Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার , ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী থেকে মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়োগবিধি হালনাগাদ করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা মাঠ কর্মচারী সমিতি। নিয়োগবিধি হালনাগাদ না হওয়ায় তাদের পদোন্নতি হচ্ছে না বলেও জানান তারা।

গতকাল শুক্রবার সকালে রাজধানীর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানায় সংগঠনটি। সারাদেশ থেকে পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের শতাধিক কর্মচারী সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হন।

সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের সভাপতি মোহাম্মদ ফিরোজ মিয়া বলেন, দেশকে বাড়তি জনসংখ্যার চাপ থেকে বাঁচানোর জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ২০০১ সালে শেখ হাসিনা সরকারের সময় পরিকল্পনা বিভাগের ২৮ হাজার মাঠকর্মীসহ মোট ৪৩ হাজার ৫৪০ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করেন। কিন্তু দীর্ঘ ২১ বছরেও পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়োগবিধি হালনাগাত করা হয়নি।

নিয়োগবিধি হালনাগাদ না হওয়ায় অনেকেই ইতোমধ্যে পদোন্নতি ছাড়া দীর্ঘ ৩৮ থেকে ৪০ বছর কাজ করে অবসরে গেছেন। অনেকে যাচ্ছেন। আমরা এ নিয়োগবিধি হালনাগাদ করার জোর দাবি জানাচ্ছি। পরিবার কল্যাণ সহকারীদের পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক পদে এবং পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শকদের সহকারী উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পদে পদোন্নতির দাবি করেন তারা।

সেই সঙ্গে চলমান নিয়োগবিধিতে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের শিক্ষাগত যোগ্যতা এইচএসসি, সমমান ও পরিবার পরিদর্শকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক, সমমান নির্ধারণের মাধ্যমে পরিবার কল্যাণ সহকারীদের বেতনস্কেল উন্নীত করে চর্তুথ শ্রেণির অপবাদ থেকে রক্ষার দাবিও করেন তারা।

এ সময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নাজনীন আক্তার বলেন, চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী থেকে মুক্তি চাই, এটাই আমার দাবি। নিয়োগবিধি হালনাগাদ ও তাদের চাকরির অন্য সমস্যার দৃশ্যমান অগ্রগতি না হলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে রাজধানীতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করা হবে।

তারপরও এ কর্মসূচি সফল না হলে পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারণলিপি প্রদান করা হবে বলেও জানান সভাপতি ফিরোজ মিয়া। পদমর্যাদার অধিকার নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে বলেও জানায় সংগঠনটি।

 

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংবাদ সম্মেলন


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ