Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় উত্তাপ

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০১৯, ১১:৫৪ এএম

বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই টান টান উত্তাপ। মাঠের খেলায় যতটা, ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে যেন উত্তাপটা তারচেয়েও বেশি। যদিও বিশ্বকাপ ক্রিকেটে আজকের বাংলাদেশ বনাম পাকিস্তান ম্যাচটির গুরুত্ব আপাত দৃষ্টিতে বেশ কম। তবুও মাঠের লড়াইয়ের আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়ে গেছে কথার লড়াই। ম্যাচের কোন ঘটনাই ম্যাচের ফল থেকেও হয়ে যাচ্ছে বড়।

ইংল্যান্ডের বিখ্যাত লর্ডসে শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে এই ম্যাচটি। এই ম্যাচে পাকিস্তান এখনো সুযোগ খুজঁতে পারে সেমিফাইনালে পা রাখার। অন্যদিকে, জিতলে বাংলাদেশ থাকবে পাচঁ নম্বরে। আপাতত সেটা নিয়েই আশাবাদী বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্তরা।

২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল, এর আগে ২০০৭ সালে সুপার এইটে উত্তীর্ণ হয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু পয়েন্ট তালিকায় বাংলাদেশ যদি এবার পাচঁ নম্বরে থাকতে পারে তাহলে সেটা হবে সবচেয়ে বড় অর্জন বাংলাদেশের বিশ্বকাপ ইতিহাসে।

ফেসবুকে মোহাম্মাদ মানিক লিখেছেন, ‘‘হার জিত তো খেলারই অংশ।শুভ কামনা বাংলাদেশ টাইগার বাহিনী।এই বারের ট্রফিটা ততটা সুন্দর নয়,এটা আমরা চাইনা।আগামীরটা যদি সুন্দর হয় তখন বলবো "বিশ্বকাপটা এনে দাও"।

‘‘কোন সুযোগ নাই বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের। তাদের জন্য রইল শুভকামনা আর ভারত সেমিফাইনালে হেরে যাক,,, বাংলাদেশের ক্রিকেট প্রেমী মানুষ সেটাই চায়’’ মন্তব্য সুমন মাহমুদের।

ক্রিকেটপ্রেমী প্রিন্স লিখেছেন, ‘‘এশিয়াতে ইন্ডিয়ার পর কোনটা বড় দল সেইটা আজ নির্ধারিত হবে। আমি মনে করি বাংলাদেশি প্লেয়ারদের ভাল খেলার জেদ থাকা দরকার। সেইটার অভাব হলে বাংলাদেশ হারবে।’’

এদিকে অধিনায়ক মাশরাফির অবসর প্রত্যাশা করে মো. সাইয়িদ লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশ আজকের ম্যাচ জিতুক বা হেরে যাক সেটা বড় কথা নয়,
কথা হলো মাশরাফির অবসরের ঘোষণা শুনতে চাই। বহুত হয়েছে এবার অবসরে যান। এভাবে অধিনায়কের পদ আঁকড়ে ধরে থাকা অনুচিত।’’

‘‘বাংলাদেশের উচিত পাকস্তানকে আস্তে আস্তে বল করা।তাতে করে পাকিস্তান সহজেই ৫০০+রান করে ফেলবে।আর বাংলাদেশ ইচ্ছে করে ১৮০ রানে অল আউট হয়ে যাবে তাতে করে পাকিস্তান ফাইনালে উঠে যাবে আর ভারতের ফাটবে’’ মন্তব্য মোঃ ইমন খানের।

ফেসবুক ব্যবহারকারী মো. নাজমুল হক লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশ পাকিস্তানের কোন খেলা হলে বলা হয় ৭১ বদলা নেওয়া। কেও কাওকে ছাড় দেবেনা। খেলাটা অনেক মজা হবে। আমরা এবার গাল দিয়া জিতবো না, খেলেই জিতবো। কারন বাংলাদেশের সময় টা পাকিস্তানের চেয়ে অনেক ভালো যাচ্ছে।’’

অমরিতা খান ফারিয়া লিখেছেন, ‘‘সেমির স্বপ্ন শেষ হলে কি হবে,,, আমরা টপ ৫ থেকে টুর্নামেন্ট শেষ করব,,,যাতে ২০২৩ সালে আমরা আরও অনুপ্রাণিত হতে পারি।। সব টপ ৫ এর মধ্যে আমরা থাকতে চাই।’’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ