Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ০১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ সফর ১৪৪১ হিজরী

রান আউটে ফিরলেন উইলিয়ামসন

বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০১৯, ৯:১০ পিএম

১৬তম ওভারের প্রথম বলেই উডের বলে স্ট্রাইকে থাকা টেইলর স্ট্রেইট ড্রাইভ খেলেন। বল আঘাত করে স্ট্যাম্পে। সেখানে আবেদন করেন উড। পরে আম্পায়ার রিভিউতে দেখা যায় উডের হাতে বল লেগেই তা স্ট্যাম্পে আঘাত করে। তখন উেইলিয়ামসন ছিলেন ক্রিজের বাইরে। তাই ব্যক্তিগত ২৭ রানেই ফিরতে হয় তাকে। তার বিদায়ে ম্যাচ থেকে অনেকটাই ছিটকে পড়েছে কিউইরা। রস টেইলর ২৭ রানে খেলছেন। ক্রিজে নতুন ব্যাট করতে আসা লাথাম অপরাজিত আছেন ২ রানে।

দলীয় সংগ্রহ ১৬ ওভারে ৩ উইকেটে ৬৮ রান।

নিকলসের পর ফিরলেন গাপটিলও

শুরুতেই নিকলসকে হারিয়ে ধুঁকতে থাকা নিউজিল্যান্ড শিবিরে এবার হানা দিলেন আর্চার। গাপটিলকে মাত্র ৮ রানে বাটলারের দুরন্ত ক্যাচে পরিনত করেন এই পেসার। উইলিয়ামসন ১০ রানে ও টেইলর ১ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৭ ওভারে ২ উইকেটে ২০ রান।

শুরুতেই নিকলসকে ফেরালেন ওকস

৩০৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই ওকসের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন নিকলস (০)। তার বিদায়ে চাপে পড়েছে কিউইরা। গাপটিল ১ ও উইলিয়ামসন ০ রানে অপরাজিত আছন।

দলীয় সংগ্রহ ১ ওভারে ১ উইকেটে ২ রান।

নিউজিল্যান্ডকে ৩০৬ রানের লক্ষ্য দিল ইংল্যান্ড

ইংলিশ দুই ওপেনার বেয়ারস্টোর অনবদ্য ১০৬ রান ও রয়ের ৬০ রানে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩০৫ রান তুলেছে স্বাগতিকরা। জয়ের জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ৩০৬ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড: ৩০৫/৮ (৫০ ওভার)(রয় ৬০, বেয়ারস্টো ১০৬, রুট ২৪, বাটলার ১১, মরগান ৪২, স্টোকস ১১, ওকস ৪, প্লাঙ্কেট ১৫*, রশিদ ১৬, আর্চার ১*;স্যান্টনার ৬৫/১, বোল্ট ৫৬/২, সাউদি ৭০/১, হেনরি ৫৪/২, গ্রান্ডহোম ১১/০, নিসাম ৪১/২)

মরগানকে ফিরিয়ে দিলেন হেনরি

৪০ বলে ৪২ রান করে স্যান্টনারের দুর্দান্ত একটি ক্যাচে বিদায় নেন মরগান। ম্যাচে এটি তার দ্বিতীয় উইকেট। প্লাঙ্কেট ১ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৪৬.১ ওভারে ৭ উইকেটে ২৭৩ রান।

নিসামের দ্বিতীয় শিকার ওকস

স্টোকসের পর ওকসকেও ফিরিয়ে ম্যাচে থাকল নিউজিল্যান্ড। মাত্র চার রানে মিড অফে উইলিয়ামসনের ক্যাচে পরিনত হয়ে ফেরেন তিনি। মরগান ৩০ রানে ও প্লাপঙ্কেট ০ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৪৫ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২৬৩ রান।

স্টোকসকে ফেরালেন স্যান্টনার

ব্যক্তিগত নবম ওভারের শেষ বলে স্যান্টনারের বলে উড়িয়ে মারতে গিয়ে লং অনে হেনরির হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন  তিনি। আউট হওয়ার আগে ২৭ বলে ১১ রান করেন এই অলরাউন্ডার। মেরগান ২৫ রানে ও ওকস ০ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৪২ ওভারে ৫ উইকেটে ২৪৮ রান।

বাটলারের বিদায়ে ম্যাচে ফিরল কিউইরা

বাটলারের বিধ্বংসী রূপ দেখানোর আগেই তাকে ফিরিয়ে দিলেন বোল্ট। ১২ বলে ১১ রান করে মিড অফে উইলিয়ামসনের ক্যাচে পরিনত হয়ে ফেরেন তিনি। মরগান ৪ রানে ও স্টোকস ৩ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৩৫ ওভারে ৪ উইকেটে ২১৮ রান।

বেয়ারস্টোকে ফেরালেন হেনরি

দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর বেয়ারস্টোকে বেশিক্ষন টিকতে দিলেন না হেনরি। ব্যক্তিগত ১০৬ রানের মাথায় ইনসাইড এজে বোল্ড করে ফেরান এই ওপেনারকে। বাটলার ৯ রানে ও মরগান ২ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৩ উইকেটে ২১১ রান।

বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরির পর ফিরলেন ‍রুট

বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিলেন বেয়ারস্টো। মাত্র ৯৫ বলে ব্যক্তিগত নবম শতরানে পৌছলেন তিনি। তার এই মাইলফলক অর্জণের পর বোল্ট ২৪ রান করা রুটকে লাথামের তালুবন্দী করে ফেরান। অবশ্য রিভিউ নিলেও তাতে কাজে দেয়নি। বেয়ারস্টো ১০০ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ৩০.১ ওভারে ২ উইকেটে ১৯৪ রান।

বড় জুটি ভাঙলেন নিসাম

রয়-বেয়ারস্টোর ১২৩ রানে জুটি ভেঙে দিলেন নিসাম। ব্যক্তিগত ২য় ওভারের পরপর দুই বলে চার মারার পর আবারও আগ্রাসী ব্যাটিং করতে গিয়ে স্যান্টনারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৬০ রান করা রয়। বেয়ারেস্টো ৫৪ রানে অপরাজিত আছেন। নতুন ক্রিজে আসা রুট অপরাজিত আছেন ১ রানে নিয়ে।

দলীয় সংগ্রহ ১৯ ওভারে ১ উইকেটে ১২৪ রান।

রয়-বেয়ারস্টোর শতরানের জুটি

ইনিংসের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলা ইংলিশ দুই ওপেনারে শতরান পেরিয়েছে স্বাগতিকরা। মাত্র ১৫তম ওভারেই স্কোরবোর্ডে শতরান যোগ করেন এই দুই ব্যাটসম্যান। রয় এবং বেয়ারেস্টো দুজনই পেয়েছেন ব্যক্তিগত পঞ্চাশ রান। ৬ চারে রয় ৫০ রানে ও ৯ চারে বেয়ারেস্টো ৫২ রানে অপরাজিত আছেন।

দলীয় সংগ্রহ ১৭ ওভারে বিনা উইকেটে ১১১ রান।

ইংল্যান্ডের দুর্দান্ত শুরু

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করেছে ইংলিশ দুই ওপেনার রয় ও বেয়ারেস্টো। ইনিংসের সপ্তম ওভারেই দলীয় পঞ্চাশ পূর্ণ করেন এই দুই ব্যাটসম্যান। বেয়ারেস্টো ৩০ রানে ও রয় ১৪ রানে অপরাজিত আছেন।

৭ ওভারে দলীয় সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৫৩ রান।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ড

টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক এইউন মরগান। টস জিতলে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও ব্যাটিং নিতেন বলে জানিয়েছেন। ইংল্যান্ড দলে কোন পরিবর্তন নেই। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড দলে ফার্গুসন ও সোধির বদলে খেলবেন সাউদি এবং ম্যাট হেনরি।

ইংল্যান্ড একাদশ: জেসন রয়, জনি বেয়ারেস্টো, জো রুট, এউইন মরগান (অধিনায়ক), বেন স্টোকস, জস বাটলার (উইকেটরক্ষক), ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাঙ্কেট, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার, মার্ক উড।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: মার্টিন গাপটিল, হেনরি নিকলস, কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), রস টেইলর, টম লাথাম (উইকেটরক্ষক), জেমস নিসাম, কলিন ডি গ্রান্ডহোম, মিচেল স্যান্টনার, টিম সাউদি, ম্যাট হেনরি, ট্রেন্ট বোল্ট।

শেষ চার নিশ্চিত করতে মুখোমুখি ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড

বিশ্বকাপের ৪১তম ম্যাচে শেষ চার নিশ্চিত করতে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। বাংলাদেশ সময় দুপুর সাড়ে তিনটায় চেষ্টার লি স্ট্রিটে আজ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। শুরুর দিকে দাপ দেখানো দল দুটি শেষের দিকে হেরে এখন বাঁচা-মরার লড়াইয়ে চলে এসেছে। ইংলিশরা হেরে গেলে তাকিয়ে থাকতে হবে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচের দিকে। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড হেরে গেলে তখন তাদেরও তাকিয়ে থাকতে হবে একই ম্যাচের দিকে। সে ম্যাচে পাকিস্তান যদি জয় পায় তাহলে কিউিইদের সঙ্গে নেট রান রেটের হিসেবে নেমে পড়বে এশিয়ার দলটি। তাই উভয় দলের জন্যই আজ জয়ের বিকল্প নেই।

পরিসংখ্যান:

দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে নিউজিল্যান্ড এগিয়ে থাকলেও ইংল্যান্ডও তেমন একটা পিছিয়ে নেই। তাছাড়া স্বাগতিক হওয়ার সুবিধাতো আছেই।

ওয়ানডেতে:

ম্যাচ: ৮৯

নিউজিল্যান্ড জয়ী: ৪৩

ইংল্যান্ড জয়ী: ৪০

টাই: ২

পরিত্যক্ত: ৪

বিশ্বকাপে:

ম্যাচ: ৮

নিউজিল্যান্ড জয়ী: ৫

ইংল্যান্ড জয়ী: ৩



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯

১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন