Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬, ২৪ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ভারতের রান তাড়া ‘প্রশ্নবিদ্ধ’

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ইংল্যান্ডের ছুড়ে দেওয়া ৩৩৮ রান তাড়া করতে গিয়ে ৩১ রানে হেরেছে ভারত। চলতি বিশ্বকাপে এটি তাদের প্রথম পরাজয়। এই ম্যাচের সঙ্গেই অনেকটা জড়িয়ে ছিল বাংলাদেশ, পাকিস্তান এমনকি শ্রীলঙ্কার সেমিফাইনালের ভাগ্য। কিন্তু সেটা বড় কথা নয়। ম্যাচে তো হার-জিত থাকবেই। কিন্তু ভারত যেভাবে ম্যাচ হেরেছে সেটাই প্রশ্নবিদ্ধ করেছে অনেক ক্রিকেট বোদ্ধাদের। এই তালিকায় সাবেক ক্রিকেটাররা সহ রয়েছেন ফুটবল তারকা গ্যারি লিনেকারও।

ভারতের রান তাড়ার ধরণটাই প্রশ্নবিদ্ধ করেছে ক্রিকেট বিশ্বকে। হাতে ৮ উইকেট নিয়ে ৮৪ বলে ১৪০ রান করাটা বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটিং লাইন আপের কাছে মামুলিই মনে হওয়ার কথা। কিন্তু ভারত সেই রাস্তায় হাঁটেনি। হাতে ৫ উইকেট নিয়েও শেষ ৫ ওভারে ৭১ রানের লক্ষ্যে সিঙ্গেল নিয়ে খেলেছেন ধোনি-যাদবরা। পুরো ইনিংসে ছক্কা মাত্র একটি। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষ্ময় প্রকাশ করেছেন সাবেকরা। নিজের টুইটার পেজে ভারতের খেলাকে অখেলোয়াড়সুলভ উল্লেখ করে সাবেক পাকিস্তান অধিনায়ক ওয়াকার ইউনুস লিখেছেন, ‘আপনি কী, সেটা আপনার পরিচয় নয়। আপনি জীবনে কী করেন, সেটাতেই আপনার পরিচয়। পাকিস্তান সেমিফাইনালে উঠল নাকি উঠল না, তা নিয়ে আমার বিশেষ মাথাব্যথা নেই। তবে একটা জিনিস নিশ্চিত, কিছু বিশ্বচ্যাম্পিয়ন দলের খেলোয়াড়ি মানসিকতার একটা বড় পরীক্ষা ছিল আজকে, আর তাতে তারা জঘন্যভাবে ব্যর্থ হয়েছে।’

এর আগে পাকিস্তানের সাবেক খেলোয়াড় সিকান্দার বখত ও বাসিত আলির মতো তারকারাও প্রকাশ্যে সন্দেহ প্রকাশ করে বলেছিলেন, পাকিস্তানকে সেমিতে না তোলার জন্য ইচ্ছে করে ম্যাচ হারবে ভারত।

পাকিস্তানি সাবেক কেউ ভারতের মুÐুপাত করবে এটাই স্বাভাবিক বলতে পারেন অনেকে। তাহলে জেনে রাখুন এই তালিকায় রয়েছেন ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটাররাও। ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি অবাক হয়েছেন মাহেন্দ্র সিং ধোনির ধীর ব্যাটিং দেখে, ‘পান্ডিয়া-ঋষভরা যেখানে আউট হয়ে চলে এল, সেখানে ধোনির একটা বড় ভূমিকা রাখার দরকার ছিল, কিন্তু সেটি সে করতে পারেনি।’

বিষেশ করে হাতে ৫ উইকেট নিয়েও ভারত যেভাবে রান তাড়া করেছে, সেটি হতাশ করেছে সৌরভকে, ‘এর চেয়ে ভারত যদি ৩০০ রানে অলআউট হয়ে যেত, তাহলে এতটা খারাপ দেখাত না। কিন্তু হাতে ৫ উইকেট রেখে রান তাড়ায় অবাক হয়েছি।’ রান তাড়া করতে গিয়ে যখন মারমুখী হতে হবে, তখন ধোনি আর কেদার যাদবের অবিচ্ছিন্ন জুটি থেকে এসেছে ৩১ বলে ৩৭ রান। এই হার কোহলিদের বিশ্বকাপযাত্রায় একটা ধাক্কা মনে করেন সৌরভ, ‘একটি শক্তিশালী দলের বিপক্ষে রান তাড়ার সুযোগটা এই প্রথম এসেছিল ভারতের জন্য। কিন্তু তারা সফল হতে পারল না।’

ভারতের ধীরগতির ব্যাটিংয়ের সময় ধারাভাষ্যের দায়িত্বে ছিলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকার। নিজের অনুজ ধোনি-কেদারদের অমন ব্যাটিং দেখে যার পর নাই বিরক্ত সাবেক এই ভারতীয় ক্রিকেটার, ‘ভারতকে হারানোর কোনো দল থেকে থাকলে সেটা ইংল্যান্ড। যদিও শেষ কয়েক ওভারে ধোনির ব্যাটিং আমার মাথায় ঢোকেনি।’ এসময় মাঞ্জারেকারের সঙ্গে ছিলেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক নাসের হুসেইন। নিজের দল জিতলেও ক্রিকেটের মাহাত্ব অনুধাবন করে খেদ ঝাড়তে ভোলেননি তিনিও, ‘আমি কিছুই বুঝতে পারছি না। হচ্ছেটা কী! ওরা যেভাবে ব্যাটিং করছে, ভারতের তো এমন ব্যাটিং দরকার নেই। ভারতের এখন রান দরকার। তারা কী করছে? অনেক ভারতীয় ভক্ত মাঠ থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে। অবশ্যই তারা ধোনির মারকাটারি ব্যাটিং দেখতেই এসেছিল! এটা বিশ্বকাপের খেলা! বিশ্বকাপের সেরা দুটি দল খেলছে। ও কেন জেতার চেষ্টা করছে না?’

ধোনির এমন ব্যাটিং কোনো ভারতীয়ই খুশি হবে না উল্লেখ করে নাসের বলেন, ‘ভারতের সমর্থকেরা তাদের দলকে লড়তে দেখতে চায়। তারা যায়, তাদের দল হারলেও যেন লড়াই করে হারে। কিন্তু এভাবে কেন? জেতার জন্য ঝুঁকি কেন নিচ্ছে না তারা?’

১৯৮৬ বিশ্বকাপ ফুটবলের গোল্ডেন বল জয়ী সাবেক ইংলিশ তারকা গ্যারি লিনেকারও টুইট করেছেন ভারতীয় দলের ব্যাটিং নিয়ে, ‘খেলার শেষটা বেশ অদ্ভুত ঠেকেছে আমার কাছে। শেষ কয়েক ওভারের আগ পর্যন্ত ম্যাচটা ভালোই ছিল।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন