাকা। ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে এ প্রকল্পে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৬৩১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। সার্ভে ও পরামর্শ নিয়োগে এই অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি দৃশ্যমান হতে আরও বছর খানেক সময় লাগবে।
মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্র: মাতারবাড়ী আল্ট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল কোল ফায়ার্ড পাওয়ার প্রকল্পের মোট ব্যয় ৩৫ হাজার ৯৮৪ কোটি টাকা। বাজেটে এই প্রকল্পে ২ হাজার ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। গত বাজেটে বরাদ্দ ছিল মাত্র ৩৩০ কোটি টাকা।
পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দর : পায়রা গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের লক্ষ্যে মোট ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ১ হাজার ১২৮ কোটি টাকা। বাজেটে এই প্রকল্পে ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে, গত বছর বরাদ্দ ছিল ৩১৩ কোটি ১৭ লাখ টাকা। প্রকল্পটি ২০২৩ সাল নাগাদ বাস্তবায়িত হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ২০৫১৮ কোটি টাকা মেগা প্রকল্পে
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ