Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ১১ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

বগুড়ায় বাস-ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ ২ চালকসহ নিহত ১০ আহত ৩০

বাস চালকের আচরণ ছিল বেপরওয়া!

প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মহসিন রাজু, বগুড়া থেকে : বগুড়ার শেরপুরে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে ঢাকা থেকে দিনাজপুর অভিমুখি নৈশকোচ ও বিপরীত দিক থেকে আসা একটি পাথর বোঝাই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুর্ঘটনাকবলিত যানবাহন দুটির ২ চালকসহ ১০ জন নিহত এবং ৩০ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার ভোর সোয়া ৬টার দিকে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কে শেরপুর উপজেলার দক্ষিণে সীমাবাড়ি-ধনকুন্ডি নামকস্থানে পেন্টাগণ হোটেলের ৫০ গজ দক্ষিণে এই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর শেরপুর ফায়ার সার্ভিস এবং শেরপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের উদ্ধার করে শেরপুর ও বগুড়ায় হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে। এসময় মহাসড়কের উভয় দিকে শত-শত যানবাহন আটকা পড়ে এক মারাত্মক যানজটের সৃষ্টি হয়।
আহত বাস যাত্রী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দিনাজপুরগামী রেখা এন্টারপ্রাইজ (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-২৮১৫) এর সাথে বিপরীতমুখী পঞ্চগড় থেকে টাঙ্গাইলগামী পাথর বোঝাই ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ড-১০-১১৬৭) মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে ওই ঘটনা স্থলেই উভয় পরিবহনের ২ জন চালকসহ ১০ জন নিহত হয়। শেরপুর থানার পুলিশ জানায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মোবাইল ফোনে প্রথম দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়। এরপর দ্রুত সেখানে উপস্থিত হয়ে নিহতদের হাত-পা বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। আহতদের মাঝে শেরপুর উপজেলা হাসপাতালে নেয়ার পথে ১ জন এবং বগুড়ায় শজিমেক হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও ২ জনের মৃত্যু হয়। শেরপুর থানার পুলিশ ও শেরপুর ফায়ার সার্ভিস এর দল ঘটনাস্থল থেকে আহত বিডিআর সদস্য ইস্কান্দার আলীর ট্রাভেল ব্যাগ থেকে নগদ ১ লাখ ৯ হাজার টাকা উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে ফেরত দিয়েছে। সেইসাথে বিভিন্ন যাত্রীদের পরিবহন বাসে পাওয়া ১০/১৫টি ব্যাগ ও বেশ কয়েক হাজার নগদ টাকা উদ্ধার করে নিকট আত্মীয়-স্বজনের কাছে প্রদান করেছে। তবে শেরপুর হাসপাতাল থেকে আহত যাত্রীদের কয়েকটি ট্রাভেল ব্যাগ খোয়া গেছে বলে অভিযোগ করেছে আহতদের আত্মীয়-স্বজন।
এছাড়াও অনেক আহত যাত্রীই অভিযোগ করেন দুর্ঘটনাকবলিত নৈশকোচের চালকের আচরণ ছিল অস্বাভাবিক ও ড্রাইভিং ছিল বেপরওয়া। প্রথমত সে নির্দিষ্ট সময়ের দেড় ঘণ্টা পরে ড্রাইভিং সিটে বসায় যাত্রীদের বকুনি খায়। দ্বিতীয়ত ওই দেড় ঘণ্টা সময়ের ঘাটতি পূরণের জন্য বেপরওয়া গতিতে গাড়ী চালাচ্ছিল। এই কারণেও অনেক যাত্রী দুর্ঘটনার আশংকা ব্যক্ত করে স্বাভাবিক গতিতে গাড়ী চালানোর জন্য চিল্লাচিল্লি করলেও চালক কারো কথাতেই কর্ণপাত করেনি। যার পরিণতিতেই এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা আর প্রাণহানী ঘটলো বলেও অভিযোগ আহত যাত্রীদের।
খুলনায় বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
খুলনা ব্যুরো জানায়, খুলনার বরইতলা এলাকায় বাসচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে চালনা-বটিয়াঘাটা সড়কে এদুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন উত্তম কুমার (৩৬) ও শিবেন্দ্র কুমার (২৬)।
বটিয়াঘাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মামুন-আর-রশিদ জানান, মোটরসাইকেলটি চলনা থেকে গল্লামারীর দিকে যাওয়ার সময় বরইতলা এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাস তাদের চাপা দেয়। এতে মোটরসাইকেল থাকা দুই আরোহীর ঘটনাস্থলেই মারা যায়। বাসটিকে আটক করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে বলে জানান ওসি।
গোপালগঞ্জে মইক্রো চাপায় স্কুলছাত্রী নিহত
গোপালগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মাইক্রো চাপায় চম্পা খাতুন (১১) নামে এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে।
গতকাল দুপুর ১ টার দিকে ঢাকাÑখুলনা মহাসড়কের মুকসুদপুর উপজেলার সালিনাবক্সা নামক স্থানে এ সড়ক দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত চম্পা সালিনাবক্সা পূর্বপাড়া গ্রামের মিটু শেখের কন্যা ও ১৭৭ নং বি.কে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী।
ভাঙ্গা হাই ওয়ে থানার ওসি মোঃ হোসেন সরদার জানান, দুপুর ১টার দিকে সালিনাবক্সা পেট্রোল পাম্প এলাকায় রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগামী একটি মাইক্রোবাস চম্পাকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনা স্থলেই সে মারা যায়। ওই স্কুলছাত্রীর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 



 

Show all comments
  • Md. Agdul Gaffar ৪ জুন, ২০১৬, ১:৪১ পিএম says : 0
    খবরটা অনুযায়ী নাইট কোচের ড্রাইভার দোষী, কিন্তু সে মরে গিয়ে বেঁচে গেল। আর আমাদের সম্মানিত যাত্রী সাধারণ বাঁচার জন্য সংশ্লিষ্ট ড্রাইভারের রং কাজের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেও তাঁরা বাঁচতে পারলেন না, এই হল আমাদের বাংলাদেশ, হায় বাংলাদেশ তুমি কতদিনে ভাল হবে, কতদিনে তোমার নাগরিকরা নিরাপত্তা পাবে, নিরাপদ ড্রাইভার, নিরাপদ নৌযান চালক বানাবে, বাঁচবে মানুষ, রক্ষা হবে ন্যুনতম অধিকার
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ