Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২১ জুলাই ২০১৯, ০৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

জুড়ী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মৌলভীবাজার জেলা সংবাদদাতা : মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর রায় চৌধুরী মনি’র বিরুদ্ধে বুধবার দুপুরে এক কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানী ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।
মামলার এজহার ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর রায় চৌধুরী মনি পুর্বের একটি ইভটিজিং মামলার আপোস নিষ্পত্তির সূত্র ধরে গত বছরের ২৮ নভেম্বর রাত সাড়ে ১২টায় জুড়ী উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের আমতৈল গ্রামের জনৈক মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীর বাড়িতে যান। স্বামী প্রবাসে থাকায় স্ত্রী কমলা তার ২ মেয়ে ও ছেলেকে নিয়ে বেগম বাড়িতে থাকতেন। রাতেই ভাইস  চেয়ারম্যান মনি প্রবাসীর স্ত্রীকে জানান ইভটিজিং মামলার হাজিরা দিতে মৌলভীবাজার আদালতে পরদিন তিনি নিয়ে যাবেন। তাকে ছাড়া আদালতে গেলে পুলিশ তাদেরকে আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেবে। পরে ভাইস চেয়ারম্যন মনি গৃহবধূর কাছে চেয়ে রাতের খাবারও খান এবং বাড়িতে রাত্রি যাপনের প্রস্তাব দেন। এ সময় গৃহবধূ চেয়ারম্যানকে রাতে তার বাড়ি থেকে চলে গিয়ে সকালে আসার জন্য অনুরোধ করেন। চেয়ারম্যন জানান রাস্তায় বের হলে জামায়াতের লোকজন তাকে মেরে ফেলবে। এতে রাতে তাদের ঘরের একটি কক্ষে থাকার সম্মতি দেন সেই গৃহবধূ। পরে ভাইস চেয়ারম্যান মনি গৃহবধূর কলেজ পড়–য়া মেয়েকে তার কক্ষে পাঠানোর প্রস্থাব দেন। প্রস্থাবে রাজি না হওয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান মনি জোরপূর্বক কলেজ পড়–য়া ছাত্রীর কক্ষে ঢুকে শ্লীলতাহানী ঘটান ও ধর্ষণের চেষ্টা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ