Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ০৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২০ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বাংলাদেশের দৃষ্টিকটু ফিল্ডিং

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২ জুলাই, ২০১৯, ৪:৪২ পিএম

যে কোনো দলের জন্যই ভারত কঠিন প্রতিপক্ষ তাতে কোনো সন্দেহ নেই। বাংলাদেশের বিপক্ষে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের শক্তির পার্থক্যও চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেয়ার প্রয়োজন পড়ে না। এরপরও ভারত যে অজেয় তা নয়। এজন্য প্রতিপক্ষকে এগুতে হয় সাবধানে।

নিয়ন্ত্রিত বোলিং আর দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ে নিজেদের কাজটা করতে পারলে যে কোনো প্রতিপক্ষই চাপে পড়তে বাধ্য। অথচ বিশ্বকাপের বাঁচা মরার ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ঠিক উল্টোটাই করছে টস হেরে বোলিং করা বাংলাদেশ।

বাজে বোলিং ও ফিল্ডিং খেলারই একটা অংশ। কিন্তু বাংলাদেশের নেতিবাচক বডি ল্যাঙ্গুয়েজ ভাবনার খোরাক যোগাচ্ছে টাইগার ভক্তদের। মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রথম ওভারেই ১০ রান তুলে নেয় রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল জুটি।

এরপর অধিনায়ক বোলিংয়ে আসেন দশম ওভারে। মাঝে সাইফউদ্দিন ও মুস্তাফিজের বল যে রোহিত-রাহুল জুটি সাচ্ছন্দে খেলেছে তা নয়। তবে বাজে ফিল্ডিংয়ের সুবাদে রান এসেছে তরতর করে। সবচেয়ে বড় হতাশা উপহার দিয়েছেন দেশের অন্যতম সেরা ফিল্ডার তামিম ইকবাল।

ইনিংসের পঞ্চম ওভারে মুস্তাফিজের শর্ট বলে ক্যাচ দিয়েছিলেন রোহিত। ডিপ স্কয়ার লেগ থেকে বেশ খানিকটা দৌঁড়ে এসে ক্যাচটা পুরোপুরি নাগালে পেয়েও তালুবন্দি করতে পারেননি তামিম। দলীয় রান তখন ১৮। রোহিত ব্যাট করছিলেন ৯ রানে।

ওয়ানডের সর্বোচ্চ ইনিংস ও একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনটি দ্বিশতক হাঁকানো বিশ্বর অন্যতম ভয়ঙ্কর ব্যাটসম্যানকে জীবন দেওয়ার মাশুল দিচ্ছে মাশরাফি বাহিনী। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ভারতের সংগ্রহ ১৫ ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৮৭।

বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে রান তুলছেন রোহিত, রাহুল এগুচ্ছেন বড় ইনিংসের প্রত্যয় নিয়ে। দলের সেরা চার বোলার ব্যবহার করেও জুটি বিচ্ছিন্ন করতে পারছেন না অধিনায়ক।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ