Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬, ১৮ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ব্রিটিশ ট্যাংকার আটকের হুমকি ইরানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০১৯, ৪:৫৮ পিএম

ব্রিটিশ রয়্যাল মেরিন কর্তৃক জিব্রাল্টারে ইরানের তেলবাহী সুপারট্যাংকার অনতিবিলম্বে মুক্তি দিতে হুমকি দিয়েছে ইরান। দেশটির অভিজাত বিপ্লবী গার্ডের একজন সিনিয়র কমান্ডার শুক্রবার সতর্ক করে বলেন, জিব্রাল্টারে আটক ইরানের ট্যাঙ্কার অবিলম্বে মুক্ত না হলে ব্রিটিশ তেল ট্যাঙ্কারকে জব্দ করা তেহরানের ‘কর্তব্য’ হয়ে দাঁড়াবে।

ইইউ-এর নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করে সিরিয়ায় তেল সরবারহের চেষ্টা করার সন্দেহে বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ রয়্যাল মেরিনস ইরানের গ্রেস ১ তেলবাহী সুপারট্যাংকারকে আটক করেছে। এই নাটকীয় পদক্ষেপ তেহরানের ক্রোধের সৃষ্টি করতে পারে যা ইরান ও পশ্চিমের সঙ্গে সংঘর্ষের উত্তেজনা বাড়িয়ে তুলতে পারে।

ইরান এর এক্সপ্যাডিয়েন্সি কাউন্সিলের সচিব, বিপ্লবী গার্ড মেজর জেনারেল মোহসেন রেজাই টুইটারে একটি পোস্ট দিয়ে জানান, ‘যদি ব্রিটেন ইরানী তেল ট্যাঙ্কারটি ছেড়ে না দেয়, তবে একটি ব্রিটিশ তেল ট্যাঙ্কার জব্দ করাও ইরানী কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব হয়ে দাঁড়াবে।’ মোহসেন রেজাই আরও বলেন, ‘৪০ বছরের ইতিহাসে ইসলামী প্রজাতান্ত্রিক ইরান কখনোই যুদ্ধের মতো পদক্ষেপ বা আচরণ শুরু করেনি তবে, ইরানকে খোঁচা দিলে তার বিরুদ্ধে সাড়া দিতে দ্বিধা করেনি।’

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্বাস মুসাভিকে উদ্ধৃত করে ইরনা বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ইরানের তেল ট্যাঙ্কারটি অপরিশোধিত তেল বহন করছিল।

২০১১ সাল থেকে ইরানের ঘনিষ্ঠ সহযোগী যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়াতে তেল সরবারহের ওপর ইউরোপীয় ইউনিয়ন নিষেদ্ধাজ্ঞা আরোপ করে। তবে, এখন পর্যন্ত ইইউ বা ব্রিটেন কখনওই সমুদ্রে ইরানি ট্যাঙ্কার জব্দ করেনি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো ইরানের বিরুদ্ধে ইইউ-এর ব্যাপক নিষেধাজ্ঞা জারি নেই। সূত্র: রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন