Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

রাউজানে তাণ্ডবলীলার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি

কুমিল্লায় মুনিরীয়া যুব তবলীগের মানববন্ধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

দীর্ঘ আড়াই মাস ধরে রাউজানে চলছে নৃশংস বর্বরতা, নৈরাজ্য, লুটপাট, ভাঙচুর নিরীহ মানুষকে হয়রানি। এসব অরাজকতা বন্ধের দাবিতে গতকাল সকালে কুমিল্লা প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি কুমিল্লা জেলা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে অধ্যাপক টিপু সুলতান, মো. আবদুল কাদের ও বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ছিদ্দিকুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, তিনি ’৬৯ থেকে ’৯৩ সাল পর্যন্ত রাউজানে সরকারি কর্মকর্তা হিসাবে কর্মরত ছিলেন। তিনি রাউজানে ফজলে করিমের সে সময়কার হত্যা নির্যাতনের কাহিনীর সাক্ষী। তিনি রাজাকারের বংশধর। তিনি ফজলে করিমকে যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্য হিসাবে আওয়মী লীগ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান। অন্য বক্তারা বলেন, রাউজানের সন্ত্রাসী বাহিনী কাগতিয়া দরবারের ২৬টি এবাদতখানা ভাঙচুর ও এবাদত খানায় থাকা বহু কোরআন-হাদিস ও ধর্মীয় গ্রন্থে অগ্নিসংযোগ করে। শতশত তরিকতের অনুসারীর বাড়ীঘর ভাঙচুর, লুটপাট, দোকানপাট বন্ধ করে দেয়। পুলিশ প্রশাসন যারা এ নৈরাজ্য চালাচ্ছে তাদের দায়ের করা ১২টি প্রহসনমূলক মিথ্যা মামলা গ্রহণ করলেও কাগতিয়া দরবার শরীফের তরিক্বতের ২৬টি এবাদতখানা ভাঙচুর তরিক্বতপন্থীদের বাড়িঘর লুটপাট ব্যবসা বাণিজ্য ধ্বংস এবং শারীরিকভাবে আঘাত করলেও কোন মামলা গ্রহণ করেননি। বক্তারা উক্ত মিথ্যা মামলাসমূহ প্রত্যাহার ও গত আড়াই মাস ধরে রাউজানের তান্ডবলীলার বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানান।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রাউজান

১৩ ডিসেম্বর, ২০২০
১৮ জানুয়ারি, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন