Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ০৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৬ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

মুক্তিযোদ্ধাদের আবাসন প্রকল্প : ‘মুক্তিযোদ্ধা ভবন’

চসিকের উদ্যোগ

চট্টগ্রাম ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) উদ্যোগে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আবাসন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। গৃহনির্মাণ প্রকল্পের আওতায় অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহনির্মাণ করে দেবে চসিক। নগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলরের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি যাচাই-বাছাই করে ৫০জন অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধার একটি তালিকা প্রস্তুত করেছে। পাঁচ বছরের মধ্যে এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। 

মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহনির্মাণে আনুমানিক ১৫ কোটি টাকার প্রাক্কলিত বাজেট প্রস্তুতের পর চসিকের নির্বাচিত পরিষদ তা অনুমোদন করে। ২০১৭ সালের সিদ্ধান্তের আলোকে একই বছর এ প্রকল্প বাস্তবায়নে উদ্যোগী হন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। তিনি সরকারি নীতিমালার আলোকে প্রথমে নগরীতে অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য তাদের এক গন্ডা নিজস্ব বসতভিটায় মডেল গৃহ হিসেবে গৃহনির্মাণের প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেন।

মেয়র নাছিরের নির্দেশনায় ২০১৭ সালের ২০ এপ্রিল থেকে নগরীর ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডে মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মোহাম্মদ ইলিয়াছের বসতভিটায় ‘মুক্তিযোদ্ধা ভবন’-এর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ইতোমধ্যে আনুমানিক সাড়ে ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ভবন নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন লন্ডন থেকে দেশে ফেরার পর ‘মুক্তিযোদ্ধা ভবন’ উদ্বোধন করবেন এবং মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মো. ইলিয়াছের পরিবারে মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরের চাবি হস্তান্তর করবেন।

প্রতিটি ওয়ার্ডে ইমার্জেন্সি টীম

চসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী চলমান বর্ষা মৌসুমে প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে ইমার্জেন্সি টিম গঠনের পরামর্শ দিয়েছেন। যাতে জরুরি ভিত্তিতে নর্দমার ময়লা সরিয়ে পানি চলাচলের ব্যবস্থা করা যায়। গতকাল সোমবার চসিক সম্মেলন কক্ষে কাউন্সিলরদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ পরামর্শ দেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ