Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

দুর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে সরকার---- মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০১৯, ৪:৩৭ পিএম

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার দুর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের পৃষ্ঠপোষক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। তিনি বলেন, তিতাস গ্যাস একটি পূর্ণ লাভজনক প্রতিষ্ঠান।এই প্রতিষ্ঠানের কাছে সরকারের রাজস্ব পাওনা রয়েছে ২০ হাজার কোটি টাকা। ডেসা, ডেসকো মিলে আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কাছে এনবিআর-এর পাওনা প্রায় ২৫ হাজার কোটি টাকা। মোট ৪৫ হাজার কোটি টাকা ফাঁকি দিয়ে সেখান থেকে আওয়ামী লুটেরাদের সুবিধা দিচ্ছে সরকার। সেসব দুর্নীতি, লুট না থামিয়ে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে সাধারণ মানুষের ওপর বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে সরকার।

মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী চালকদল আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুরসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে অবৈধ গ্যাস-সংযোগের ব্যবসায় নেমেছে ক্ষমতাসীনরা। অন্যদিকে গ্যাসের অপচয় রোধ না করে উল্টো সাধারণ মানুষের ওপর বাড়তি দাম চাপানো হয়েছে। এভাবে গ্যাসের দাম বাড়ানো শেখ মুজিবের আওয়ামী লীগকে মানায় না। এটা শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগকে মানালেও শেখ মুজিবের আওয়ামী লীগের ধ্যান-ধারণার সঙ্গে যায় না। কথায় কথায় সাধারণ মানুষের পকেট কাটা এ সরকারের অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে।

তিনি বলেন, হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে। এশিয়া প্যাসিফিকের রিপোর্ট হিসেবে যে ৭ লাখ কোটি টাকা পাচার হয়েছে, তা দিয়ে ১৮টি পদ্মাসেতু নির্মাণ করা যেতো এবং মেট্রোরেলের অনেক কাজ এখান থেকে করা যেতো।

বিএনপির এই নেতা বলেন, মোবাইল ফোন কোনও বিলাসবহুল বিষয় না। অথচ সরকার সেই মোবাইল ফোনে শতকরা ২৭ টাকা নিয়ে যাবে। বাজেট ঘোষণা হওয়ার আগে থেকে বাজারে জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে। যাত্রী সংকটে পড়েছে পরিবহগুলো। দুর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে এ সরকার। এ সরকারের হাত থেকে সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে হবে।

গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বিএনপি ঘোষিত বিক্ষোভের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে আলাল বলেন, গণবিরোধী এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আমাদের প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে। জনগণ একতাবদ্ধ হলে গ্যাসের দাম কমাতে সরকার বাধ্য হবে। তাই এই নিপীড়ন-শোষণমূলক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে নামতে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

চালকদলের সভাপতি জসিম উদ্দীন কবিরে সভাপতিত্বে ও কৃষকদলের সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও উপস্থিাত ছিলেন- বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুস সালাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি মানিক তালুকদার ও মুক্তার আকন্দ প্রমূখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ