Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

হরিণাকুন্ডুতে খাল খননে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা

ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের খাল খননে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। শাখা কর্মকর্তা (এসও) কামাল হোসেন আখন্দ নিজেই ঠিকাদার সেজে কাজ করছেন। সরেজমিন দেখা গেছে, কামাল আখন্দ খাল খননসহ বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ নাম মাত্র করে বিল তুলে নিচ্ছেন। সম্প্রতি হরিণাকুন্ডু পানি উন্নয়ন বোর্ডে একজন এসডি দায়িত্ব গ্রহণের পর এসও কামালের দুর্নীতি ধরা পড়েছে। এসডি মতিয়ার রহমান কামাল আখন্দকে সঠিকভাবে কাজ করার নির্দেশনা দিয়েছেন। অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ঠিকাদার এবং বেশ কিছু সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কাজ দেওয়া কথা বলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন এসও কামাল। বিষয়টি ধামা চাপা দিতে কামাল আখন্দ নানা অপচেষ্টায় লিপ্ত। জানা গেছে, হরিণাকু-ু উপজেলার তাহেরহুদা ইউনিয়নের ভবানীপুর ও লতিডাঙ্গা অভিমুখে বয়ে যাওয়া টি-১ (এস-২) সেচ খালটির ২.৫ কিলোমিটার খননের জন্য ওয়াপদা কর্তৃপক্ষ ১১ লাখ টাকার ই-টেন্ডার করে। টেন্ডারে খুলনার আমিন এন্ড কোং নামে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানটি কাজ পাই। কিন্তু দুর্নীতিবাজ এস ও কামাল আখন্দ ঠিকাদারের নিকট থেকে ৪ লাখ টাকায় কাজটি কিনে নিজেই করছেন। কাজটি সঠিক ও যথাযথভাবে সম্পন্ন করা হয়নি। কাজ না করেই তিনি বিল উত্তোলনের অপচেষ্টা করেন। এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঝিনাইদহের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ ও উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এস ডি ই) মতিয়ার রহমান সরজমিনে কাজটি তদন্ত করে বিল না দেওয়ার ঘোষণা দিলে বিপাকে পড়েন দুর্নীতিগ্রস্ত এস ও কামাল আখন্দ। এসডিই মতিয়ার রহমান নিজে সরজমিনে কাজের মান পরিদর্শনে উক্ত এলাকায় গিয়ে ব্যাপক অনিয়ম লক্ষ্য করেন। এ সময় তিনি ঠিকাদারকে সিডিউল অনুযায়ী কাজ করার পরামর্শ দেন। অন্যথায় কোন ক্রমেই উক্ত কাজের বিল দেওয়া হবে না বলেও জানিয়ে দেন। এ সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলমসহ স্থানীয় ব্যক্তি যথাযথভাবে কাজটি সম্পাদনের জন্য কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানান। এদিকে কর্তৃপক্ষের নির্দেশনার পর খালটির দুপাড়ে লাগানো বনজ ও ফলদ ও গাছ কেটে লাখ লাখ টাকা পকেটস্থ করেন। এসও কামাল আখন্দ বিভিন্ন ঠিকাদার ও বেশ কিছু মানুষের কাছ থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাজ দেওয়ার নাম করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলেও তথ্য পাওয়া গেছে। হরিণাকুন্ডু উপজেলার চটকাবাড়ীয়া আন্দুলিয়া এস-১ খালের ব্রিজে একই কাজ দুইটি টেন্ডারের মাধ্যমে দুই জন ঠিকাদারকে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে দুর্নীতিবাজ এস ও কামাল আখন্দের বিরুদ্ধে। এছাড়াও এস-১ এর টি-২ খালের কাজ না করে বিল উত্তোলনসহ নানাবিধ অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এসব বিষয়ে জানতে চাইলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রজেক্ট ডাইরেক্টর ওয়াহিদুজ্জামান বলেন তিনি, ইতোমধ্যেই ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের কথা শুনেছেন। দ্রুত তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তিনি জানান। জানতে চাইলে এস ও কামাল আখন্দ বলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো সঠিক নয়। তবে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঝিনাইদহের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল লতিফ ও উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী (এসডিই) মতিয়ার রহমান জানান, সরেজমিন তদন্ত করে দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাকে সতর্ক করে কাজগুলো ভালো মানের করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হরিণাকুন্ডুতে খাল খননে অনিয়মের অভিযোগ
আরও পড়ুন