Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

নিউজিল্যান্ডের ভাগ্য বৃষ্টির হাতে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

আবহাওয়া অফিস পূর্বাভাস দিয়ে রেখেছিল আগেই। বৃষ্টির শঙ্কা মাথায় নিয়েই তাই গতকাল ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে শুরু হয় ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচ। শঙ্কাটা বাস্তবে রূপ নেয় নিউজিল্যান্ড ইনিংসের শেষ ভাগে এসে। এরপর শুরু অপেক্ষার প্রহর। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত খেলা আর মাঠে গড়ায়নি।

বৃষ্টির শঙ্কা মাথায় রেখেই সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচের জন্য পরের দিন রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছিল। সেই হিসাবে গতকাল ম্যাচ শেষ না হয়ে থাকলে একই মাঠে আজ অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচের বাকি অংশ। সেক্ষেত্রে নিউজিল্যান্ডের জন্য ভয়ের খবর হলো, আজও ম্যানচেস্টারে বৃষ্টি হওয়ার জোর সম্ভবনা রয়েছে। আর খেলা পুরোপুরি পরিত্যক্ত হলে গ্রুপ পর্বের শীর্ষ দল হিসেবে ফাইনালে উঠে যাবে ভারত।

কাল যখন বৃষ্টিতে বাগড়া দেয় নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ তখন ৪৬.১ ওভারে ৫ উইকেটে ২১১। নিউজিল্যান্ড আর ব্যাট করতে না পারলে ২০ ওভারে ভারতের স্কোর থাকতে হতো ১৪৮। ডি/এল নিয়মে বিরাট কোহলির দলের লক্ষ্য দাঁড়াতো ৪৬ ওভারে ২৩৭।

বর্ষার কথা মাথায় রেখেই টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক। মন্থর উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে কঠিন যুদ্ধ করতে হয়েছে কিউই ব্যাটসম্যানদের। ম্যাচের চতুর্থ ওভারে মার্টিন গাপটিল আউট হয়েছেন ১ রান করে জাসপ্রিত বুমরাহর দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে। দলীয় রানও তখন ১! সঙ্গে ভুবনেশ্বর কুমারের হাত থেকেও যেন বল নয়, বের হচ্ছিল একেকটা গোলা।

এমতাবস্থায় দলের সবচেয়ে বড় দুই আস্থার নাম কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলর এগিয়ে আসেন ইনিংস মেরামতে। হেনরি নিকোলসের (২৮) সঙ্গে ৬৮ রানের সাবধানী জুটিতে প্রাথমিক পথ পাড়ি দেন উইলিয়ামসন। এরপর তার সঙ্গে যোগ দেন টেইলর। এই জুটিতেই ২৯তম ওভারে আসে দলীয় শতক। তাদের ৬৫ রানের জুটি বিচ্ছিন্ন করেন যোগেন্দ্র চাহাল। পয়েন্টে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে ৯৫ বলে ৬৭ রান করেন উইলিয়ামসন। ফিফটিতে পেীঁছাতে সময় নেন ৭৯ বল। টুর্নামেন্টে তার রান দাঁড়ায় চতুর্থ সর্বোচ্চ ৫৪৮।

টেইলরের সঙ্গে জেমস নিশামের (১২) জুটি বেশিক্ষণ টিকতে দেননি হার্দিক পান্ডিয়া। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম আসার পর রান তোলার দিকে মন দেন টেইলরও। ২২ বলে ৩৮ রান আসার পর বাজে শট খেলে আউট হন ডি গ্র্যান্ডহোম (১৬)। এরপর টম লাথামকে (৩*)নিয়ে মাত্র দেড় ওভার খেলতেই বাগড়া দেয় বৃষ্টি। ইনিংসে তখন বাকি ৩.৫ ওভার। ৭৩ বলে ফিফটি করা টেইলর অপরাজিত ছিলেন ৮৫ বলে ৬৭ রানে। ভারতের পাঁচজন বোলার উইকেট পাঁচটি সমানভাবে ভাগ করে নেন। এদের মধ্যে চাহালই দিয়েছেন ওভারপ্রতি ছয়ের উপরে রান। ৩৪ রানে ১ উইকেট নেন জাদেজা।



 

Show all comments
  • নাজিম উদ্দিন ১০ জুলাই, ২০১৯, ৩:৫৩ এএম says : 0
    আমার মনে হচ্ছে এবার ভারত চ্যাম্পিয়ান হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • কাওসার আহমেদ ১০ জুলাই, ২০১৯, ৩:৫৪ এএম says : 0
    এই ম্যাচে নিউজিল্যান্ড হারবে মনে হচ্ছে
    Total Reply(0) Reply
  • খালেদ ১০ জুলাই, ২০১৯, ৩:৫৪ এএম says : 1
    ভারত হারলে খুব খুশি হবো।
    Total Reply(0) Reply
  • সাব্বির আহমেদ বাবু ১০ জুলাই, ২০১৯, ৯:২০ এএম says : 0
    যাক আরো একদিন অপেক্ষা
    Total Reply(0) Reply
  • Razia Sultana ১০ জুলাই, ২০১৯, ৯:২১ এএম says : 0
    বেস্ট অফ লাক টিম ইন্ডিয়া, ইনশাআল্লাহ আমরা জিতবো, জয় হিন্দ
    Total Reply(0) Reply
  • Mithun Biswas ১০ জুলাই, ২০১৯, ৯:২৫ এএম says : 0
    India will win
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ ক্রিকেট

১৬ জুলাই, ২০১৯
১৫ জুলাই, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন