Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

বিবর্তনবাদ শিক্ষা পাঠ্যবই থেকে প্রত্যাহর করতে হবে

নগর কাউন্সিলে-আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেছেন, ২০১৩ সন থেকে ৯৪% মুসলমানের দেশে বিবর্তনবাদ শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করে ছাত্র-ছাত্রীদের ঈমানহারা করা হচ্ছে। ছাত্র-ছাত্রীদের নাস্তিক্যবাদে আকৃষ্ট করার জন্যই বিবর্তনবাদ শিক্ষা চালু করা হয়েছে। মুসলমানের দেশে নাস্তিকতাবাদ চলতে দেয়া হবে না। অবিলম্বে বিবর্তনবাদ শিক্ষা পাঠ্যবই থেকে প্রত্যাহার করতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ঢাকা মহানগ কাউন্সিলে আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দীর সভাপতিত্বে এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবিব, মাওলানা বাহাউদ্দিন যাকারিয়া, মহাসচিব মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরী, মাওলানা তাজুল ইসলাম আশরাফি, মুফতী নাসির উদ্দিন খান, মাওলানা নাজমুল হাসান , মাওলানা লোকমান মাজহারী, মাওলানা হেদায়েতুল ইসলাম ও মাওলানা ইসহাক কামাল।
আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, চুরি-ডাকাতির মাধ্যমে জনগণের ভোটের অধিকার হরণ করা হয়েছে। দেশে খুন, ধর্ষণ ও মাদকের ছোবল দিন দিন বাড়ছে। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার দিয়ে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে হবে। নগর কাউন্সিলে সর্ব সম্মতিক্রমে মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দীকে সভাপতি ও মাওলানা মতিউর রহমান গাজীপুরীকে মহাসচিব করে ১১২ সদস্য বিশিষ্ট জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ঢাকা মহানগর কমিটি (২০১৯-২০২০-২০২১) ঘোষণা করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিক্ষা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ