Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

ঝালকাঠির পেয়ারার ভাসমান হাট পরিদর্শন করলেন আমেরিকান রাষ্ট্রদূত

ঝালকাঠি জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০১৯, ৩:৩৮ পিএম

ঝালকাঠিতে ঐতিহ্যবাহী পেয়ারার বৃহত্তর ভাসমানহাট পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত আমেরিকান রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় তিনি সদর উপজেলার ভীমরুলী গ্রামের খালে পেয়ারার ভাসমানহাটে এসে পৌঁছান। এসময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী ও পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন।
রাষ্ট্রদূত ভীমরুলী গ্রামের খালের ভাসমান পেয়ারারহাটে নৌ-ভ্রমন করেন। পরে তিনি পেয়ারার ডিঙি নৌকায় চড়ে স্থানীয় পেয়ারা ও সবজি চাষিদের সঙ্গে মিশে যান। তিনি পেয়ারা চাষীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। ডিঙি নৌকায় চড়ে বৈঠা হাতে রাষ্ট্রদূত নৌকা চালানোর চেষ্টা করেন। খালের দুই তীরে শত শত মানুষ দাঁড়িতে থেকে তা উপভোগ করেন। ভাসমান পেয়ারারহাট পরিদর্শন শেষে মার্কিন রাষ্ট্রদূত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় তিনি উচ্ছ্বাসিতভাবে পেয়ারার ভাসমানহাটের প্রশংসা করেন। এখানকার প্রকৃতিক সৌন্দর্যে বিমুহিত হয়ে আতিথিয়তারও প্রসংশা করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আমেরিকান অ্যাম্বাসির কর্মকর্তারা ছিলেন।
ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী বলেন, ঝালকাঠি জেলার ব্রান্ডিং হচ্ছে পেয়ারা ও শীতলপাটি। আমাদের পেয়ারার বিশাল বাগান রয়েছে। এখানে একটি ফ্লটিং মার্কেট আছে। একটি খালের ভেতর শত শত ডিঙি নৌকায় পেয়ারা বিক্রি করছেন চাষীরা। মার্কিন রাষ্ট্রদূত দক্ষিাঞ্চল সফরে এসে আমাদের ভীমরুলী গ্রামে ভাসমান পেয়ারারহাট পরিদর্শনে আসেন। আমরা তাকে ভাসমানহাট ঘুরিয়ে দেখিয়েছি। তিনি এখানকার মানুষ ও পেয়ারার ভাসমানহাটের প্রশংসা করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আমেরিকান রাষ্ট্রদূত
আরও পড়ুন