Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

ধরলা কেবল নেটওয়ার্ককে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

কুড়িগ্রামে টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন লংঘন

কুড়িগ্রাম জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৪ জুলাই, ২০১৯, ৭:১০ পিএম

কুড়িগ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ধরলা কেবল নেটওয়ার্ককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন, ২০০৬ এর ৩ ও ৪ ধারা লংঘন করায় কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: হাসিবুল হাসান এর পরিচালিত মোবাইল কোর্টের সামনে ধরলা কেবল নেটওয়ার্কের অংশীদার আব্দুর রাজ্জাক অপরাধ স্বীকার করায় তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন বিজ্ঞ বিচারক। এসময় মোবাইল কোর্টে উপস্থিত ছিলেন জেলা তথ্য অফিসার শাহজাহান আলী, প্রেস ক্লাবের সভাপিত এড.আহসান হাবীব নীলু ও পুলিশের একটি টিম। 

জেলা তথ্য অফিসার শাহজাহান আলী জানান, মোবাইল কোর্টে দন্ডিত আব্দুর রাজ্জাক ঘোষপাড়া এলাকার দিলদার হোসেনের পূত্র। তারা দীর্ঘদিন থেকে শহরের ডিকে হোটেলের তিনতলার ছাদে লাইসেন্স ছাড়াই অবৈধভাবে এই কেবল নেটওয়ার্কের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল। একই সাথে সম্পূর্ণ অবৈধ পন্থায় স্থানীয় চ্যানেলের নাম দিয়ে বিজ্ঞাপন ও নিজস্ব অনুষ্ঠান পরিচালনা করে আসছিল। সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় তার প্রমাণ পাওয়া যায়।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: হাসিবুল হাসান জানান, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন টেলিভিশন ৪টি (বিটিভি, বিটিভি ওয়ালার্ড, সংসদ বাংলাদেশ টিভি ও বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্রগ্রাম) প্রথমে রেখে সরকার অনুমোদিত ৩০টি বেসকারি চ্যানেল (ডেট অফ অন এয়ার) ক্রমানুসারে সম্প্রচার করতে হবে। কেবল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে স্থানীয়ভাবে সিনেমা ও বিজ্ঞাপন দেখানোর বিষয়ে বিধিনিষেধ থাকলেও তা মানা হচ্ছিল না। এছাড়াও তাদের বৈধ কোন কাগজপত্র নেই। একারণে প্রথম দফায় মোবাইল কোর্টে জরিমানা করা হয় এবং পরবর্তী এক মাসের মধ্যে লাইসেন্সসহ সম্প্রচার বিধিমালা অনুসরণ করা না হলে স্থায়ীভাবে সিলগালা করে দেয়া হবে বলে জানান। সামগ্রিক বিষয়টি মনিটরিং করবেন জেলা তথ্য অফিসার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভ্রাম্যমাণ আদালত


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ