Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

ভারতকে থামাতে পারবে কী নিউজিল্যান্ড?

জাহেদ খোকন | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০১৯, ৯:২৫ পিএম

আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসরে উড়তে থাকা ভারতকে থামাতে পারবে কী নিউজিল্যান্ড? নাকি কিউইদের টানা দ্বিতীয় ফাইনালে খেলার স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ করে দেবে ভারতীয়রা। এমন প্রশ্ন এখন ঘুরপাক খাচ্ছে বিশ্বের কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে। ইংল্যান্ড-ওয়েলস বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে মঙ্গলবার মুখোমুখি হচ্ছে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। ওল্ড ট্রাফোর্ডে বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায় শুরু হবে ম্যাচটি। এ ম্যাচকে ঘিরে দু’দলের ক্রিকেটারদের মাঝেই শুধু নয়, টানটান উত্তেজনা এখন গোটা ক্রিকেট বিশ্বে। সবার ভাবনায় একই সুর ‘কে খেলবে বিশ্বকাপের স্বপ্নের ফাইনালে’?

বিশ্বকাপে এবার দূরন্ত গতিতেই ছুটছে ভারতীয়রা। লিগ পর্বের নয় ম্যাচের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেসে গেলেও বাকি আট ম্যাচে দূর্দান্ত পারফরমেন্স করেছে ভারত। তারা অনায়েসেই সাত ম্যাচ জিতে একমাত্র হারের স্বাদ পেয়েছে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের কাছে। সর্বোচ্চ ১৫ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার শীর্ষে থেকে লিগ পর্ব শেষ করে প্রথম দল হিসেবে সেমিতে জায়গা পেয়েছে টিম ভারত। লিগ পর্বে তাদের পারফরমেন্সই আভাস মেলে এবারের বিশ্বকাপ শিরোপার অন্যতম দাবিদার তারা।

কিউইরা বর্তমান রানার্সআপ হলেও প্রথম সেমিফাইনালে ভারতকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিকেটবোদ্ধারা। কারণ এবার যেন জ্বলে উঠেছেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। দলের দু’জনের চোট সত্ত্বেও এবার দুর্দান্ত খেলছে টিম ভারত। ব্যাট হাতে লিগ পর্বে পাঁচ সেঞ্চুরি করে বিশ্ব রেকর্ডের মালিক হয়েছেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা। এর আগে অন্য কোন ব্যাটসম্যান বিশ্বকাপে পাঁচ সেঞ্চুরি করতে পারেননি। রোহিতকে দারুণ সঙ্গ দিচ্ছেন কেএল রাহুল। তিনি গত দু’ম্যাচে ৭৭ আর ১১১ করে ফর্মে ফিরেছেন। এছাড়া অধিনায়ক বিরাট কোহলি, উইকেটরক্ষক মহেন্দও সিং ধোনি, বিজয় শঙ্কর, কেদার যাদবরা তো রয়েছেনই। এরা জ্বলে উঠলে ভারতকে ঠেকানো মুশকিল। আর জসপ্রীত বুমরাহ’র নেতৃত্বে নিজেদের উজাড় করে দিচ্ছেন ভারতীয় বোলাররাও। তবে বোলারদের মধ্যে মঙ্গলবার কে কে খেলবে তা নিয়ে হয়তো এখনো দোলাচলে আছে ভারতীয় শিবির।

অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড এবার বিশ্বকাপের শুরুটা দূর্দান্ত করলেও অনেকটা ধুকে ধুকেই শেষ চারে এসেছে। লিগের শেষ তিন ম্যাচে পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে কিউইরা এক সময় সেমিফাইনালের পথ কঠিন করে তোলে। তবে ভাগ্য সহায় থাকায় রান রেটে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলে শেষ চারের টিকিট পায় তারা। নয় ম্যাচে পাঁচ জয়, তিন হার ও ভারত ম্যাচটি বৃষ্টির কল্যাণে ড্র হওয়ায় ১১ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ দল হিসেবে সেমিফাইনালে নাম লেখায় কিউইরা। তবে বলা যায়, হার-জিত মিলিয়ে এবারের বিশ্বকাপে মোটামুটি ভালই খেলছে গতবারের রানার্সআপ নিউজিল্যান্ড। আক্রমণাতœক বোলিং আর অধিনায়ক কেন উইলিয়মসনের ব্যাটিংয়ের সুবাদে লিগ পর্বে প্রথম ছ’ম্যাচের ম্যাচে পাঁচটিতেই জেতে তারা। ভারতের বিপক্ষে অন্য ম্যাচটি বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নেয় দু’দল। নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভাল খেলার পর থেকে টুর্নামেন্টে রান পাননি নিউজিল্যান্ড ওপেনার মার্টিন গাপ্টিল। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে তার ব্যাট না হাসলে পস্তাতে হবে কিউইদের। সেমির ম্যাচে ইনিংস ভালভাবে শুরু করার দায়িত্ব কিন্তু গাপ্টিলকেই নিতে হবে। এছাড়া ব্যাটিংয়ে রস টেইলর, টম লেথম, জিমি নিশম’দেরও রাখতে হবে ভূমিকা। আর বল হাতে ট্রেন্ট বোল্ট, টিম সাউদি, লোকি ফার্গুসন, ম্যাট হেনরি’রা তান্ডব না ছড়ালে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের রুখতে খুব কষ্ট হবে নিউজিল্যান্ডের।

সাম্প্রতিক ফর্মে ভারত অনেক এগিয়ে নিউজিল্যান্ডের চেয়ে। কাগজেকলমে তারাই বেশি শক্তিশালী। কিন্তু উইলিয়মসন শুধু যে শক্ত প্রতিপক্ষের বিপক্ষে রান পান তাইই নয়, অধিনায়ক হিসেবেও তিনি অত্যন্ত বিচক্ষণ। ওল্ড ট্রাফোর্ডে মঙ্গলবার কোহলি’র আগুন নেভাতে পারবেন হিমশীতল উইলিয়মসন?

এ ম্যাচে চোখ থাকবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কিউই পেসার ট্রেন্ট বোল্টের উপর। বিরাট কোহলি এবার এখন পর্যন্ত সেঞ্চুরি না পেলেও লিগ পর্বে ধারাবাহিকভাবে রান করেছেন। আট ম্যাচে পাঁচটা হাফসেঞ্চুরি সহ করেছেন ৪৪২ রান। সেমিফাইনালের মত মঞ্চে তার দিকেই তাকিয়ে খেলতে নামবে ভারত। আরেকদিকে নিউজিল্যান্ডের বোলিং ভরসা ট্রেন্ট বোল্ট। তিনি আট ম্যাচে নিয়েছেন ১৫ উইকেট। ২০১৫’র মত এবারো তিনি নিঃসন্দেহে তার দলের সেরা বোলার। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ৩৩ রানে চার উইকেট নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে জিততে সাহায্য করেছিলেন বোল্ট। মঙ্গলবার কী তিনি সেদিনের মতো জ্বলে উঠতে পারবেন?

ম্যাচের আগে আবহাওয়ার খবরে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার আকাশে মেঘ থাকবে। মাঝেমধ্যে হালকা বৃষ্টিও হতে পারে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গত পাঁচটা ম্যাচেই যারা আগে ব্যাট করেছে তারাই জিতেছে। তার উপর থাকছে সেমিফাইনালের চাপ। টসে যারা জিতবে, তারাই ব্যাটিং নিতে চাইবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন