Inqilab Logo

শনিবার, ১৩ আগস্ট ২০২২, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৪ মুহাররম ১৪৪৪

বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আটক ১২

শ্রমিকদের অবোরোধ কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠি চার্জ

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০১৯, ৪:৪২ পিএম

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিকদের অবোরোধ কর্মসূচিতে পুলিশে লাঠি চার্জ ও ধাওয়া,পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় শ্রমিক আন্দোলন কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান ও সাধারন সম্পাদক আবু সাঈদসহ ১২ জন আন্দোলনকারী শ্রমিক নেতাকে আটক করেছে পুলিশ।
বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রে নিয়োগের দাবীতে গত শনিবার থেকে শুরু হওয়া শ্রমিকদের অবরোধ কর্মসুচির দ্বিতীয় দিনে গতকাল রোববার বেলা ১১ টায় এই লাঠি চার্জ ও ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে । পুলিশের লাঠিচার্জে অন্ততপক্ষে ২০জন শ্রমিক আহত হওয়ার দাবী করেছে আন্দোলনকারীরা।
পুলিশের হাতে আটক হওয়া অনান্য শ্রমিকনেতা হলেন, আরিফুল ইসলাম, মাজেদুল ইসলাম, মনোয়ার হোসেন, আব্দুল আজাদ, মমিনুল ইসলাম, মাজেদুল হক, জিয়াদুল হক ও শাহিনুর রহমান।
এদিকে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আটক শ্রমিক-নেতাদের মুক্তির দাবী করে আবারো কঠোর আন্দোলনের ঘোষনা দিয়েছেন আন্দোলনকারী শ্রমিকরা।
পুলিশের লাঠি চার্জ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনার পর আন্দোলরত শ্রমিকরা সংগঠিত হয়ে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করে, এই কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারী দেন শ্রমিক অধিকার আন্দোলন কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবি শাহাজান। এসময় কমিটির সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম, আরিফ, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন ফুলবাড়ী শাখার সাধারণ সম্পাদক নুর আলমসহ অন্যান্য শ্রমিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
শ্রমিক অধিকার আন্দোলন কমিটির সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও আরিফ সাংবাদিকদের বলেন শ্রমিকরা তাদের ন্যায্যদাবী পূরণের লক্ষ্যে শান্তিপুর্ণ ভাবে কর্মসূচি পালন করে আসছিল, কিন্তু পুলিশ বিনা উস্কানীতে হঠাৎ তাদের উপর লাঠি চার্জ শুরু করে। তবে পুলিশ বলছে আন্দোলনকারীদের বারবার অনুরোধ করেও তারা সড়ক থেকে সরে না যাওয়ায় তাদেরকে সড়ক থেকে ধাওয়া দিয়ে তুলে দেয়া হয়েছে।
বড়পুকুরিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক সুলতান মাহমুদ বলেন,আন্দোলনকারীরা দাবী আদায়ের নামে ফুলবাড়ী-পাবর্তীপুর সড়ক অবোরোধ করে যানচলাচলে বিঘ্ন ঘটায়, এতে করে জনদুর্ভোগের সৃষ্টি হয়, একারণে তাদের মৃদু ধাওয়া দিয়ে সেখান থেকে তুলে দিয়ে ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর সড়কে যান চলাচল স¦াভাবিক করা হয়েছে।

উল্লেখ্য বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের তৃতীয় ইউনিটের উন্নয়ন কাজের স্থানীয় অভিজ্ঞ শ্রমিকরা উৎপাদন কাজের কর্মী হিসাবে নিয়োগের দাবীতে গত শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের প্রধান ফটকের সামনে, ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর সড়কে অবস্থান নিয়ে তাদের পুর্ব ঘোষিত এই অবোরোধ কর্মসূচি শুরু করে।
এই বিষয়ে জানতে চাইলে বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের প্রধান প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান বলেন, আন্দোলনকারীরা তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের নির্মাণকালিন একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের অধিনে উন্নয়ন কাজ করছিল, এখন উন্নয়ন কাজ শেষ। আবারো যখন তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে জনবল প্রয়োজন হবে তখন তাদের কাজে লাগানো হবে, এখন জনবলের প্রয়োজন নেই। তবে সরকারীভাবে নিয়োগের ব্যাপারে আমাদের কিছুই করার নাই।
সম্পাদক নুর আলমসহ শ্রমিক নেতা আরিফুল ইসলাম, কবি শাহাজান আলী মানিক শ্রমিকদের দাবী পুরনের উদ্যেশে বক্তব্য দেন।
উল্লেখ্য যে,শুক্রবার মধ্যরাত থেকে আন্দোলনরত শ্রমিকরা বড়পুকুরিয়া তাপ বিদুৎ কেন্দ্রের প্রধান ফটকের সামনে, ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর সড়কে অবস্থান নিয়ে তাদের পুর্ব ঘোষিত এই অবোরোধ কর্মসূচি শুরু করে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বড়পুকুরিয়া


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ