Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

শিক্ষকদের অতিরিক্ত বেতন কর্তন বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ জুলাই, ২০১৯, ৭:৪৪ পিএম

শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডে শিক্ষকদের বেতন থেকে অতিরিক্ত ৪ শতাংশ টাকা কর্তন বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি। একইসাথে আসন্ন ঈদুল আযহার পূর্বে পূর্ণাঙ্গ ঈদ বোনাস প্রদান ও এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধপত্র প্রদান করেছে সংগঠনটি। অনুরোধপত্রে শিক্ষক সমিতি প্রায় ৫ লাখ এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের “শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ডে অতিরিক্ত ৪% কর্তন অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানায়। একইসাথে ঈদুল আযহার পূর্বে ২৫% এর পরিবর্তে পূর্ণাঙ্গ ঈদ বোনাস প্রদানসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আয় রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ফেরত নিয়ে এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অবিলম্বে জাতীয়করণের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুরোধ জানিয়েছে। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে সোমবার (১ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীকে তাঁর তেজগাঁওস্থ অফিসে অনুরোধপত্র দেওয়া হয়। অনুরোধপত্রে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ বলেন- ঈদ সবার জন্য সমান। কিন্তু ২৫% ঈদ বোনাস নিয়ে শিক্ষকরা ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারেন না। এটি অমানবিক ও বৈষম্য। তাই আসন্ন ঈদুল আযহার পূর্বে পূর্ণাঙ্গ ঈদ বোনাস প্রদানসহ প্রতিষ্ঠানের আয় ফেরত নিয়ে সকল এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একযোগে জাতীয়করণ করার অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া শিক্ষক-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ড বিলুপ্ত করে “পেনশন ব্যবস্থা” চালু করতে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানানো হয়।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষক নেতৃবৃন্দ জানান, দাবি আদায়ে আগামী ১২ জুলাই জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। নেতৃবৃন্দ বলেন- জাতীয়করণ এখন সময়ের দাবী। প্রতিষ্ঠানের আয় ফেরত নিয়ে জাতীয়করণ করা হলে সরকারের রাষ্ট্রীয় অর্থের তেমন কোন ক্ষতি হবে না বরং বেতন বৈষম্য কমবে এবং শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়ন ঘটবে।

প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধপত্র দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম রনি, মহাসচিব মোঃ মেজবাহুল ইসলাম প্রিন্স, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব মোঃ আবুল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, যুগ্ম-মহাসচিব মোঃ হান্নান সরদার, সহ-সভাপতি মোঃ বজলুর রহমান, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ এনামুল হক, শাহানাজ সুলতানা ও ইয়াসমিন বেগম প্রমূখ।



 

Show all comments
  • বাদল ১ জুলাই, ২০১৯, ৮:০০ পিএম says : 0
    আপনারা ক্লাস বন্ধ করে মাঠে নামূন দাবি আদায় হবেই হবে। মাএ এক মাস।
    Total Reply(0) Reply
  • আব্দুর রহিম ১ জুলাই, ২০১৯, ৮:৫৮ পিএম says : 0
    আশা করি মা জননী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের দাবি মেনে নিবেন।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন